২৬ সেপ্টেম্বর , বুধবার, ২০১৮

শিরোনাম

> বিশেষ প্রতিবেদন

 

রিপন হোসেন চঞ্চল • যশোর প্রতিনিধি

১৭ মে ,বৃহস্পতিবার, ২০১৮ ২০:৪০:১৬

জনবল সঙ্কটে তুলা গবেষণা বন্ধ, নষ্ট হচ্ছে গবেষণাগারের মূল্যবান যন্ত্রপাতি


জনবল সঙ্কটে তুলা গবেষণা বন্ধ, নষ্ট হচ্ছে গবেষণাগারের মূল্যবান যন্ত্রপাতি


জনবল সঙ্কট আর নানা প্রতিবন্ধকতায় অকার্যকরী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হতে চলেছে যশোরের জগদীশপুরে অবস্থিত দেশের সর্ববৃহৎ তুলা গবেষণা কেন্দ্র, প্রশিক্ষণ ও বীজ বর্ধন খামার। এতে এই তুলা চাষ হুমকির মুখে পড়েছে। তাছাড়া গবেষণা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় নষ্ট হচ্ছে গবেষণাগারের মূল্যবান সব যন্ত্রপাতি। 

সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, সরকারি সহযোগিতা বাড়ালে এ ফার্মের মাধ্যমে দেশে ১২ মাস তুলা উৎপাদন উপযোগী বীজ সরবরাহ করা সম্ভব।

দেশে বর্তমানে তুলার চাহিদা ৬০ লাখ বেল। চাহিদার বিপরীতে উৎপাদন হচ্ছে মাত্র ২ লাখ বেল। চাহিদা মেটাতে তুলার চাষ সম্প্রসারণে দেশে কাজ করছে ৫টি সরকারি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ খামার এবং ১৩টি জোন।

কৃষি অফিসের তথ্যানুযায়ী, দেশের চার ভাগের তিন ভাগ তুলা উৎপাদন হয় বৃহত্তর যশোর, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ ও চুয়াডাঙ্গা জেলায়। তুলার উচ্চ ফলনশীল জাত উদ্ভাবন, তুলা খামারের কৃষি তাত্ত্বিক পোকামাকড় দমন, রোগ বালাই নিয়ন্ত্রণ ও প্রযুক্তিগত উৎকর্ষ সাধনে মানানসই গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ১৯৮০ সালে চৌগাছা উপজেলা সদরের ১০ কিলোমিটার দূরে জগদীশপুর গ্রামে গড়ে তোলা হয় এশিয়া মহাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ও দেশের সবচেয়ে বড় তুলা গবেষণা, প্রশিক্ষণ ও বীজ বর্ধন খামার।

যশোর জগদীশপুর তুলা গবেষণা, প্রশিক্ষণ ও বীজ বর্ধন খামারের ব্যবস্থাপক শেখ আল মামুন বলেন, ১৫৭ একর (৬৩.৭০ হেক্টর) জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত এ খামারটিতে শুরু থেকে উন্নত জাতের তুলা বীজ উদ্ভাবন করে চাষীদের মাঝে সরবরাহের পাশাপাশি, চাষীদের প্রশিক্ষণ ও তুলা চাষে সফলতা অর্জন করে। পরবর্তীতে জনবল সঙ্কটের পাশাপাশি নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়ে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে ২৫টি পদের বিপরীতে কাজ করছে ১৬ জন। 

এ খামারে ২০১২-১৩ অর্থবছরে তুলা উৎপাদনে সরকারি বরাদ্ধ ১২ লাখ ১৭ হাজার টাকা। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ১২ লাখ ৯৩ হাজার টাকা। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ১২ লাখ ৪১ হাজার টাকা। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ১১ লাখ ৫৬ হাজার ৭৯ টাকা।

প্রয়োজনীয় সংখ্যক গবেষক ও গবেষণা সহকারী না থাকায় ও গবেষণার আধুনিক যন্ত্রপাতির অভাবে গবেষণা কার্যক্রম বন্ধ হওয়ার উপক্রম। এতে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে মূল্যবান যন্ত্রপাতি। আর গবেষণা না হওয়ায় তুলার উন্নত জাত উদ্ভাবনের পথ রুদ্ধ হচ্ছে বলে জানান জগদীশপুর তুলাবীজ বর্ধন ও প্রশিক্ষণ খামারের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এমএম আবেদ আলী। 

তিনি বলেন, খামারে ছয় মাসের জাত আছে। এখন চার মাসের জাত এনে আমরা উৎপাদন করছি। তাহলে ১২ মাসই আমরা তুলা উৎপাদন করতে পারবো। আশা করি, জনবল দিয়ে যদি এই গবেষণা চালিয়ে নেয়া যায়, এটাই এশিয়ার সবচেয়ে বড় গবেষণা কেন্দ্র হবে।

নানা সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও এ বছর খামারের ৩১ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড জাতের তুলা চাষ হয়েছে। জনবল ঘাটতি দূর হলে আরো অধিক জমিতে চাষ সম্ভব বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই তুলা খামার থেকে সিবি-৫, সিবি-১১, সিবি-১২, সিবি-১৬সহ তুলার ৫টি হাইব্রিড জাত উদ্ভাবিত হয়েছে। যা দেশের তুলা চাষে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। সংশ্লিষ্টরা মনে করেন বারী, বিরি ও বিনা’র মতো অন্যান্য গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ন্যায় পর্যাপ্ত জনবল ও গবেষণার উন্নত যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হলে দেশে তুলা চাষের সুদিন ফিরে আসবে।

রিপন/অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর


মুন্সীগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
‘ট্রাম্পের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে না’
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ৫ শতাধিক ট্রাক আটকা
ভিন্নধর্মে প্রেম করায়...
এবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন তনুশ্রী
ভারতকে থামাল আফগানরা
জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে যা বললেন রাষ্ট্রপতি
ড্রয়িং রুম ছেড়ে রাজপথে আসুন
৪ দিন পর সচল বেনাপোল বন্দর 
পাকিস্তানকে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের হুমকি ভারতের
‘রুশ বিমানের আড়ালে লুকিয়েছিল ইসরাইলি বিমান’
পাঁচ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২
রেল যাত্রীদের মাঝে হিজড়া আতঙ্ক!
বাস-ট্রাক সংঘর্ষ, ট্রাক চালকের মৃত্যু
সাংবাদিকের বাড়িতে কারখানা মালিকের হামলা
যথা সময়ে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে: সিইসি 
সাতক্ষীরায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার
সিঙ্গাপুর গেলেন এরশাদ
ছেলের চুরির অপরাধে মা-বোনকে পিটিয়ে জখম
গৃহবধূ হত্যার দায়ে ৩ জনের ফাঁসি
মুন্সীগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
‘ট্রাম্পের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে না’
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ৫ শতাধিক ট্রাক আটকা
ভিন্নধর্মে প্রেম করায়...
এবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন তনুশ্রী
ভারতকে থামাল আফগানরা
জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে যা বললেন রাষ্ট্রপতি
ড্রয়িং রুম ছেড়ে রাজপথে আসুন
৪ দিন পর সচল বেনাপোল বন্দর 
গুরুদাসপুরে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন 
পাকিস্তানকে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের হুমকি ভারতের
‘রুশ বিমানের আড়ালে লুকিয়েছিল ইসরাইলি বিমান’
পাঁচ হাজার ইয়াবাসহ আটক ২
রেল যাত্রীদের মাঝে হিজড়া আতঙ্ক!
বাস-ট্রাক সংঘর্ষ, ট্রাক চালকের মৃত্যু
সাংবাদিকের বাড়িতে কারখানা মালিকের হামলা
যথা সময়ে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে: সিইসি 
সাতক্ষীরায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার
সিঙ্গাপুর গেলেন এরশাদ
ছেলের চুরির অপরাধে মা-বোনকে পিটিয়ে জখম
এনার্জি ড্রিংক নিষিদ্ধ করলো বিএসটিআই
‘দলের শৃঙ্খলা ভাঙলে বরদাশত করা হবে না’
কাবা শরীফের ভেতরে ঢুকলেন ইমরান খান(ভিডিও)
আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টাইগারদের সম্ভাব্য একাদশ
শিক্ষক হলেন হাছান মাহমুদ, পড়াবেন জাহাঙ্গীরনগরে
কুড়িগ্রামে কিশোর-কিশোরীর লাশ উদ্ধার
ইসরাইলকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি
প্রধান শিক্ষকের নির্যাতনে শিক্ষার্থী অজ্ঞান!
ট্রাম্পের গোপন বিষয়ে ‘বোমা’ ফাটালেন স্টর্মি
সুন্দরী তরুণীদের ধর্ষণ ও হত্যা করাই তার কাজ
এক অবিশ্বাস্য জয় এনে দিলেন মোস্তাফিজ
রোববার চালু হচ্ছে সিম্ফোনির কারখানা 
সন্তান জন্ম দিয়ে বিপাকে প্রবাসীর স্ত্রী
নগ্ন হয়ে ঘর পরিষ্কার করেন ইনি!
ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে হামলায় নিহত বেড়ে ২৪
মোস্তাফিজকে নিয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের টুইট
‘নারীর লজ্জাস্থানে মাদকের কারবার’
নওগাঁয় প্রতারক চক্রের ৪ যুবতী ও তাদের সহযোগী আটক
রাতে ফেসবুক বন্ধ চান রওশন এরশাদ
‘প্রিন্সিপাল আমাকে পর্ন ভিডিও দেখাতেন’

সব খবর