অভিনেতা মুশফিক ফারহানের বিরুদ্ধে সাবেক প্রেমিকার জিডি

অনলাইন ডেস্ক

অভিনেতা মুশফিক ফারহানের বিরুদ্ধে সাবেক প্রেমিকার জিডি

ছোট পর্দার অভিনেতা মুশফিক রহমান ফারহানের নামে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন এক তরুণী। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। জিডি করা ওই তরুণী মুশফিক ফারহানের সাবেক প্রেমিকা বলে জানা গেছে।

শুক্রবার (২৮ মে) সকালে মুশফিক ফারহানের বিরুদ্ধে করা জিডির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন শেরেবাংলা নগর থানার উপ-পরিদর্শক সাহেরা খানম।

জিডি সূত্রে জানা গেছে, অভিনেতা মুশফিক ফারহানের সঙ্গে পাঁচ বছর প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন ওই তরুণী। এই ৫ বছর নানাভাবে তাকে অত্যাচার করতেন ফারহান। সম্পর্ক ছেড়ে দেওয়ার কথা বললেই ফারহান হুমকি দিতেন। এভাবে চলতে থাকলে একপর্যায়ে সম্পর্ক ভেঙে দেন ওই তরুণী। এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার (২৭ মে) তরুণী এবং তার পুরো পরিবারকে ‘ধ্বংস’ করার হুমকি দেন ফারহান।

আরও পড়ুন

  মৃত ভেবে সৎকার, এক সপ্তাহ পর বাসায় ফিরলেন

  ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারি রোগ ঘোষণা দিলো দিল্লি

  ছাগলের পাতা খাওয়া ও ইউএনও’র জরিমানা কাহিনী

  প্রেমিকের সঙ্গে ৫ বছর শারীরিক সম্পর্ক, বিয়ের দাবিতে যুবতীর অনশন

 

অভিযোগ দায়ের করা ওই তরুণী জানান, ‘বুধবার (২৬ মে) দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টার দিকে ফারহান আমাকে ফোন করে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেয় এবং অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। তারপর থেকে আমাকে অনবরত ফোন করে যাচ্ছে কিন্তু আমি কল রিসিভ করার সাহস পাচ্ছি না। গতকাল (বৃহস্পতিবার) দুপুরে আমাকে ফোন করেছিল, আমি রিসিভ করিনি। তারপর সন্ধ্যায় থানায় গিয়ে জিডি করি।’

ওই তরুণী অভিযোগ করেন, মুশফিক ফারহান বিভিন্ন জায়গায় তার নামে মিথ্যাচার করছে। ফারহানের কাছ থেকে আমি নাকি টাকা নিয়েছি। এছাড়া আরও মিথ্যা অভিযোগ করছে বিভিন্ন জায়গায়। হয়তো নিজেকে রক্ষা করার জন্যই এসব বলছে।’

এদিকে জিডি প্রসঙ্গে জানতে অভিনেতা ফারহানের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি তাকে। ক্ষুদেবার্তা পাঠালেও তার কোনো উত্তর দেননি তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

আসছে নতুন ‘কৃষ’(ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

আসছে নতুন ‘কৃষ’(ভিডিও)

বলিউডের অন্যতম সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি মুভি ‘কৃষ’।  দেখতে দেখতে ১৫ বছর পার পরে ফেলেছে এই মুভি সিরিজিটি। ২০০৬ সালের ২৩ জুন সুপারহিরোভিত্তিক সিনেমাটি মুক্তি পায় বড় পর্দায়।

বহুদিন ধরেই এই সিনেমা ঘিরে চলছিল জল্পনা। তবে এবার সিনেমাটি দেড় দশক পূর্তিতে ফ্র্যাঞ্চাইজির চার নম্বর কিস্তি ‘কৃষ ফোর’-এর নামটি সামনে নিয়ে এলেন ঋত্বিক। এক রকম সিনেমাটির ঘোষণা দিয়ে কাজ শুরুর ইঙ্গিত দিলেন তিনি।

১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে টুইট করে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন ঋত্বিক। সেখানে দেখা যাচ্ছে চিরাচরিত কালো রঙের লং কোট পরে আকাশপথে উড়ে যাচ্ছেন কৃষ। তার মাঝেই মুখ থেকে নিজের মুখোশটি খুলে ছুঁড়ে দেন তিনি।

ক্যাপশনে লেখেন, ‘অতীতে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। দেখা যাক, ভবিষ্যৎ কী নিয়ে আসে। কৃষ ফোর’। হ্যাশট্যাগ হিসেবে ‘ফিফটিন ইয়ারস অব কৃষ’ এবং ‘কৃষ ফোর’ শব্দেরও ব্যবহার করেছেন তিনি।

গুঞ্জন রয়েছে, ‘কৃষ ফোর’ সিনেমায় ঋত্বিকের বিপরীতে প্রিয়াঙ্কা বা ক্যাটরিনাকে দেখা যেতে পারে।

২০০৩ সালে মুক্তি পায় ঋত্বিক রোশন ও প্রীতি জিনতা অভিনীত ‘কই মিল গায়া’। ছবিটির ব্যাপক সাফল্যের পর ২০০৬ সালে নির্মিত হয় এর সিক্যুয়েল ‘কৃষ’। এতে যুক্ত হয় বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সাত বছর পর নির্মিত হয় চতুর্থ কিস্তি ‘কৃষ থ্রি’। 

আকাশপথে উড়ে যাচ্ছেন কৃষ

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ভ্যাকসিন জালিয়াতির কবলে মিমি

অনলাইন ডেস্ক

ভ্যাকসিন জালিয়াতির কবলে মিমি

সংসদ সদস্য ও টালিউড নায়িকা মিমি চক্রবর্তী ভুয়া ভ্যাকসিনের কবলে পড়েছেন। গত মঙ্গলবার কসবার নিউ মার্কেট এলাকার এক ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্প থেকে কভিড টিকা নেন তারকা সংসদ সদস্য। বিশেষভাবে সক্ষম শিশু ও সমকামীদের এই ক্যাম্পে বিনা মূল্যে করোনা টিকা দেওয়া হচ্ছে, আমন্ত্রণপত্রের মাধ্যমে সে কথা জানতে পেরে সেখানে হাজির হন তিনি।

সবাইকে ভ্যাকসিন নিতে উৎসাহিত করতে নিজেও ভ্যাকসিন নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু পরে গোটা বিষয় নিয়ে খটকা লাগে মিমির। এবং তার তৎপরতার কারণেই ভুয়া ভ্যাকসিন কেন্দ্রের পর্দা ফাঁস হয়।

ওই ভ্যাকসিন ক্যাম্পের আয়োজকের নাম দেবাঞ্জন দেব। তিনি নিজেকে আইএস অফিসার হিসেবে পরিচয় দেন। মিমিকে জানানো হয়েছিল জয়েন্ট কমিশনার অব কেএমসির উদ্যোগে ওই ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্প পরিচালনা করা হচ্ছে।

সংবাদমাধ্যমকে মিমি জানান, পুরো বিষয়টা প্রোমোট করতে আমি সেখানে পৌঁছেছিলাম এবং নিজেও ভ্যাকসিন নিই। কিন্তু তারপর ফোনে কোনো মেসেজ না আসায় আমার খটকা লাগে। সার্টিফিকেট চাইলেও ওরা জানায়, বাড়িতে পৌঁছে যাবে; কিন্তু আসেনি। পরে অফিসের লোক গিয়ে খোঁজ করালে তারা বলে, তিন-চার দিন সময় লাগবে। এরপরই বুঝি নিশ্চয়ই পুরো বিষয়টার মধ্যে অন্য কোনো ব্যাপার আছে।

এরপর মিমি নিজে ওই ক্যাম্প থেকে টিকা নেওয়া অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানতে পারেন, তারাও একই পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে। তার পরই প্রশাসনিক স্তরে যোগাযোগ করেন মিমি। 

পুলিশ জানিয়েছে, মিমির অভিযোগ খতিয়ে দেখে দেবাঞ্জন দেব নামের ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

 

পরবর্তী খবর

এবার আলোচনায় পরীমনির সাড়ে ৩ কোটি টাকার গাড়ি

অনলাইন ডেস্ক

এবার আলোচনায় পরীমনির সাড়ে ৩ কোটি টাকার গাড়ি

আলোচিত রুপালি পর্দার অভিনেত্রী পরীমনি। চলচ্চিত্র ছাড়াও নানা কারণে শিরোনামে এসেছেন বারবার। বিতর্ক যেন তার পিছু ছাড়ছে না। উত্তরার বোট ক্লাবের ঘটনা এবং গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগের পর তাকে নিয়ে নানা আলোচনা দেশজুড়ে। 

এবার আলোচনায় সাড়ে ৩ কোটি টাকায় কেনা গাড়ির বিষয়টি নিয়েও। ২০২০ সালের ২৪ শে জুন তার সাদা রঙের হ্যারিয়ার গাড়িটি দুর্ঘটনায় দুমড়ে মুচড়ে যায়। এর ২৪ ঘণ্টা পার হতে না হতেই তিনি প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকার রয়েল ব্লু-রঙের মাসেরাতি গাড়ি কেনেন।

ইতালিয়ান অভিজাত গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফিয়াট অটোমোবাইলসের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ‘মাসেরাতি’।

গাড়িটি কিনে পরীমনি ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায় তা। চলচ্চিত্র পাড়ায় তৈরি হয় নানা গুঞ্জন। কে দিয়েছেন পরীমনিকে ওই গাড়িটি? উত্তরার বোট ক্লাবের ঘটনার পর পরীমনি ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে যান। তাকে গোয়েন্দা পুলিশ ওই ঘটনাসহ আরও কিছু বিষয় নিয়ে জেরা করেন। কথা প্রসঙ্গে তার গাড়িটির কথা উঠে আসে। গাড়ির প্রসঙ্গে গোয়েন্দাদের জেরায় তিনি বিব্রতবোধ করেন এবং ওই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

নিজের ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাস দিয়ে পরীমনি জানান, উত্তরার বোট ক্লাবে তাকে হত্যা ও ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। এই ঘটনায় সাভার থানায় ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিনসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। পরে পুলিশ উত্তরা এক নম্বর সেক্টরের ১২ নম্বর রোডের একটি বাসা থেকে নাসির উদ্দিন মাহমুদ, অমিসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে।

নাসিরের মাদক মামলার প্রধান সমন্বয়কারী তদন্তকারী ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান বিভাগের ডিসি মো. মশিউর রহমান জানান, ‘মামলাটি তারা তদন্ত করছেন। তদন্তের স্বার্থে কিছু বলা যাচ্ছে না।’

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এক কর্মকর্তা এবং পরীমনির ছবি পরিচালনাকারী এক পরিচালকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গভীর রাতে পরীমনি বিভিন্ন ক্লাবে ঘুরে বেড়াতেন। তার বাসায়ও একটি মিনি বারের মতো জায়গা রয়েছে। ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ ক্লাবগুলোতে সদস্য ছাড়া প্রবেশের কোনো অনুমতি না থাকলেও ওইসব ক্লাবগুলোতে তিনি নিয়মিত যাতায়াত করতেন।

সূত্র জানায়, গুলশানের ওই ক্লাবে যাতায়াতের সূত্রে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে তার পরিচয় হয়। তাদের মধ্যে যে সম্পর্ক বা ঘনিষ্ঠতা হয় তার পেছনে রয়েছেন চলচ্চিত্রের একজন তরুণ পরিচালক। পরীমনির সঙ্গে ওই ব্যবসায়ীর বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গুঞ্জন রয়েছে, পরীমনির গাড়িটি এই সূত্রেই পেয়েছেন। যদিও পরীমনি এ ব্যাপারে কিছুই বলছেন না। তিনি চুপ থাকার কারণে গাড়িটি নিয়ে নানা রহস্য চারদিকে। সূত্র: মানবজমিন।

আরও পড়ুন:


ভরাট গলায় ভাব নিয়ে ফোন, অবশেষে ধরা ভুয়া এমপি

নুসরাতের ‘প্রাক্তন স্বামী’ নিখিলের সঙ্গে দুই নায়িকার প্রেমের গুঞ্জন

'কৃষ ফোর' ঋত্বিকের বিপরীতে থাকতে পারে ক্যাটরিনা!

রহস্যের জট খুলছে, একাই বাবা-মা-বোনকে হত্যা করে মেহজাবিন‍!


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

পুরো ভিডিওটি দেখতে চান পরীমণি

অনলাইন ডেস্ক

পুরো ভিডিওটি দেখতে চান পরীমণি

বোটক্লাব কাণ্ডে পরীমনিকে নিয়ে আলোচনা থামছেই না। সম্প্রতি কিছু ভিডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। সবশেষ বোট ক্লাবের ভেতরের একটি ক্লিপ প্রকাশ হয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। মূলত এটি প্রকাশের পরই নানা জল্পনা শুরু হয়েছে পরীমনিকে নিয়ে।

সবশেষ প্রকাশ হওয়া ভিডিওকে কিছু একটা পান করতে দেখা গেছে পরীমনিকে। ভিডিওতে আরও দেখা যায়, পরীমণিকে উদ্দেশ্য করে নাসির বলেন, ‘হোয়াট ইজ দিস, প্লিজ স্টপ, ডোন্ট ডু দিস, ইটস টু মাচ।’ উত্তরে পরীমনি বলেন, ‘অ্যাই যা...যা! বেরিয়ে যা!’ মদ না পেয়ে নাসির ইউ মাহমুদের দিকে বোতল ছুড়ে মারেন পরীমণি।

এ প্রসঙ্গে পরীমনি দেশীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘কয়েক সেকেন্ডের বিভ্রান্তিকর অস্পষ্ট ক্লিপ নয়, আমি পুরো ভিডিওটি চাই। শুরু থেকেই বলে আসছি, ক্লাবের ভেতরের সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করার জন্য। যদি কয়েক সেকেন্ড পাওয়া যায়, তাহলে নিশ্চয়ই পুরো ফুটেজই আছে। আমি সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করে আবারও বলছি, দয়া করে পুরো ফুটেজ প্রকাশ করুন। সবাই সত্যটা জানুক কী ঘটেছে সেই রাতে।’

এর আগে বোট ক্লাবের সিসিটিভি ক্যামেরার আরও একটি ফুটেজ প্রকাশ পায়। ওই ফুটেজে দেখা যায়, ৯ জুন রাত ১২টা ২২ মিনিটে ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে একটি কালো গাড়ি দাঁড়ায়। সেই গাড়ি থেকে পরীমণি, জিমি ও অমিকে নামতে দেখা যায়। কিছুক্ষণ পর গাড়ি থেকে বের হন বনিও। ক্লাবের রিসিপশনেও অমির সঙ্গে পরীমণিসহ অন্যদের ঢুকতে দেখা গেছে ওই ফুটেজে।


আরও পড়ুন:

ফিলিপাইনের সাবেক প্রেসিডেন্ট বেনিগনো অ্যাকুইনো মারা গেছেন

তরুণীকে তুলে নিয়ে ভাড়া বাসায় ৩ যুবকের পালাক্রমে ধর্ষণ

টিকা উৎপাদনে আন্তর্জাতিক সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশ্ববাজারে ২ বছরের মধ্যে অপরিশোধিত তেলের দাম সর্বোচ্চ


এদিকে পরীমনির দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে নাসির ও অমিকে। বুধবার (২৩ জুন) তাদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়েছিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক কামরুল ইসলাম। শুনানি শেষে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব হাসান।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

'কৃষ ফোর' ঋত্বিকের বিপরীতে থাকতে পারে ক্যাটরিনা!

অনলাইন ডেস্ক

'কৃষ ফোর' ঋত্বিকের বিপরীতে থাকতে পারে ক্যাটরিনা!

২০০৬ সালের ২৩ জুন সুপারহিরোভিত্তিক সিনেমাটি মুক্তি পায় বলিউডের অন্যতম সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি ‘কৃষ’। দেখতে দেখতে ১৫ বছর পার পরে ফেলেছে।  সিনেমাটি দেড় দশক পূর্তিতে ফ্র্যাঞ্চাইজির চার নম্বর কিস্তি ‘কৃষ ফোর’-এর নামটি সামনে নিয়ে এলেন ঋত্বিক। 

এক রকম সিনেমাটির ঘোষণা দিয়ে কাজ শুরুর ইঙ্গিত দিলেন তিনি। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এ ছবিতে রাখা হবে ভিজ্যুয়াল এফেক্টস। গুঞ্জন রয়েছে, ‘কৃষ ফোর’ সিনেমায় ঋত্বিকের বিপরীতে প্রিয়াঙ্কা বা ক্যাটরিনাকে দেখা যেতে পারে।

বহুদিন ধরেই এই সিনেমা ঘিরে চলছিল জল্পনা। একাধিক সাক্ষাৎকারে ‘কৃষ ফোর’ যে তৈরি হবে সেকথা নিজেই জানিয়েছিলেন ঋত্বিক। বরাবরের মতো পরিচালক-প্রযোজক থাকবেন তার বাবা রাকেশ রোশন।  

১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে টুইট করে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন ঋত্বিক। সেখানে দেখা যাচ্ছে চিরাচরিত কালো রঙের লং কোট পরে আকাশপথে উড়ে যাচ্ছেন কৃষ। তার মাঝেই মুখ থেকে নিজের মুখোশটি খুলে ছুঁড়ে দেন তিনি।

ক্যাপশনে লেখেন, ‘অতীতে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। দেখা যাক, ভবিষ্যৎ কী নিয়ে আসে। কৃষ ফোর’। হ্যাশট্যাগ হিসেবে ‘ফিফটিন ইয়ারস অব কৃষ’ এবং ‘কৃষ ফোর’ শব্দেরও ব্যবহার করেছেন তিনি।

২০০৩ সালে মুক্তি পায় ঋত্বিক রোশন ও প্রীতি জিনতা অভিনীত ‘কই মিল গায়া’। ছবিটির ব্যাপক সাফল্যের পর ২০০৬ সালে নির্মিত হয় এর সিক্যুয়েল ‘কৃষ’। এতে যুক্ত হয় বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সাত বছর পর নির্মিত হয় চতুর্থ কিস্তি ‘কৃষ থ্রি’। এতেও ঋত্বিকের নায়িকা ছিলো ‘গুন্ডে’খ্যাত এই অভিনেত্রী।

এক সাক্ষাৎকারে রাকেশ রোশন জানিয়েছে, বেশ খরচসাপেক্ষ হবে ছবি। ভিজ্যুয়াল এফেক্টসের ব্যয় যাতে সাধ্যের মধ্যে রাখা যায়, সেটা মাথায় রাখতে হচ্ছে। এ ছাড়া দর্শকদেরও ভালো লাগতে হবে সেটা। সে জন্য আমরা আন্তর্জাতিক মানের একজন অ্যাকশন ডিরেক্টরের কথা ভাবছি। এমন কিছু করতে চাই, যা আগে বলিউডে হয়নি।

আরও পড়ুন:


চলন্ত ট্রাকে তরুণীকে ধর্ষণ, অতঃপর যেভাবে উদ্ধার

দ্বিতীয় বিয়ের পর থেকেই অশান্তিতে ছিল আবু ত্ব-হা!

পরিবারের দাবি হত্যাকাণ্ড, দাফনের ১৫ দিন পর তরুণীর লাশ উত্তোল

পরীমনিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর