প্রতিবাদকারীদের ওপর ফের গুলি মিয়ানমারে
Breaking News

প্রতিবাদকারীদের ওপর ফের গুলি মিয়ানমারে

Other

পুলিশের সহিংসতায় হতাহতের ঘটনার পর, আরো কঠোর অবস্থান নিয়েছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। বিদেশি মিশনে দায়িত্বরত শতাধিক কূটনীতিককে দেশে ফেরার নির্দেশ দিয়েছে সেনা কর্তৃপক্ষ।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে করা হচ্ছে ব্যাপক রদবদল। নতুন করে অভিযোগ আনা হয়েছে সু চির বিরুদ্ধে।

এদিকে দেশটির সেনাদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত নিষেধাজ্ঞার হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।  

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান ও অবৈধ ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে প্রায় এক মাস ধরে অব্যাহত রয়েছে বিক্ষোভ আন্দোলন। সেনা সরকারের ব্যাপক দমনপীড়ন, ধরপাকড় ও গুলি আর একের পর এক হত্যার পরও এই আন্দোলন প্রতিদিনই জোরালো হচ্ছে। মঙ্গলবার আবারো পুলিশের গুলি, টিয়ারগ্যাসে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে।  

জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুনের সেনাবিরোধী বিদ্রোহের পরই অন্তত ১৯টি দেশে সু চিপন্থী কূটনীতিকদের দেশে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রায় অর্ধশতাধিক কর্মকর্তাকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ব্যাপক রদবদল করা হয়েছে।

এছাড়া সু চির বিরুদ্ধে যোগাযোগ আইন লঙ্ঘন ও গণ–অসন্তোষ উসকে দেওয়ার আরও দুটি অভিযোগ আনা হয়েছে। ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ আনা হয়েছে। এমন অবস্থায় দেশটির বিরুদ্ধে অতিরিক্ত নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার সব রকম প্রস্তুতি নিয়েছে মার্কিন সরকার।


রাজশাহীতে চলছে বিএনপির মহাসমাবেশ

করোনায় দেশে আরও ৭ জনের মৃত্যু

বিমানের মধ্যেই মৃত্যু, পাকিস্তানে ভারতীয় বিমানের জরুরি অবতরণ

কুয়েতে দিনার ছিটিয়ে ‘অশ্লীল নাচ’, ৪ বাংলাদেশিকে খুঁজছে দূতাবাস


মিয়ানমার সেনাবাহিনী শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে যদি এই সহিংসতা বন্ধ করতে অস্বীকার করে, তবে মার্কিন সরকার তাদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে প্রস্তুত।   

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ান দেশগুলোর পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে যাচ্ছে মিয়ানমারের  সামরিক সরকার। এদিকে রোববারের ওই সহিংসতায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নিন্দা জানালেও এখনও কোন মন্তব্য করেনি  চীন।   

news24bd.tv নাজিম

;