নতুন জুতা দিয়ে পেটালে অপমান কম হবে: মির্জা কাদের

অনলাইন ডেস্ক

নতুন জুতা দিয়ে পেটালে অপমান কম হবে: মির্জা কাদের

নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রে নারীদের পুরান জুতা পরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার মেয়র প্রার্থী  আবদুল কাদের মির্জা। যারা নির্বাচনে ভোট চুরি করতে চায় বা অনিয়ম করতে চায়, তাদেরকে পেটানোর জন্য পুরান জুতা পায়ে দিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, নারীরা জুতা পুরোনোটা নিয়ে যাবেন। নতুন জুতা দিয়ে পেটালে অপমান কম হবে। যত বড় নেতাই হোক, ভোটকেন্দ্রে রাস্তায় বাধা দিলে ছাড় দেবেন না।এছাড়াও দলীয় নেতা-কর্মীদের কাছে লাঠি তৈরি করছেন কি না জানতে চান তিনি।

বলেন, ‘ভোট চুরি করার জন্য, ভোটে অনিয়ম করার জন্য কেউ এলে লাঠি দিয়ে পায়ের তলায় পিটাবেন।’

প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে ‘রাত্রিযাপনকালে যৌন উত্তেজক ট্যাবলেটসহ’ ধরা কৃষকলীগ নেতা

আজ বুধবার সকালে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত কর্মী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

‘সত্যবচনে’ এবার দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ভাই আবদুল কাদের মির্জা।

আবদুল কাদের মির্জা বলেন, ‘আমি নির্বাচনের পর জননেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করব। যদি করোনার কারণে দেখা করতে না পারি, তাহলে ঢাকা প্রেসক্লাবে গিয়ে বলব, আমি আপনাদের পরিবর্তন চাই না। আমি পরিবর্তন চাই অপরাজনীতির। চাকরি-বাকরি থেকে, টেন্ডারবাজি থেকে টাকা নেওয়া বন্ধ করতে হবে।’

তাকে হারানোর চক্রান্ত হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা কাদের।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কবরীর মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক

অনলাইন ডেস্ক

কবরীর মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক

কিংবদন্তী অভিনেত্রী ও সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ এক শোকবার্তায় মন্ত্রী প্রয়াত সারাহ বেগম কবরীর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

news24bd.tv/আলী

 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ওবায়দুল কাদেরের কারণেই আমার একটা ভাই ফাঁস নিয়ে মারা গেছে : কাদের মির্জা

অনলাইন ডেস্ক

ওবায়দুল কাদেরের কারণেই আমার একটা ভাই ফাঁস নিয়ে মারা গেছে : কাদের মির্জা

এবার বড় ভাই ওবায়দুল কাদেরকে তার নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের মাটিতে আসতে দিবেন না জানিয়ে আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, বড় ভাইয়ের কারণেই তার একটা ভাই ফাঁস নিয়ে মারা গেছে বলে অভিযোগ করেছেন ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা ।

আজ শুক্রবার বিকেলে ফেসবুক লাইভে দেওয়া বক্তৃতায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়র কাদের মির্জা এসব কথা বলেন।

বড় ভাই ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ করে কাদের মির্জা প্রায় ১৫ মিনিটের ফেসবুক লাইভ বক্তৃতায় আরও বলেন, ‘তুমি জেলে দেবে, হত্যা করবে? তোমাকে আমরা ভয় করি না। তোমার খাইও না, পরিও না। তোমার কারণে আমার একটা ভাই ফাঁস নিয়ে মারা গেছে। আজ তোমার স্ত্রী হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে। তোমার শ্বশুরপক্ষের লোকজন হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে।

এর আগে কাদের মির্জা  কাদের বিকালে এক ফেসবুক লাইভে বলেন, আমার বিরুদ্ধে পুলিশ ও প্রশাসনকে লেলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এগুলো কিসের ইঙ্গিত প্রশ্ন করে মির্জা কাদের বলেন,আপনি যতই ষড়যন্ত্র করেন ওবায়দুল কাদের সাহেব, আমার মুখ বন্ধ করতে পারবেন না। গ্রেপ্তার করে গুলি করে মেরে ফেলবেন? 

