পশ্চিমবঙ্গে মমতার দলের কর্মীসহ তিন জনকে খুন
পশ্চিমবঙ্গে মমতার দলের কর্মীসহ তিন জনকে খুন

সংগৃহীত ছবি

পশ্চিমবঙ্গে মমতার দলের কর্মীসহ তিন জনকে খুন

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূলের এক কর্মীসহ তিনজনকে খুনের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং এলাকা। বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গের ক্যানিং এলাকায় গুলি করে ও ধারালো অস্ত্রের কোপে নিহত হয়েছেন ৩ জন। এদের মধ্যে একজন শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য।

 

নিহতরা হলেন- স্বপন মাঝি (৩৮), ভূতনাথ প্রমানিক (৩৩) ও ঝন্টু হালদার (৩৩)। নিহতরা কলকাতা সংলগ্ন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ধর্মতলা জেলা পাড়া এলাকায় বাসিন্দা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের সদস্য স্বপন মাঝিসহ ভূতনাথ প্রামানিক ও ঝন্টু হালদার একটি মোটর বাইক করে ধর্মতলা থেকে হেড়োভাঙ্গা আসছিল আগামী ২১ জুলাই শহীদ দিবস উপলক্ষে একটি পথসভা করার জন্য। সেই সময় বেশ কয়েকজন দুর্বৃত্ত তাদের লক্ষ করে গুলি করলে মোটরবাইক থেকে ৩ জন পড়ে যায়। এর পর তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। পুলিশ ৩ জনকে উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা ৩ জনকেই মৃত বলে ঘোষণা করে। পুলিশ ৩টি মরদেহ ময়নাতন্ত্রের জন্য পাঠিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানানো হয়, দুর্বৃত্তদের আক্রমণে তিন জনের মৃত্যু হয়ছে। মরদেহ তিনটি উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্বৃত্তদের খোঁজে অভিযান চালানো হচ্ছে।

ঘটনার পরই ক্যানিং পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক পরেশ রাম জানিয়েছেন, 'বিজেপির লোকেরাই এই খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে। স্বপন আমাকে জানিয়েছিল ও খুন হয়ে যেতে পারে যে কোনো দিন। বিজেপির লোকেরা ওকে প্রাণে মারার হুমকি দিচ্ছিল বলে ও আমাকে জানিয়েছিল। ' 

এই বিষয়ে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব থেকে জানানো হয়, তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জন্য খুন হয়েছে তারা। খুনের পেছনে বিজেপির কোনো হাত নেই।

news24bd.tv/কামরুল