টিকা ব্যবস্থাপনা নিয়ে নৈরাজ্য চলছে: মির্জা ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক

টিকা ব্যবস্থাপনা নিয়ে নৈরাজ্য চলছে: মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, টিকা ব্যবস্থাপনায় নৈরাজ্য সৃষ্টি করে সরকার জনগণের জীবন বিপন্ন করছে। টিকা সংগ্রহ করে অবিলম্বে টিকা প্রদানের রোডম্যাপ ঘোষণা করতে হবে।

আজ বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) সকালে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, অপরিকল্পিত লকডাউন, অপরিকল্পিত টিকা ব্যবস্থাপনা- সবমিলিয়ে সরকার ব্যর্থ। অবিলম্বে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত। সরকার করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়েছে। 

সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ভয়াবহ ফ্যাসিস্ট সরকার আজকে আমাদের বুকের ওপর চেপে বসেছে। ১/১১ এর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ধারাবাহিকতা এই সরকার।

এদিন কোকোর ৫২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির পক্ষ থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা তার কবরে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান এবং তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করেন।

আরও পড়ুন


৩ দিনের জন্য ২ কোটি নিয়েছিলেন পামেলা অ্যান্ডারসন

আজ বিকেলে যেসব এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে

বরিশালে ১০০ করোনা রোগীর জন্য বিএনপির ওষুধ সামগ্রী প্রদান

পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে আবারও কঠোর ‘লকডাউন’: ওবায়দুল কাদের


আরাফাত রহমান কোকোর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে ক্রীড়া সংগঠন এবং ক্রিকেটের উন্নয়নের তার একনিষ্ঠ ভূমিকা কথা জানান তিনি। কোকোর উদ্যোগে বাংলাদেশে ক্রিকেটের নবযুগের সূচনা হয় বলেও জানান মির্জা ফখরুল।

এ সময় মির্জা ফখরুল ছাড়া আরও উপস্থিত ঢাকা মহানগর বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, আমিনুল ইসলাম, রফিকুল আলম মজনু, কেন্দ্রীয় নেতা ফজলুল হক মিলন, যুবদল সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার, শায়রুল কবির খানসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

সারা দেশের ৩৬৩ নেতাকে নিয়ে ফের সিরিজ বৈঠকে বিএনপি

অনলাইন ডেস্ক

সারা দেশের ৩৬৩ নেতাকে নিয়ে ফের সিরিজ বৈঠকে বিএনপি

মঙ্গলবার থেকে ফের তিন দিনব্যাপী সিরিজ বৈঠকে বসবে বিএনপির হাইকমান্ড। ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা চূড়ান্ত করতে দ্বিতীয় দফার এ বৈঠকে জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা সভাপতি মিলে মোট ৩৬৩ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

প্রথমদিন মঙ্গলবার ঢাকা ও ফরিদপুর বিভাগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা সভাপতি মিলে মোট ১২৬ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

দ্বিতীয়দিন বুধবার চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও রংপুর বিভাগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা সভাপতি মিলে ১২৯ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শেষদিন খুলনা, রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের নির্বাহী কমিটির সদস্য এবং জেলা সভাপতি মিলে ১০৮ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। 

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও দপ্তরের দায়িত্বে থাকা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স জানান, বৈঠকগুলো হবে বিভাগভিত্তিক। ইতোমধ্যে তাদের আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে প্রতিদিন বিকাল সাড়ে তিনটায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হবেন তারেক রহমান।

এসময় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির এ নেতা।

আরও পড়ুন:


পাঁচ বিভাগে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টির আশঙ্কা

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

অনলাইন ডেস্ক

এই হচ্ছে বিএনপি, আর সব দোষ আওয়ামী লীগের?

