বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৪ ঘণ্টা ৩০ মিনিট আগে

ব্যারিস্টার মঈনুলের বিরুদ্ধে মামলা করলেন মাসুদা ভাট্টি

নিউজ টোয়েন্টিফোর অনলাইন

ব্যারিস্টার মঈনুলের বিরুদ্ধে মামলা করলেন মাসুদা ভাট্টি

টকশোতে কটূক্তির অভিযোগে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি। রোববার দুপুরে ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. আসাদুজ্জামান নূরের আদালতে তিনি এ মামলা করেন। তবে আদালত এখনও আদেশ দেননি বলে জানা গেছে।

একই অভিযোগে এর আগে, ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ২০ হাজার কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করেছেন জামালপুর জেলা যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক ফারজানা ইয়াসমিন লিটা।

রোববার (২১ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে মামলাটি দায়ের করার পর সেটি আমলে নিয়ে আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন জামালপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোলায়মান কবির।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে একাত্তর টেলিভিশনের টকশোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে উদ্দেশ করে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের এক মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে।

সংশ্লিষ্ট খবর:ব্যারিস্টার মঈনুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

সংশ্লিষ্ট খবর: মাসুদা ভাট্টি ভীষণরকম চরিত্রহীন: তসলিমা নাসরিন

এ ঘটনায় ১৮ অক্টোবর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেয়ার হুশিয়ারি দিয়ে নারী সাংবাদিকরা সংবাদ সম্মেলন করেন। তারা ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে অপরাধ স্বীকারপূর্বক নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়া ও ভবিষ্যতে এ রকম ব্যক্তি আক্রমণ থেকে বিরত থাকার দাবি জানান।

তবে এ বিষয়ে ব্যারিস্টার মঈনুল বলেছেন, ওই মন্তব্যের জন্য তিনি টেলিফোনে মাসুদা ভাট্টির কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু তার পরও ‘মহলবিশেষ’ তার বিরুদ্ধে ‘অশালীন ভাষায়’ বক্তব্য দেওয়ায় বিষয়টি ব্যাখ্যা করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করছেন। তিনি বলেন, ''মাসুদা ভাট্টি আমার রাজনৈতিক সত্তা ও সততা নিয়ে দারুণ আপত্তিকর ও অবমাননাকর বক্তব্য রেখেছেন। তাই আমিও তার সাংবাদিকতার নিরপেক্ষ চরিত্র নিয়ে মন্তব্য করেছি। তাকে আমি ব্যক্তিগতভাবে জানি না, তাই তার ব্যক্তিগত চরিত্র সম্পর্কে কিছু বলার প্রশ্নই ওঠে না।''

এদিকে নারী সাংবাদিককে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ‘বয়কট’ করার জন্য নারীদের প্রতি আহ্বান জানান মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি। এছাড়া ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন দেশের ৫৫ জন বিশিষ্ট সাংবাদিক।

মন্তব্য