এ যাবতকালে চিকিৎসকদের সর্ববৃহৎ সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
এ যাবতকালে চিকিৎসকদের সর্ববৃহৎ সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ঐতিহাসিক শহীদ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মেলনে আগত চিকিৎসকগণের একাংশ

এ যাবতকালে চিকিৎসকদের সর্ববৃহৎ সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ)। দীর্ঘ সাত বছর পর আজ শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে স্বাচিপের পঞ্চম ত্রিবার্ষিক জাতীয় সম্মেলন। ঐতিহাসিক শহীদ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত চিকিৎসকদের এই সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে সম্মেলন উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  

আশা করা যাচ্ছে, রাজধানীসহ সারাদেশের ২৫ থেকে ৩০ হাজার চিকিৎসক সম্মেলনে যোগ দেবেন।

বলা যায়, এ যাবতকালের চিকিৎসকদের সর্ববৃহৎ সমাবেশ হবে এটি। এই সম্মেলনের মাধ্যমেই স্বাচিপের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হবে। কিন্তু সভাপতি ও মহাসচিব পদে মূল নেতৃত্বে কারা আসছেন-এ নিয়ে চিকিৎসকদের মধ্যে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। অনেকের ধারণা, পুরোনো, অভিজ্ঞ ও দলের প্রতি আনুগত্য রয়েছে এমন চিকিৎসক নেতাদের মধ্যে থেকেই সভাপতি ও মহাসচিব নির্বাচন করা হবে।
সবার আশা, সম্মেলনের মাধ্যমে আসা নতুন নেতৃত্বই আগামী দিনে এই সংগঠনকে আরও গতিশীল করবে।

দীর্ঘদিন পর সম্মেলনকে কেন্দ্র করে স্বাচিপের চিকিৎসক সদস্যদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা গেছে। দুপুর আড়াইটায় সম্মেলন শুরুর কথা থাকলেও সকাল থেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জমায়েত হচ্ছেন সারা দেশ থেকে আগত স্বাচিপের সদস্য চিকিৎসকগণ। খণ্ড খণ্ড মিছিল আর ‘জয় বাংলা’, ‘জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানে মুখরিত এখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। সবাই প্রধানমন্ত্রীর আগমনের অপেক্ষায় আছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৯৩ সালের ২৪ ডিসেম্বর গঠিত হয় স্বাচিপ। প্রতিষ্ঠাকালে এই সংগঠনটির সভাপতি ছিলেন অধ্যাপক এম, এ, কাদেরী ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। ২০০৩ সালের কেন্দ্রীয় সম্মেলনে অধ্যাপক আ ফ ম রুহুল হক সভাপতি ও অধ্যাপক এম ইকবাল আর্সলান মহাসচিব নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর ২০১৫ সালের ১৩ নভেম্বর সর্বশেষ রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্বাচিপের চতুর্থ জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। তখন কমিটি গঠনের দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর ছেড়ে দিয়ে ওইদিন সম্মেলন স্থগিত করা হয়। পরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলানকে সভাপতি ও ডা. এম এ আজিজকে মহাসচিব নির্বাচিত করা হয়।  প্রতি পাঁচ বছর পরপর সংগঠনটির সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও করোনা মহামারির কারণে যথাসময়ে সম্মেলন করা সম্ভব হয়নি। এতোদিন পর আবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে স্বাচিপের জাতীয় সম্মেলন।

news24bd.tv/arkabul

এই রকম আরও টপিক