সোমবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২০ | আপডেট ০৩ মিনিট আগে

কিশোরীকে গণধর্ষণের পর বাড়ির উঠানে ফেলে গেল ‘ধর্ষকরা’

অনলাইন ডেস্ক

কিশোরীকে গণধর্ষণের পর বাড়ির উঠানে ফেলে গেল ‘ধর্ষকরা’

চাচাবাড়ি থেকে নিজবাড়িতে ফেরার পথে কিশোরীকে ঘাসবনে নিয়ে মুখ বেঁধে গণধর্ষণ করার অভিযোগে অভিযুক্ত পাঁচজনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। নড়াইলের এ ঘটনায় সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

দুপুরে নড়াইল সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা হয়েছে।

ওই মেয়ের পারিবার ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, রোববার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নড়াইলের জয়পুর ইউনিয়নের চরআড়িয়ারা গ্রামে চাচাবাড়ি থেকে নিজবাড়িতে ফেরার ফিরছিল ওই কিশোরী। এসময় তাকে একই গ্রামের আবুল কালাম মোল্লার ছেলে আল আমিন (১৮) ও তার সহযোগীরা পাশের ঘাসবনে নিয়ে মুখ বেঁধে গণধর্ষণ করে।

এক পর্যায়ে মেয়েটি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে রাত তিনটা ৪০ মিনিটের দিকে ভুক্তভোগী মেয়েটিকে তাদের বাড়ির উঠানে ফেলে যায়। এ ঘটনায় আল-আমিনসহ তার সহযোগী শিহাব মোল্লা, মুকুল মোল্লা, জাহাঙ্গীর মোল্লা ও ইয়াসিন শেখের নামে মামলা হয়েছে। এদের সবার বাড়ি চরআড়িয়ারা গ্রামে।

লোহাগড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমানুল্লাহ আল বারী বলেন, আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য