প্রথম সন্তান মেয়ে হওয়ায় খালে ফেলে দিল মা, অতঃপর…
প্রথম সন্তান মেয়ে হওয়ায় খালে ফেলে দিল মা, অতঃপর…

প্রথম সন্তান মেয়ে হওয়ায় খালে ফেলে দিল মা, অতঃপর…

অনলাইন ডেস্ক

কুমিল্লার মুরাদনগরে ১৯ দিনের শিশু ঘর থেকে নিখোঁজ হওয়ার একদিন পর খালের ভিতর থেকে মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মা রত্না আক্তারকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে বাইড়া ফরিদ ভান্ডারীর বাড়ির বাচ্চু মিয়ার ঘর থেকে প্রবাসী মজিবুর রহমানের ১৯ দিনের শিশু রাবেয়া নিখোঁজ হয়।

শুক্রবার বেলা ১১টায় বাড়ির পাশে খাল থেকে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে পরিবারের সকল সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় শিশুটির মা রত্নাকে আলাদা করে জিজ্ঞাসাবাদে ঘুমন্ত শিশু রাবেয়াকে হত্যার কথা স্বীকার করেন তিনি। তিনি বলেন, নিখোঁজের নাটক সাজিয়ে ছিলাম যাতে কেউ বুঝতে না পারে।

এ ঘটনায় নিহতের দাদা বাচ্চু মিয়া বাদী হয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় বাঙ্গরা বাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, মুরাদনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান স্যার উপস্থিত থেকে শিশুটির মা রত্নাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এ সময় রত্না আক্তার পুলিশের কাছে স্বীকার করেন, প্রথম সন্তান মেয়ে হওয়ায় সবার অগোচরে বাড়ির পাশে খালে ফেলে দেন। এ ঘটনায় হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে শনিবার সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:


প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে, অবশেষে বুড়িগঙ্গায় মিলল গৃহবধূর লাশ

হোমিও-ইউনানি ডিগ্রিধারীরা ব্যবহার করতে পারবেন না 'ডাক্তার'

চট্টগ্রামে একদিনে করোনা শনাক্ত কমল

মার্কিন দূতাবাসে হামলা না চালাতে তালেবানের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান


NEWS24.TV / কামরুল