গোপালগঞ্জে ভয়াবহ মধুমতি নদী, ২৫টি দোকানসহ নদীগর্ভে শহর রক্ষা বাঁধ
গোপালগঞ্জে ভয়াবহ মধুমতি নদী, ২৫টি দোকানসহ নদীগর্ভে শহর রক্ষা বাঁধ

গোপালগঞ্জে ভয়াবহ মধুমতি নদী, ২৫টি দোকানসহ নদীগর্ভে শহর রক্ষা বাঁধ

Other

গোপালগঞ্জের কশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়া বাজারে মধুমতি নদীতে দেখা দিয়েছে ভয়াবহ নদী ভাঙন। ইতিমধ্যে মধুমতি নদী রক্ষা বাঁধের ৫০০ হাত এলাকা ও অন্তত ২৫টি ব্যবস্যা প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। নিরাপত্তা ও ভাঙ্গনরোধে কাজ করছে স্থানীয় উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসন এবং পানি উন্নয়ন বোর্ড।

ব্রিটিশ আমল থেকে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়ায় গড়ে ওঠে বাজার।

নদী বন্দর হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে বাজারটি। কিন্তু হঠাৎ করেই ভাটিয়াপাড়া বাজারের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মধুমতি নদীতে দেখা দেয় তীব্র নদী ভাঙ্গান। চোখের পলকেই বাজারের ২৫টি দোকানপাট ও জায়গা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। ভাঙ্গন আতংকে অন্য যেসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেসব প্রতিষ্ঠা সড়িয়ে নিচ্ছে ব্যবসায়ীরা। সবাই ব্যস্ত নিজেদের দোকানের মালামলা রক্ষা করতে। নদী গর্ভে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিলীন হয়ে যাওয়ায় নি:স্ব হয়ে পড়েছেন তারা।

news24bd.tv

এদিকে, জান ও মালামাল রক্ষায় নদী ভাঙ্গন এলাকায় কাজ করছে স্থানীয় উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসন। জনসাধারণকে নিরাপদ দূরত্বে সরে যেতে মাইকিং করা হচ্ছে। খবর পেয়ে ভাঙনকবলিত এলাকায় জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙ্গনরোধে চেষ্ঠা করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। দ্রুত ভাঙ্গন এলাকায় স্থায়ী সমাধানের দাবী স্থানীয়দের।

news24bd.tv

জনগণের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে কাজ করা হচ্ছে বলে জানান কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মাসুদ রায়হান।

আরও পড়ুন


শুক্রবার করোনায় ব্রিটেনে মৃত্যু ১২৭, শনাক্ত ৩৬ হাজার ৬০

আকর্ষণীয় বেতনে বিবিসি বাংলায় চাকরির সুযোগ

শনিবার রাজধানীর যে সব মার্কেট ও দর্শনীয় স্থান বন্ধ

রাজধানীতে রাস্তা পার হওয়ার সময় গাড়ি চাপায় দুইজনের মৃত্যু


আর কাশিয়ানী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান খান বলছেন, হঠাৎ করেই নদী ভাঙনে বিপদে পড়েছে স্থানীয়রা। তাদের সব ধরণের সহযোগীতা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

হঠাৎ এমন ভয়াবহ নদী ভাঙনের বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানোর পাশাপশি কাজ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন উপজেল নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রথীন্দ্র নাথ রায়।

জান-মাল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রক্ষার্থে ভাঙ্গনকবলিত এলাকায় স্থায়ী সমাধানের দাবী এলাকাবাসীর।

news24bd.tv এসএম

;