একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই ব্যাক্তির পরিচয় মিলল
একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই ব্যাক্তির পরিচয় মিলল

একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই ব্যাক্তির পরিচয় মিলল

অনলাইন ডেস্ক

একসঙ্গে করোনা ভাইরাসের তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই সৌদি প্রবাসী ওমর ফারুকের পরিচয় মিলেছে। তিনি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ভুইঘর এলাকায় তার বাড়ি।

দেশে অনুমোদিত করোনা ভাইরাসের সব টিকার সর্বোচ্চ দুই ডোজ নেওয়ার নিয়ম থাকলেও ওমর ফারুক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) টিকাদান কেন্দ্রে একদিনেই তিন ডোজ নিয়েছেন বলে দাবি করেছেন।

ওই সাক্ষাৎকারে ওমর ফারুক বলেন, ‘আমি যখন টিকা কেন্দ্রে ঢুকলাম তখন আমাকে একজন বলল ডান সাইডের কর্নারে যেতে।

ওইখানে যখন টিকা দেওয়া শেষ হলো জিজ্ঞেস করলাম, কোথায় যাব? উনি বলল, সামনের দিকে। সামনে আসলাম, ওইখানেও একটা টিকা দিল। ওনাকে জিজ্ঞাস করলাম কোথায় যাব উনিও বলল সামনের দিকে যেতে। সামনে আসলাম আর কিছু জিজ্ঞেস করে নাই। আরেকটা টিকা দিয়ে দিছে। মোট তিনবার টিকা দিয়েছে। বাইরে এসে যখন বাকিদের জিজ্ঞেস করলাম আপনার কয়বার টিকা দিয়েছে, ওনারা বলল একবার টিকা দিয়েছে। ’

সাক্ষাৎকারটি গণমাধ্যমে প্রচারের পর পরই এই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

তবে একই দিনে তিন ডোজ টিকা দেয়ার যে খবর রটেছে তা ঠিক নয় বলে দাবি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ে বুধবার (২৮ জুলাই) রাত ১২টার দিকে  ফতুল্লার ভুইগড় এলাকায় ওমর ফারুকের বাড়িতে গেলে পরিবারের সদস্যরা জানান, একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেওয়ার পর ওমর ফারুকের তেমন কোনও সমস্যা হয়নি। সামান্য জ্বর অনুভব করা ছাড়া তার শরীরে আর কোনও সমস্যা দেখা দেয়নি।

ওমর ফারুকের এক প্রতিবেশী দাবি করেন, ‘বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে দুটি গাড়িতে করে ওমর ফারুককে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ সময় তাদের পরিচয় জানতে চাইলে, তারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসেছেন বলে জানান। তিন ডোজ টিকা নেওয়ার কারণে ওমর ফারুককে চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণে রাখা হবে বলেও জানান তারা। ’

এ প্রতিবেশী আরও বলেন, ‘ওমর ফারুকের বাবা জামাল উদ্দিনের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তিনি এখন বিএসএমএমইউতে রয়েছেন। ওমর ফারুকের সঙ্গে তার বোনের স্বামী গোলাম সারোয়ার নাহিদও ওই গাড়িতে করে গেছেন। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছানোর পর টিকিট কাটতে কাউন্টারে যাওয়ার কয়েক মিনিট পরই সেই গাড়ি দুটি আর খুঁজে পাননি তিনি। এরপর সন্ধ্যায় ওমরের বাবা ছুটে যান হাসপাতালে। ’

স্বজনদের বরাত দিয়ে ওমর ফারুকের প্রতিবেশীরা জানান, ওমর ফারুক তার বাবার সঙ্গে রাত ৮টার দিকে কথা বলেছেন। জানিয়েছেন, তাকে  হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

তবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম পরিচয়ে ওমর ফারুককে বাড়ি থেকে নিয়ে যাওয়ার যে দাবি পরিবার ও প্রতিবেশীদের পক্ষ থেকে করা হচ্ছে, সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সূত্র: সময় নিউজ

আরও পড়ুন:


সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

করোনায় ঝালকাঠির আদালতের বিচারকের মৃত্যু!

আগস্ট মাসের দুই দিন বন্ধ থাকবে ব্যাংক

২৯ জুলাই: ইতিহাসে আজকের এই দিনে


news24bd.tv / কামরুল 

;