২১ এপ্রিল ,রবিবার, ২০১৯

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> অপরাধ

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

১৩ এপ্রিল ,শনিবার, ২০১৯ ১৬:০২:০৯

‘দুই ছাত্র ও দুই ছাত্রী রাফির গায়ে আগুন দেয়’


‘দুই ছাত্র ও দুই ছাত্রী রাফির গায়ে আগুন দেয়’

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি এবং অভিযুক্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা ও তার ছাত্ররা


মাদ্রাসা অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার নির্দেশে নুসরাত জাহান রাফি হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে দাবি করেছে মামলার তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। আজ শনিবার বেলা একটার দিকে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান পিবিআইয়ের প্রধান বনজ কুমার মজুমদার।

রাজধানীর ধানমন্ডির পিবিআইয়ের প্রধান কার্যালয়ে এ প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয়, অধ্যক্ষের নির্দেশে হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটেছে। ৪ এপ্রিল সিরাজ উদ দৌলার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন করেন আসামি নুর উদ্দীনসহ কয়েকজন। পরে তাঁরা সিরাজ উদ দৌলার সঙ্গে দেখা করেন।

নুসরাতকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে করা মামলায় ২৭ মার্চ অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তাঁর মুক্তির দাবিতে ‘সিরাজ উদ দৌলা সাহেবের মুক্তি পরিষদ’ নামে কমিটি গঠন করা হয়।

২০ সদস্যের এ কমিটির আহ্বায়ক নুর উদ্দিন এবং যুগ্ম আহ্বায়ক হন শাহাদাত হোসেন। তাঁদের নেতৃত্বে অধ্যক্ষের মুক্তির দাবিতে গত ২৮ ও ৩০ মার্চ উপজেলা সদরে দুই দফা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়। তাঁরাই নুসরাতের সমর্থকদের হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

পিবিআইয়ের ভাষ্য, নুর উদ্দিনসহ কয়েকজন সিরাজ উদ দৌলার সঙ্গে দেখা করে নির্দেশ নিয়ে আসেন। ৫ এপ্রিল সকাল নয়টা থেকে সাড়ে নয়টার দিকে মাদ্রাসার কাছে থাকা হোস্টেলের পশ্চিম অংশে তাঁর মূল পরিকল্পনা করেন। সেখানেই নুসরাতকে পুড়িয়ে মারার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। অধ্যক্ষকে আটক করায় আলেম সমাজকে হেয় করা হয়েছে বলে মনে করেন তাঁরা। এই হেয় করা ও প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখানের ক্ষোভ থেকে নুসরাতকে পুড়িয়ে মারার সিদ্ধান্ত নেন।

‌‘এ ঘটনায় দুজন মাদ্রাসাছাত্রী ও তিনজন ছাত্র জড়িত। এঁদের একজন মাদ্রাসাসংলগ্ন সাইক্লোন সেন্টারে তিনটি বোরকা ও কেরোসিন শাহদাতকে দিয়েছেন। পরে দুজন ছাত্র ও দুজন ছাত্রী বোরকা পরে সাইক্লোন সেন্টারের টয়লেটে লুকিয়ে ছিলেন। তাঁরাই নুসরাতের শরীরে আগুন লাগিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ এপ্রিল শনিবার সকালে আলিম পরীক্ষা দিতে গিয়ে সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার যায় নুসরাত জাহান রাফি। মাদ্রাসার এক ছাত্রী তার বান্ধবী নিশাতকে ছাদের উপর কে বা কারা মারধর করেছে এমন সংবাদ পেয়ে তিনি ওই ভবনের তৃতীয় তলায় যান। সেখানে মুখোশ পরা ৪/৫জন ছাত্রী তাকে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে মামলা তুলে নিতে চাপ দেয়। সে অস্বীকৃতি জানালে তারা গায়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় নুসরাতকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। পরে বুধবার রাত সাড়ে নয়টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নুসরাত।

এর আগে ২৭ মার্চ ওই ছাত্রীকে নিজ কক্ষে নিয়ে শ্লীলতাহানির অভিযোগে এনে ওই ছাত্রীর মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে আটক করে। সে ঘটনার পর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

চাঞ্চল্যকর ওই ঘটনায় অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা ও পৌর কাউন্সিলর মুকছুদ আলমসহ আটজনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন নুসরাত জাহান রাফির বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান।

গায়ে দাহ্য পদার্থ ছিটিয়ে আগুন দেওয়ার ঘটনায় রোববার নুসরাত চিকিৎসকদের কাছে শেষ জবানবন্দি দেন।

এতে বলেছিলেন, নেকাব, বোরকা ও হাতমোজা পরা চারজন তাঁর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন। ওই চারজনের একজনের নাম শম্পা।

আরও পড়ুন: ‘তোরা জানিস না, উনি আমার কোন জাগায় হাত দিয়েছে?’

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)


বিকাশের নাম ব্যবহার করে প্রতারণা, আটক ৫
রিয়াদে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা
শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলা, নিহত বেড়ে ২০৭
‘মাহফুজউল্লাহ বেঁচে আছেন’
‘মাহফুজউল্লাহ কখনোই মাথানত করেননি’
‘শ্রীলঙ্কায় দুই বাংলাদেশি নিখোঁজ’
চকলেটের লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ
রাঙামাটির সাজেকে ট্রাক উল্টে শ্রমিক নিহত
বিমানবন্দরে সন্তান প্রসব!
শ্রীলঙ্কায় গির্জা ও হোটেলে বিস্ফোরণ, নিহত ৪৯
রুশ সীমান্তের কাছে ফ্রান্স-ব্রিটেনের ট্যাংক-হেলিকপ্টার
নুসরাত হত্যা: ঝিনাইদহে মানববন্ধন
অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি নারী খুন
নদীর গভীরে ৮০ কলসি মদ!
নুসরাতকে চেপে ধরেন মনি, গায়ে কেরোসিন ঢালেন জাবেদ
বাবা-ছেলের পা কাটল স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা!
নুসরাত হত্যা: আরও দুজন গ্রেপ্তার
স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর চাঁদা দাবি
ফুলবাড়িয়ায় ছেলের হাতে মাসহ তিন খুন
অস্ট্রেলিয়ায় বর্ণিল বৈশাখী উৎসব
বিকাশের নাম ব্যবহার করে প্রতারণা, আটক ৫
রিয়াদে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা
শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলা, নিহত বেড়ে ২০৭
‘মাহফুজউল্লাহ বেঁচে আছেন’
‘মাহফুজউল্লাহ কখনোই মাথানত করেননি’
‘শ্রীলঙ্কায় দুই বাংলাদেশি নিখোঁজ’
চকলেটের লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ
রাঙামাটির সাজেকে ট্রাক উল্টে শ্রমিক নিহত
বিমানবন্দরে সন্তান প্রসব!
শ্রীলঙ্কায় গির্জা ও হোটেলে বিস্ফোরণ, নিহত ৪৯
রুশ সীমান্তের কাছে ফ্রান্স-ব্রিটেনের ট্যাংক-হেলিকপ্টার
নুসরাত হত্যা: ঝিনাইদহে মানববন্ধন
অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি নারী খুন
নদীর গভীরে ৮০ কলসি মদ!
নুসরাতকে চেপে ধরেন মনি, গায়ে কেরোসিন ঢালেন জাবেদ
বাবা-ছেলের পা কাটল স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা!
নুসরাত হত্যা: আরও দুজন গ্রেপ্তার
স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর চাঁদা দাবি
ফুলবাড়িয়ায় ছেলের হাতে মাসহ তিন খুন
অস্ট্রেলিয়ায় বর্ণিল বৈশাখী উৎসব
কোরআন শরীফকে অবমাননা করায় সেফুদার ফাঁসি দাবি
‘পুরো পাকিস্তান’ এখন ভারতীয় ক্ষেপণাস্ত্রের আওতায়
সিরাজের কক্ষে ঢোকার নিয়ম ছিল একজন শিক্ষার্থীর
নাইটক্লাব থেকে ১২ নেপালি তরুণী উদ্ধার
গরু ধর্ষণকালে হাতেনাতে ধরা যুবক!
নুসরাত হত্যার পুরো ঘটনার বিবরণ দিল মণি
নগ্ন অবস্থায় বাথরুম থেকে বের করে আমাকে নির্যাতন করেছে: মিলা
নুসরাতকে পুড়িয়ে পরীক্ষা দেয় ওই দুই ছাত্রী
কোনাবাড়িতে কলেজছাত্রীকে ছুরি আঘাতে হত্যা
শুক্রবার বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন শ্রাবন্তী!
সাবেক রেলমন্ত্রীর নববর্ষ উদযাপনের ছবি ভাইরাল
ফেরদৌস-মমতাকে নিয়ে যা বললেন মোদী
সৌদিতে দুই ভারতীয়র শিরশ্ছেদ
পৃথিবীর কক্ষপথে মার্কিন কৃত্রিম উপগ্রহ!
আবারও সমকামী বিয়ে করলেন দুই ক্রিকেটার
অজয়ের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তনুশ্রী
‘রাফি হত্যায় মোটা অঙ্কের টাকা লেনদেন হয়’
বাবা-ছেলের পা কাটল স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা!
সেফাত উল্লাহকে ধরিয়ে দিতে পারলে দুই লাখ টাকা পুরস্কার
জজ পরিচয়ে বিয়ে করতে গিয়ে ধরা যুবক

সব খবর