হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজত নেতা মাঈনুদ্দিন রুহীকে গণপিটুনি

নিজস্ব প্রতিবেদক

হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজত নেতা মাঈনুদ্দিন রুহীকে গণপিটুনি

চট্টগ্রামের জামিয়া আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী বড় মাদ্রাসায় চলমান ছাত্র আন্দোলনে হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দিন রুহীকে গণপিটুনি দিয়েছে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা। 

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে হাটাহজারী মাদ্রাসার পরিচালক আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানীকে বহিষ্কারসহ বিভিন্ন দাবীতে মাঠে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন শুরু করে মাদ্রাসার ছাত্ররা। এরমধ্যে বিকেল ৫টার দিকে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা জানতে পারে মাওলানা মাঈনুদ্দিন রুহি হাটহাজারী মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আহমদ দীদার সাহেবের রুমে অবস্থান করছেন। এরপর আহমদ দীদারের রুম থেকে মাঈনুদ্দিন রুহিকে বের করে বিক্ষুদ্ধ ছাত্ররা গণপিটুনি দেয়। 


আরও পড়ুন: রং সোডা এবং ক্ষতিকর রাসায়নিক ব্যবহার করে তৈরি হচ্ছে মিষ্টি


পরে কয়েকজন শিক্ষক ছাত্রদের হাত থেকে রুহীকে উদ্ধার করে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বর্তমানে তিনি হাটহাজারী মাদ্রসাতেই আছেন।


আরও পড়ুন: ১৭ ঘণ্টা পর ডিএনডি খালে নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধার


আন্দোলনরত ছাত্রদের অভিযোগ, শফীপুত্র আনাস মাদানীর সহযোগী মাওলানা মাইনুদ্দীন রুহী। তারা দুইজনই শলাপরামর্শের মাধ্যমে হাটাহজারী মাদ্রাসাসহ কওমী অঙ্গনে সব অনিয়ম এবং অরাজকতার বীজ বপন করেছেন। কোনো দায়িত্বে না থাকা সত্বেও আজও সে মাদ্রাসায় অবস্থান করে নানা ষড়যন্ত্র করছিল। 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/নাজিম

মন্তব্য