বঙ্গবন্ধুর সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশে জাতিয় সংসদ নির্বাচন হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

তিনি বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সময়ে আওয়ামী সরকারই তত্ত্বাবধায়ক সরকার। নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন হবে। জনগণ তাদের খুশিমত নির্বাচনে ভোট দিবেন। জনগণই সিদ্ধান্ত নিবেন কারা দেশ পরিচালনা করবেন।

আজ রোববার মন্ত্রণালয়ে তার অফিসকক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমের সাথে মতবিনিময়কালে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডা. মুরাদ হাসান আরও বলেন, নির্বাচনী প্রেসক্রিপশন বিএনপির কাছ থেকে শিখতে হবে না। বাংলার জনগণ বিএনপির প্রেসক্রিপশন গুনতে চায় না।

মির্জা ফখরুল হচ্ছেন খুনির অনুসারী সে কি আর নির্বাচনী ফর্মুলা দিবেন, মন্তব্য করেন মুরাদ।

আরও পড়ুন:


রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

বাগেরহাটে ৩ ঘণ্টা পর প্লাইউড ফ্যাক্টরির আগুন নিয়ন্ত্রণে


মিডিয়া বেজ রাজনৈতিক সংগঠন বিএনপি মন্তব্য করে তিনি বলেন, ভোটের দিন নাটক রচনায় পটু। আর পল্টনে বসে মিডিয়ার সামনে কান্নাকাটি, ভোট বর্জন, এজেন্ট খুঁজে পায় না। এজেন্টরা যায় সিলেট, কক্সবাজার, থাইল্যান্ড ও মালেশিয়া ঘুরতে। কেনা ঘুরতে যায় বুঝতে হবে। এই হচ্ছে বিএনপি। আর সব দোষ আওয়ামী লীগের, সবদোষ বঙ্গবন্ধুর কন্যার, এই ব্যবসা আর বাংলাদেশে হবে না। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে যাবে না। নির্বাচন কোন সরকারের অধীনে হয় না। নির্বাচন হয় নির্বাচন কমিশনের অধীনে। সব ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের হাতে চলে যায়। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সেই স্বপ্ন দেখে আর লাভ নাই। নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মিথ্যা স্বপ্ন দেখে কোনো লাভ হবে না।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

অনলাইন ডেস্ক

রাজপথে নামার আহ্বান মোশাররফ-মান্নার

নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আর নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, নির্বাচনে প্রযুক্তি অসচেতনমূলক ভোটারদের জন্য ইভি এম ব্যবস্থা একেবারেই অনুপযুক্ত।

আজ রোববার সকালে সাউথ এশিয়া ইয়ুথ ফর পিস অ্যান্ড প্রসপারিটি সোসাইটির উদ্যোগে ‘নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন এবং বাংলাদেশে গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক একটি ওয়েবিনার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে এসব কথা বলেন বক্তারা।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. সাজ্জাদুল হকের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক, সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ড. আ ন ম এহছানুল হক মিলন, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইয়াহ্ইয়া আখতার, অধ্যাপক সাইফুদ্দীন আহমেদ প্রমুখ।

ড. খন্দকার মোশাররফ বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে দেশের মানুষের ভোটের অধিকার ও মর্যাদা ফিরিয়ে আনতে নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকার ফিরিয়ে আনতে হবে। এজন্য জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে যুগপৎ আন্দোলনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সরকার পতনে সকলকে রাজপথে নামতে হবে।  

মান্না বলেন, বাংলাদেশের জনসাধারণ যেভাবে শক্তিশালী, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করতে চান তা কখনোই বর্তমান আওয়ামী সরকারের দ্বারা পূরণ হবে না। এই বিষয়ের সমাধান রাজপথের আন্দোলনের মাধ্যমেই রাজনৈতিকভাবেই সমাধান করতে হবে।

নির্বাচনে প্রযুক্তি অসচেতনমূলক ভোটারদের জন্য ইভি এম ব্যবস্থা একেবারেই অনুপযুক্ত’ বলেন মান্না।

সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন কমিশন ঠুটো জগন্নাথের মত আচরণ করছে। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া নির্বাচনগুলোয় হওয়া ভোট জালিয়াতি ঠেকাতে নির্বাচন কমিশন পুরোপুরি ব্যর্থ ভূমিকা পালন করেছে। এছাড়াও নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য করা সার্চ কমিটি একটি প্রহসন মাত্র, যার মাধ্যমে মূলত সরকার দলের পছন্দের লোকজন কমিটিতে জায়গা পান। 

এহছানুল হক মিলন বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং কমিশনারবৃন্দ কারা হবেন তা সাংবিধানিকভাবে সংসদে পাশ হতে হবে। সাংবিধানিকভাবে নির্বাচন কমিশনের জন্য যে আইন আছে, বর্তমান দলীয় সরকারের আজ্ঞাবহ এই নির্বাচন কমিশন সে আইন যথাযথভাবে প্রয়োগ এবং পালন করতে পারছে না। বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভ্যাকসিন হলো নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকার ও নির্বাচন কমিশন।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

জাপার পদ পেয়ে উচ্ছ্বসিত শাফিন, বললেন অনেক বড় দায়িত্ব পেয়েছি

অনলাইন ডেস্ক

জাপার পদ পেয়ে উচ্ছ্বসিত শাফিন, বললেন অনেক বড় দায়িত্ব পেয়েছি

ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদকে জাতীয় পার্টির (জাপা) কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আজ দুপুরে শাফিন আহমেদ দেশের শীর্ষ স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, 'এটা আমার জন্য নতুন একটা চ্যালেঞ্জ। অনেক বড় দায়িত্ব। ভালো লাগছে খুবই। আমি ২০১৯ সাল থেকে এই দলের হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, 'জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করায় আনন্দিত হয়েছি। জাপার চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জি এম) কাদের দলের নবম জাতীয় সম্মেলনের প্রদত্ত ক্ষমতা ও গঠনতন্ত্রের ধারা ১২-এর তিন উপধারা মোতাবেক আমাকে এই পদে নিয়োগ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন:


২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্য ৬০ হাজার মেগাওয়াট

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল

দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিং মামলায় ডিআইজি পার্থ গোপাল কারাগারে

নতুন লুকে পর্দায় ফিরছেন শুভ!


ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ নন্দিত ব্যান্ড 'মাইলস'-এর গায়ক এবং সুরকার হিসেবে জনপ্রিয়। দলটির হয়ে বেজ গিটারও বাজান তিনি। সংগীতচর্চার পাশাপাশি একজন রাজনীতিবিদও শাফিন আহমেদ। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

তৃণমূল নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ: তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

তৃণমূল নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ: তথ্যমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, তৃণমূল নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ। তাদের কারণেই দল আজ এতদূর এসেছে।

আজ দুপুরে গাইবান্ধা সার্কিট হাউজে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন সময়ে দলের দুর্দিনে, বিশেষ করে ২০০৭ সালে যখন আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে গ্রেপ্তার করা হয় তখন আমাদের অনেক নেতা দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন, অনেক নেতা ভিন্ন সুরে কথা বলেছেন, অনেক নেতা ক্ষমতাসীনদের সঙ্গে আপস করার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তৃণমূলের নেতাকর্মীরা সব সময় ঐক্যবদ্ধ ও অবিচল ছিলেন। তাদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতেই আমাদের নেত্রী কারাগার থেকে মুক্ত হয়েছিলেন। আজ তাদের কারণেই আওয়ামী লীগ সফলতার সঙ্গে এতটা পথ পাড়ি দিতে পেরেছে। 

আরও পড়ুন:


২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্য ৬০ হাজার মেগাওয়াট

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল

দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিং মামলায় ডিআইজি পার্থ গোপাল কারাগারে

নতুন লুকে পর্দায় ফিরছেন শুভ!


এসময় তিনি প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা রেখে অতীতের মতো আগামী দিনেও দলকে আরো এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা গিনি, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উত্তরাঞ্চল সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক, গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন, পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর