শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে ডিপজলের বিস্ফোরক মন্তব্য
শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে ডিপজলের বিস্ফোরক মন্তব্য

সংগৃহীত ছবি

শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে ডিপজলের বিস্ফোরক মন্তব্য

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের শুরু থেকেই আলোচনা-সমালোচনা চলছেই। এই নির্বাচন নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি। নির্বাচনের শুরু থেকে শেষের পরও  যেভাবে এক শিল্পী অন্য শিল্পীর প্রতি কাদা ছোড়াছুড়ি করেছেন। সেটাও নজর এড়ায়নি গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমে।

এদিকে শিল্পীদের নিজেদের মধ্যে কাদা ছোড়াছুড়ির বিষয়টিকে ‘দুঃখজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন সিনিয়র সহসভাপতি পদে নির্বাচিত ঢাকাই সিনেমার আলোচিত মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

ডিপজল বলেন, শিল্পী সমিতি নিয়ে এত মাতামাতি ও আলোচনার মূল কারণ হচ্ছে, ইন্ডাস্ট্রিতে কোনো কাজ নেই। হাতেগোনা কিছু সিনেমা নির্মিত হচ্ছে। শিল্পীদের হাতে কাজ নেই। ফলে তাদের সব মনযোগ সমিতির দিকে। আজ যদি একের পর এক সিনেমা নির্মিত হতো, তাহলে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হতো না। সবাই কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকত। সমিতির দিকে মন দেওয়ার সময় পেত না।

ঢালিউড অভিনেতা ও ঢাকাই ছবির ডেঞ্জারম্যান খ্যাত মনোয়ার হোসেন ডিপজল বলেন, আমার চলচ্চিত্র জীবনের দীর্ঘ অভিজ্ঞতায় দেখেছি, আমরা যখন সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকতাম, শিডিউল দেওয়ার মতো সময় হাতে থাকত না, তখন অন্য কোনো দিকে মনোযোগ দেওয়ার সুযোগ ছিল না।

আক্ষেপের সুরে মনোয়ার হোসেন ডিপজল বলেন, এখন ইন্ডাস্ট্রিতে যদি একের পর এক সিনেমা হতো, তাহলে সমিতির নির্বাচন এবং একে কেন্দ্র করে কাদা ছোড়াছুড়ি হতো না। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। এখন সমিতি নিয়ে যেসব আলোচনা, কাদা ছোড়াছুড়ি হচ্ছে, এতে কি আমাদের শিল্পীদের সম্মান বাড়ছে? বাড়ছে না।  

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ শিল্পী সমিতির নির্বাচনে নিপুণ আক্তারের পক্ষে দেওয়া সমাজ সেবা অধিদপ্তরের পদক্ষেপ স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।  সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানের কাজে কোনো বাধা নেই বলে জানানো হয়েছে।

এর আগে সকালে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থিতা বাতিল সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদন করেন জায়েদ খান। তার আইনজীবী নাহিদ সুলতানা যুথি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হওয়া জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। এর ফলে তিনি পদ হারান।
news24bd.tv/আলী  

;