ওবায়দুল কাদেরের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে মির্জা কাদের বলেন, এখানে হামলার শিকার হয়ে আমার ছেলেরা ঢাকায় হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। ওবায়দুল কাদের সাহেব কোনো খোঁজখবর নেননি। 

কাদের মির্জা অভিযোগ করেন, ওবায়দুল কাদের প্রশাসনের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করে তার স্ত্রীকে বাঁচানোর জন্য ব্যস্ত। তার দুর্নীতিবাজ স্ত্রী বাঁচতে পারবেন না। কোনো সুযোগ নেই। আজকে গরিব কর্মীরা দুই বেলা খেতে পারেন না। তাদের জেলে যেতে হয়। ওসি তাদের এখানে এনে মারধর করেন। একরাম-নিজামের সন্ত্রাসীরা ও ইশারাতুন্নেসা কাদেরের সন্ত্রাসীরা আজকে সব করছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতারের দাবি ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতারের দাবি ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির

হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের অবিলম্বে নেতাদের গ্রেফতার দাবি জানিয়েছে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় আয়োজিত ‘জামায়াত-হেফাজত চক্রের বাংলাদেশ বিরোধী তৎপরতা: সরকার ও নাগরিক সমাজের করণীয়’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নেতার এমন দাবি জানান। 

তারা বলেন, হেফাজতের শীর্ষ নেতারা দেশকে গৃহযুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, যা রাষ্ট্রদ্রোহিতা ও সন্ত্রাসী অপরাধের শামিল।

প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত থেকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক  এ ওয়েবিনারে বলেন, জামায়াত ইসলাম ধর্মকে অপব্যাখ্যা করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের জন্য ইসলামকে ব্যবহার করে। এটা জাতির কাছে স্পষ্ট। হেফাজতে ইসলাম একই ধারায় ইসলামকে ব্যবহার করতে চাচ্ছে, এ বিষয়ে মানুষের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব এবং ভুল ধারণা ছিল। গত কিছুদিনের ঘটনায় তাদের উদ্দেশ্য খুবই পরিষ্কার হয়ে যায়।

সভাপতির বক্তব্যে শাহরিয়ার কবির বলেন, প্রশাসন মাঠপর্যায়ের হেফাজত কর্মীদের গ্রেপ্তার করলেও গডফাদারদের এখন পর্যন্ত কেন গ্রেফতার করছে না এটা আমাদের বোধগম্য নয়। ২০১৩ সাল থেকে আমরা ক্রমাগত বলছি জামায়াত ও হেফাজতকে পৃথক দল কিংবা পরস্পরবিরোধী মনে করার কোনো কারণ নেই। হেফাজতের ১৩ দফা জামায়াতেরই পুরনো দাবি। তাই জামায়াতে ইসলামীর পাশাপাশি হেফাজতে ইসলামের রাজনীতি অবিলম্বে নিষিদ্ধকরণের দাবি পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি। 

ওয়েবমিনারে সভাপতিত্ব করেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি লেখক ও সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির। আলোচক হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সভাপতি হাসানুল হক ইনু, কথাশিল্পী সেলিনা হোসেন, কথাশিল্পী অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল, সমাজকর্মী রাশেক রহমান, ব্লগার অ্যান্ড অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নেটওয়ার্কের সভাপতি ড. কানিজ আকলিমা সুলতানা, ওয়ান বাংলাদেশের সভাপতি প্রফেসর রাশেদুল হাসান, টুয়েন্টি ফার্স্ট সেঞ্চুরি ফোরাম ফর সেক্যুলার হিউম্যানিজম তুরস্ক শাখার সাধারণ সম্পাদক শাকিল রেজা ইফতি, গৌরব ৭১-এর সাধারণ সম্পাদক এম শাহীন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, অপরাজেয় বাংলার সদস্য সচিব এইচ রহমান মিলু, নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ধর্মকে ব্যবহার করে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করতে চায় হেফাজত : আ ক ম মোজাম্মেল

অনলাইন ডেস্ক

ধর্মকে ব্যবহার করে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করতে চায় হেফাজত : আ ক ম মোজাম্মেল

ধর্মকে ব্যবহার করে জামায়াতের মতো হেফাজতও রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম মোজাম্মেল হক।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিকেলে ‘জামায়াত-হেফাজত চক্রের বাংলাদেশ বিরোধী তৎপরতা: সরকার ও নাগরিক সমাজের করণীয়’ শীর্ষক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি আয়োজিত এ ওয়েবিনারে মন্ত্রী বলেন, জামায়াত ইসলাম ধর্মকে অপব্যাখ্যা করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের জন্য ইসলামকে ব্যবহার করে। এটা জাতির কাছে স্পষ্ট। হেফাজতে ইসলাম একই ধারায় ইসলামকে ব্যবহার করতে চাচ্ছে, এ বিষয়ে মানুষের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব এবং ভুল ধারণা ছিল। গত কিছুদিনের ঘটনায় তাদের উদ্দেশ্য খুবই পরিষ্কার হয়ে যায়।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, হেফাজতে ইসলাম জামায়াতের মতো একই ধারায় ইসলাম ধর্মকে ব্যবহার করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করতে চায়, তা সুবর্ণজয়ন্তীতে হেফাজতের তাণ্ডব ও কর্মকাণ্ডে অত্যন্ত পরিষ্কার। 

ওয়েবমিনারে সভাপতিত্ব করেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি লেখক ও সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির। আলোচক হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সভাপতি হাসানুল হক ইনু, কথাশিল্পী সেলিনা হোসেন, কথাশিল্পী অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল, সমাজকর্মী রাশেক রহমান, ব্লগার অ্যান্ড অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নেটওয়ার্কের সভাপতি ড. কানিজ আকলিমা সুলতানা, ওয়ান বাংলাদেশের সভাপতি প্রফেসর রাশেদুল হাসান, টুয়েন্টি ফার্স্ট সেঞ্চুরি ফোরাম ফর সেক্যুলার হিউম্যানিজম তুরস্ক শাখার সাধারণ সম্পাদক শাকিল রেজা ইফতি, গৌরব ৭১-এর সাধারণ সম্পাদক এম শাহীন, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, অপরাজেয় বাংলার সদস্য সচিব এইচ রহমান মিলু, নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মুসলমানদের উচিত আওয়ামী লীগ ত্যাগ করা : ভিপি নূর

অনলাইন ডেস্ক

মুসলমানদের উচিত আওয়ামী লীগ ত্যাগ করা : ভিপি নূর

মুসলমানদের আওয়ামী লীগ ত্যাগ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)'র সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর।

গত ১৪ এপ্রিল নিজের ফেসবুক পেজে লাইভে এসে এ মন্তব্য করেন ডাকসু'র সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর। 

ভিপি নুরুল হক নূর বলেন, বর্তমানে এই বিনা ভোটের সরকার যেভাবে ভিন্নমতের উপর দমন-পীড়ন চালিয়ে ক্ষমতায় আছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে মোদি বিরোধী আন্দোলনে মানুষ হত্যা করেছে, পবিত্র রমজান মাসে অন্যায়ভাবে মানুষকে গ্রেফতার করছে, আলেম-ওলামা ও ইসলাম নিয়ে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে তাতে কোন প্রকৃত মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না। আওয়ামী লীগকে সমর্থন করতে পারে না। 

ফেসবুক লাইভে নূর আরও বলেন, আওয়ামীলীগ মুখে অসাম্প্রদায়িকতার কথা বললেও সুনামগঞ্জের শাল্লার মতো অসংখ্য সাম্প্রদায়িক ঘটনা ঘটাচ্ছে। স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি দাবি করে জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে, দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী কাজ করেছে।

কাজেই কোন বিবেক সম্পন্ন মানুষ এই বিনা ভোটের সরকারকে সমর্থন করতে পারে না।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর