থার্টি ফার্স্ট নাইটে কোনো পার্টি করা যাবে না: ডিএমপি কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক

থার্টি ফার্স্ট নাইটে কোনো পার্টি করা যাবে না: ডিএমপি কমিশনার

ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ‘বড়দিন’ বিশ্বের অন্য দেশগুলোর মতো বাংলাদেশেও সীমিত আকারে উদযাপিত হবে। আর ইংরেজি নববর্ষ ‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’ এ উন্মুক্ত স্থানে লোক সমাগম বা কোনো পার্টি করতে দেওয়া হবে না।

বড়দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইট ঘিরে রাজধানীজুড়ে পুলিশের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) হেডকোয়ার্টার্সে ‘বড়দিন’ ও ‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’ ২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত এক সমন্বয় সভায় একথা বলেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।  

সমন্বয় সভায় ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি, সরকারের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন সেবাদানকারী সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে প্রচুরসংখ্যক লোক আক্রান্ত হয়েছে। বর্তমানে লন্ডনে গ্রেড-৪ লকডাউন চলছে। এ কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বড়দিনের অনুষ্ঠান খুব সীমিত আকারে হবে। তাই বাংলাদেশেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব অনুষ্ঠান সীমিত আকারে করা হবে।

‘বড়দিন উপলক্ষে চার্চে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেবে পুলিশ। পাশাপাশি খ্রিস্টান অধ্যুষিত এলাকা ও প্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত নজরদারি ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকবে। চার্চগুলোতে এলাকাভিত্তিক বিভিন্ন সময়ে একাধিক প্রার্থনা অনুষ্ঠানের আয়োজনের জন্য অনুরোধ। ’

থার্টি ফার্স্ট নাইটের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে সভায় ডিএমপি কমিশনার বলেন, রাজধানীর কোনো উন্মুক্ত স্থানে লোক সমাগম ও কাউকে কোনো ধরনের পার্টি করতে দেওয়া হবে না। হোটেলগুলোতে ডিজে পার্টির নামে কোনো স্পেস বা কক্ষ ভাড়া দেওয়া যাবে না। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত আকারে হোটেলগুলোতে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠান করতে পারবে। কিন্তু কোনোভাবেই ডিজে পার্টি কাউকে করতে দেওয়া হবে না।  

‘এসব অনুষ্ঠান কেন্দ্র করে হোটেলগুলোর সামনের রাস্তায় যেন অতিরিক্ত যানজটের সৃষ্টি না হয় সেদিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে হবে। এছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে থার্টি ফার্স্ট নাইটে কোনো প্রকার অনুষ্ঠান করা যাবে না। ’

তিনি আরও বলেন, থার্টি ফার্স্ট নাইটে সন্ধ্যা থেকে রাজধানীর বারগুলো বন্ধ থাকবে। সামাজিক দূরত্ব ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট খোলা রাখা যাবে। তবে যথারীতি রাত ৮টার পর সব ফাস্টফুড দোকানসহ মার্কেট বন্ধ থাকবে।

বড়দিন ও থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপন উপলক্ষে কিছু নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা হাতে নিয়েছে ডিএমপি। এর মধ্যে- প্রত্যেকটি চার্চে পোশাকে ও সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন থাকবে। প্রতিটি চার্চে আর্চওয়ে দিয়ে দর্শনার্থীকে ভেতরে ঢুকতে হবে। মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে ও ম্যানুয়ালি তল্লাশি করা হবে। অনুষ্ঠানস্থল ডগ স্কোয়াড দিয়ে সুইপিং করা হবে। নিরাপত্তায় থাকবে ফায়ার টেন্ডার ও অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা।


আরও পড়ুন: অপমনের উপযুক্ত জবাব দিয়েছেন হাফিজ: তথ্যমন্ত্রী


একই সঙ্গে চার্চ এলাকায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে। চার্চ এলাকায় কোনো ভাসমান দোকান বা হকার বসতে দেওয়া হবে না। কোনো প্রকার ব্যাগ, পোটলা, বাক্স, কার্টন ইত্যাদি নিয়ে চার্চে আসা যাবে না।

স্বাস্থবিধি নিশ্চিতের জন্য প্রতিটি অনুষ্ঠানস্থলের প্রবেশপথে সাবান পানি দিয়ে হাত ধোয়া এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা, থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে তাপমাত্রা পরিমাপের ব্যবস্থা, জীবাণুনাশক অটো স্প্রে মেশিন অথবা টানেল বসানোর ব্যবস্থা করতে হবে। চার্চের ফাদার ও দায়িত্বরত ব্যক্তিসহ সব ভক্ত ও দর্শনার্থীদের বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরতে হবে। সবক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে।  

এছাড়াও অসুস্থ, বয়স্ক ও শিশু দর্শনার্থীদের অনুষ্ঠানে আসতে নিরুৎসাহিত করেন ডিএমপি কমিশনার।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

শাহবাগ অবরোধ প্রত্যাহার, ১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচী

অনলাইন ডেস্ক

শাহবাগ অবরোধ প্রত্যাহার, ১ মার্চ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচী

কারাবন্দী অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করে শাহবাগ মোড় অবরোধ প্রত্যাহার করেছেন বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলোর নেতা-কর্মীরা।

দাবি আদায়ে আজ সন্ধ্যা ছয়টায় মশাল মিছিল করবেন তারা। এছাড়া আগামী সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচীও দিয়েছেন তারা।

লেখক মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত-বিচার, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার থাকা ব্যক্তিদের মুক্তি ও আইনটি বাতিলের দাবিতে আজ শুক্রবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে রাজধানীর শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলোর নেতা-কর্মীরা। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তাঁরা নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করে শাহবাগ মোড় ছেড়ে দেন।


বাইডেনের নির্দেশে সিরিয়ায় বিমান হামলা

বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

‘তুমি’ বলায় মারামারি, প্রাণ গেল একজনের

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


বাম সংগঠনগুলোর মোর্চা প্রগতিশীল ছাত্রজোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের (বাসদ) কেন্দ্রীয় সভাপতি আল কাদেরী প্রতিবাদী কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

লেখক মুশতাক আহমেদ (৫৩) গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মারা যান। তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে ছিলেন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক

লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া কাল

সভ্য ভাষায় সব অসভ্যতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানো কলামিস্ট, গবেষক, প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদের জন্য আগামীকাল শনিবার দোয়ার আয়োজন করেছে তার পরিবার।

মরহুমের ছেলে সৈয়দ নাসিফ মকসুদ জানিয়েছেন, ধানমন্ডির তাকওয়া মসজিদে শনিবার বাদ আছর এই দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে মরহুমের শুভানুধ্যায়ীদের উপস্থিত হয়ে দোয়ায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইন্তেকাল করেন গবেষক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ। জাতীয় প্রেসক্লাব ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার পর বুধবার তাকে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হয়।

news24bd.tv আহমেদ

 

আরও পড়ুন:


কারাগারে লেখক মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনায় টরন্টো সংস্কৃতিকর্মীদের প্রতিবাদ

কানাডা ইমিগ্রেশনের মনগড়া তথ্য দিয়ে প্রতারণা, সতর্কতার পরামর্শ

চিরযুবক শাহিদ, সাবেক প্রেমিকার শুভেচ্ছাবার্তা

বগুড়ায় বাস-ট্রাক-টেম্পুর ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ৪


 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কারাগারে মোশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে শাহবাগে বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

কারাগারে মোশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে শাহবাগে বিক্ষোভ

লেখক মুশতাক আহমেদের কারাগারের ভেতরে মৃত্যুর প্রতিবাদ ও ঘটনার দ্রুত বিচারের দাবিতে শাহবাগ বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ছাত্র-জনতার সমাবেশ করছে বামপন্থী ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা। যার ফলে শাহবাগ মোড় দিয়ে যান চলাচলে প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে।

এর আগে, বেলা ১১টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি শাহবাগ পার হয়ে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের সামনে দিয়ে ঘুরে আবারও শাহবাগে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।


বাইডেনের নির্দেশে সিরিয়ায় বিমান হামলা

বস্তিবাসীকে না জানিয়েই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

‘তুমি’ বলায় মারামারি, প্রাণ গেল একজনের

৭ সন্তান নিতে স্বেচ্ছায় দেড় লাখ ডলার জরিমানা গুনলেন চীনা দম্পতি


উল্লেখ্য, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার লেখক মুশতাক আহমেদ বৃহস্পতিবার রাতে মারা যান। তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে ছিলেন। এদিন সন্ধ্যার দিকে কারাগারের ভেতর তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে কারা হাসপাতালে নেওয়া হয়।

পরে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে মৃত ঘোষণা করেন। গত বছরের মে মাসে মুশতাকসহ আরও কয়েকজনকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লেখক মুশতাকের কারাগারে মৃত্যু : মর্গে লাশ হয়নি ময়নাতদন্ত

অনলাইন ডেস্ক

লেখক মুশতাকের কারাগারে মৃত্যু :  মর্গে লাশ হয়নি ময়নাতদন্ত

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে মারা যাওয়া বন্দি লেখক মুশতাক আহমেদ (৫৩) লাশের ময়নাতদন্ত হয়নি আজ শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত। তার লাশ গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে আছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে মারা যান। 

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, এ কারাগারে থাকা মুশতাক আহমেদ গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কারা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুশতাক আহমেদকে মৃত ঘোষণা করেন।

মুশতাক আহমেদ গত বছরের মে মাস থেকে কারাবন্দী ছিলেন। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থানার ছোট বালাপুর এলাকায়। লালমাটিয়ায় স্ত্রী ও বৃদ্ধ মা–বাবার সঙ্গে থাকতেন। তিনি মা–বাবার একমাত্র ছেলে। তিনি দেশে প্রথম বাণিজ্যিকভাবে কুমির চাষের উদ্যোক্তা।


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মোহাম্মদ শরীফ আজ সকাল ৯টার দিকে বলেন, ময়নাতদন্ত শুরু হয়নি। চিকিৎসকেরা এলে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করা হবে।

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. গিয়াস উদ্দিন বলেন, মুশতাক আহমেদের বিরুদ্ধে রমনা মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা ছিল। ২০২০ সালের আগস্ট মাস থেকে তিনি এই কারাগারে বন্দী ছিলেন। 

এদিকে কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বামপন্থি কয়েকটি ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র থেকে বের হওয়া মিছিলটি শাহবাগ ও পরীবাগ মোড় প্রদক্ষিণ করে। পরে রাত ১টার দিকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সমাবেশ করেন তারা।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

করোনার টিকা নেওয়ার পর ৩ জন করোনায় আক্রান্ত

অনলাইন ডেস্ক

করোনার টিকা নেওয়ার পর ৩ জন করোনায় আক্রান্ত

করোনার টিকা গ্রহণ করছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

দেশে করোনার টিকা নেওয়ার পর তিনজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। টিকা নেওয়ার ১২ দিন পর  দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন করোনা শনাক্ত হয়। ১৬ দিনের মাথায় করোনা শনাক্ত হয় মিটফোর্ড হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার সাজ্জাদ হোসেন।

এর আগে ১০ ফেব্রুয়ারি টিকা নেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের (ডিএফপি) মহাপরিচালক গোলাম কিবরিয়া।টিকা নেওয়ার ৬ দিন পর তিনি করোনায় আক্রান্ত হন।

তিনজনের  মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ ছিল বলে জানা গেছে।


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


 

এ ব্যাপারে করোনা মোকাবেলায় গঠিত সরকারের জাতীয় কারিগরি পরামর্শ কমিটির সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও ভাইরোলজি বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, যারা আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের শরীরে করোনাভাইরাস আগেই প্রবেশ করেছিল।দেহে ভাইরাসের যে ১৫ দিন সুপ্তিকাল, সেই সময় টিকা নিয়েছিলেন তারা।সে জন্য টিকারকার্যকারিতা শুরু হওয়ার আগেই ভাইরাসের কার্যকারিতা শুরু হয়েগেছে।ফলে তারা আক্রান্ত হয়েছেন।

এই বিশেষজ্ঞ নির্ভয়ে সবাইকে টিকা নেয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, সাধারণ মানুষের টিকা নিতে কোনো ভয় নেই।তবে টিকা নিলেই যে কেউ সুরক্ষিত হয়ে গেল, এই ভাবনাটা ভুল।

আগে যদি ভাইরাস ঢুকে যায়, পরে টিকা নেয়, তাহলে সে আক্রান্ত হবে।তাই টিকা দেওয়ার আগে ও পরে, সবসময়ই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে, বিশেষকরে মাস্ক পড়তে হবে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর