বাংলাবাজার ঘাটে মোটরসাইকেলের চাপ বেশি
বাংলাবাজার ঘাটে মোটরসাইকেলের চাপ বেশি

বাংলাবাজার ঘাটে মোটরসাইকেলের চাপ বেশি

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাটে সকাল থেকে শত শত মোটরসাইকেল পার হচ্ছে। অন্যান্য বছরের তুলনায় চলতি বছরে মোটরসাইকেলের চাপ বেশি লক্ষ্য করা গেছে। এ কারণে বিশৃঙ্খলা এড়াতে একটি ঘাট শুধু মোটরসাইকেল পারাপারে জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে।  

সরেজমিনে দেখা গেছে, অনেকেই লঞ্চ, স্পিডবোট ও ফেরি পার হয়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছে।

অপরদিকে স্পিডবোট ঘাটে কিছুটা অনিয়ম দেখা গেছে। লাইফ জ্যাকেট ছাড়া অনেক বোটকে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করতে দেখা গেছে। লঞ্চেও অতিরিক্ত যাত্রী বহন করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে, ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া-মাদারীপুরের বাংলাবাজার- শরীয়তপুরের মাঝিকান্দি নৌপথে ৮৫টি লঞ্চ ও ১৫৫টি স্পিডবোট চলাচল করছে। দুটি নৌরুটে ছোট-মাঝারি আকারের ১০টি ফেরি চলাচল করছে। এ নৌপথে সকাল সাড়ে ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলাচলরত স্পিডবোটে ১৫০ ও লঞ্চে ৪৫ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে।

২৪ ঘণ্টা ফেরি চালু হওয়ায় ঢাকা ও আশপাশের জেলা থেকে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া, মাদারীপুরের বাংলাবাজার এবং শরীয়তপুরের মাঝিকান্দি নৌপথে যাত্রী ও যানবাহনের চাপের তুলনায় যানবাহন পারাপারে গতি বেড়েছে। ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তি কমাতে শরীয়তপুরের জাজিরায় মাঝিকান্দি (সাত্তার মাদবর) ঘাটে নতুন একটি ফেরিঘাট চালু করা হয়েছে। বুধবার থেকে নতুন ঘাটটিতে যানবাহন নিয়ে ফেরি চলাচল করছে।

শিমুলিয়া নদী বন্দর কর্মকর্তা মো. শাহাদাত হোসেন জানান, গত চারদিন ধরে ঘাটে যাত্রীর চাপ বাড়ছে। তবে নিরাপদে যাত্রী পারাপারের জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা রয়েছে। ৮৭টি লঞ্চের মধ্যে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে ৬৫টি ও শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি পথে ২০টি লঞ্চ চলাচল করছে। লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচলের সময় ও ভাড়া নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। কেউ অতিরিক্ত ভাড়া এবং ঝুঁকি নিয়ে নির্ধারিত সময়ের বাইরে লঞ্চ স্পিডবোট চালানোর চেষ্টা করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের যাত্রীদের নিরাপদে নদী পারাপার নিশ্চিতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় ট্রাফিক পুলিশ, নৌ পুলিশ, লৌহজং থানা পুলিশ, জেলা পুলিশ, কোস্ট গার্ড, সিভিল ডিফেন্স ও আনসার সদস্যরা নিয়োজিত থাকছেন। অতিরিক্ত ভাড়া বন্ধের জন্য ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ করছে।

news24bd.tv/কামরুল 

;