ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের বৈঠকে মারামারি

অনলাইন ডেস্ক

ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের বৈঠকে মারামারি

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বৈঠকের মধ্যেই সংগঠনটির দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (১৫ মার্চ) বিকেলে ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মুজিববর্ষ উদযাপন নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক হয়। এতে ছাত্রলীগের সম্মেলন দাবি করায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

বৈঠকে ছিলেন ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা আল নাহিয়ান খান জয় ও  লেখক ভট্টাচার্য। 

বিকেল পাঁচটায় শুরু হওয়া এ বৈঠক শেষ হয় রাত সাড়ে আটটায়।

বৈঠকের শেষ দিকে ছাত্রলীগের সভাপতি কেন্দ্রীয় নেতাদের উদ্দেশে বলেন, তোমরা কারা জানি সম্মেলন নিয়ে ফেইসবুকে লেখালেখি করেছো? এটা ঠিক নয়। 

এসময় ছাত্রলীগের উপপ্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক মিশকাত জয়কে উদ্দেশ্য করে বলেন, ভাই আমরা সম্মেলন চাই কারণ বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে এক বছরের বেশি। তাই সম্মেলনের তারিখ ঠিক করে আপাকে (প্রধানমন্ত্রী) জানান।

কারণ কেন্দ্রীয় নেতাদের অনেকেরই বয়স ২৯ শেষ হয়ে যাচ্ছে, তাই সম্মেলনের তারিখ দিলে আমাদের মধ্যে অনেকেই নেতা হতে পারবেন। 

মিশকাত বলেন, মাঠের নেতারাও সম্মেলন চান। এসময় কেন্দ্রীয় কমিটির নোবেল ও সাগর হোসেন সোহাগ মিশকাতের দিকে তেড়ে আসেন।

পরবর্তী খবর

মাদক বিস্তারের পরিণাম জঙ্গিবাদের মতোই ভয়াবহ: জিএম কাদের

অনলাইন ডেস্ক

মাদক বিস্তারের পরিণাম জঙ্গিবাদের মতোই ভয়াবহ: জিএম কাদের

মাদক বিস্তারের পরিণাম জঙ্গিবাদের মতোই ভয়াবহ বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের। রোববার এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন তিনি।

জিএম কাদের বলেন, মাদক বিস্তারের পরিণাম জঙ্গিবাদের মতোই ভয়াবহ। মাদকের বিস্তার নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে আগামী প্রজন্ম ধ্বংস হয়ে যাবে। তাই মাদক নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনে বিশেষায়িত ইউনিটি গঠন করতে হবে।

আরও পড়ুন:


এবারও হচ্ছে না প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা

আমাদের লক্ষ্য বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করা: প্রধানমন্ত্রী

ওসমানীনগরে শিক্ষিকাকে গলাকেটে হত্যার পর গৃহকর্মীর আত্মহত্যা

এবার মাহিয়া মাহির দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে গুঞ্জন


তিনি বলেন, গণমাধ্যমের সাম্প্রতিক সংবাদে ইতোমধ্যেই দেশবাসী জেনেছে এলএসডি, আইস, খাট-এর মত মরণনেশায় আসক্ত হয়ে পড়েছে আমাদের তরুণ সমাজ। এছাড়া ইয়াবা, ফেনসিডিল, মদ ও গাজা আরও সহজলভ্য হয়ে পড়েছে। জাতির জন্য এর মত দুঃসংবাদ আর হতে পারে না। মাদকের ভয়াবহ ছোবল থেকে যুব সমাজকে বাঁচাতে না পারলে জাতি হয়ে পড়বে অকর্মণ্য, উগ্র এবং অসভ্য। ধ্বংস হয়ে যাবে তারুণ্যের অমিত সম্ভাবনা। তখন কোনোভাবেই দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে না।

বিবৃতিতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান আরও বলেন, মাদক নির্মূলে সরকারকে এখনই কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

‘ড্যাব’কে অনুরোধ জানাব ফখরুলের মানসিক পরীক্ষা করাতে: তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

‘ড্যাব’কে অনুরোধ জানাব ফখরুলের মানসিক পরীক্ষা করাতে: তথ্যমন্ত্রী

আজকে বিশ্বের পত্রপত্রিকায় লেখা হচ্ছে একসময়ের ঋণ গ্রহিতার বাংলাদেশ এখন অন্য দেশকে ঋণ দেয় বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। সেই সঙ্গে দেশের ৫০ বছরের অর্জন আওয়ামী লীগ নষ্ট করে দিয়েছে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদও করেন তিনি।

আজ রোববার (২০ জুন) দুপুরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী বহলপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পে উপকারভোগীদের মাঝে মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে দুইশতক জমিসহ ঘরের কবুলিয়তনামা হস্তান্তর মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশের সমস্ত অর্জন জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে হয়েছে। যেখানে সবাই প্রশংসা করছেন সেখানে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কি বলেন? দেশের ৫০ বছরের অর্জন নিয়ে তিনি যে কথা বলেছেন তাতে মনে হচ্ছে বয়সের কারণে ওনার মতিভ্রম ঘটেছে। বিএনপির ডাক্তারদের সংগঠন ‘ড্যাব’কে অনুরোধ জানাবো মির্জা ফখরুলের মানসিক স্বাস্থ্যের পরীক্ষা করাতে।

আরও পড়ুন:


ইরানের নতুন প্রেসিডেন্টের সংবাদ সম্মেলন কাল

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা স্থগিত


তিনি বলেন, দেশে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা ৪১ শতাংশ ছিল সেখান থেকে ২০ শতাংশে নেমে এসেছে। খাদ্য ঘাটতির দেশ থেকে খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত হয়েছে। স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত হয়েছে। আজকে বিশ্বের পত্রপত্রিকায় লেখা হচ্ছে একসময়ের ঋণ গ্রহিতার বাংলাদেশ এখন অন্য দেশকে ঋণ দেয়। বিএনপি এবং তাদের মিত্ররা এই সমস্ত উন্নয়ন দেখতে পায় না। প্রতিদিন মিথ্যা কথা অব্যাহত রেখেছে। তাদের রাজনীতির মূল বিষয় হচ্ছে বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য এবং তারেক রহমানের শাস্তি।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সরকার লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকার লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে: ফখরুল

সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করার পাশাপাশি লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ‘সমাজ উন্নয়নে মৃত্যুঞ্জয়ী জিয়া’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি। 

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জিয়া পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি এ সভার আয়োজন করে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার পরিকল্পিতভাবে, পরিকল্পিত ওয়েতে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করছে। লুট করছে, লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে।

তিনি বলেন, মেগা প্রজেক্টের সবচেয়ে বড় সমস্যা যেটা, সেটা হলো- গণলুট। ১০ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট হয়ে যাচ্ছে ৫০ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট। এভাবে তারা মেগা প্রজেক্টগুলোকে টাকা বানানোর প্রজেক্ট হিসেবে নিয়েছে। অন্যদিকে দেখুন প্রত্যেকটি জায়গায় এমন এমন কাজ করা হচ্ছে, সেখানে ওই কাজের কোনো দরকারই নেই।

স্বাস্থ্যখাত করুণ অবস্থায় রয়েছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এখন পর্যন্ত করোনার টিকার কোনো নিশ্চয়তা নেই। টিকার নিশ্চয়তা হবেও না। এই জন্যে যে, যারা এই স্বাস্থ্যখাতের সঙ্গে জড়িত, টিকার সঙ্গে জড়িত, তারা সবাই দুর্নীতিতে জড়িত। 

আরও পড়ুন:


কাল থেকে সারাদেশে ইঞ্জিনচালিত রিক্সা-ভ্যান নিষিদ্ধ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

এবারও হচ্ছে না প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা

আমাদের লক্ষ্য বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করা: প্রধানমন্ত্রী


আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ও বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে সভায় অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. মাহবুব উল্লাহ, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

লুটপাটতন্ত্রের মূলহোতা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

অনলাইন ডেস্ক

লুটপাটতন্ত্রের মূলহোতা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির আন্দোলনে জনগণ সাড়া দেবে না। তারা জনগণের জন্য কিছুই করেনি। বিএনপি মানুষের ভাগ্যোন্নয়ন চায় না। তারা নিজেদের পকেট ভারী করতে চায়। লুটপাটতন্ত্রের মূলহোতা বিএনপি।

রোববার (২০ জুন) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ১৫ আগস্টের কুশীলব ছিলেন জিয়াউর রহমান। জিয়াউর রহমান নিজ কর্মের কারণেই ইতিহাসের কাঁঠগড়ায়।

বিএনপির সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা পেছন থেকে দেশকে টেনে ধরতে চায়, তারা চিরকালই জনবিচ্ছিন্ন থাকবে। বিএনপি নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে চায়। তারা সরকারের উন্নয়ন দেখতে পায় না। দিনের আলোতেও অন্ধকার দেখে তারা। এতো উন্নয়নের কারণেই তাদের গাত্রদাহ শুরু হয়েছে।

দলের নেতাদের ইঙ্গিত করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, চিহ্নিত অপরাধী, চাঁদাবাজ, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও বিতর্কিত ব্যক্তিদের কোনো অবস্থাতেই দলে টানা যাবে না। ত্যাগীদের মূল্যায়ণ করতে হবে।

আরও পড়ুন


আমাদের লক্ষ্য বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করা: প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরীর জামিন আপিল বিভাগে স্থগিত

দ্বিতীয় বিয়ের খবর প্রকাশের আগেই পাওয়া গেল শখের অন্তঃসত্ত্বার খবর

‘মিঠুন ছিলেন গরীবের অমিতাভ বচ্চন’


অক্ষরে অক্ষরে সব সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে সুদৃঢ় ঐক্য ফিরিয়ে আনতে হবে।’

দলের মধ্যে কোনো বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দুর্নীতি ও অপকর্মের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। অথচ অপকর্মের জন্য বিএনপি আমলে তাদের নেতাদের কোনো বিচারের মুখোমুখি হতে হতো না।

বর্ধিত সভায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজমও নেতাদের উদ্দেশ্যে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তৃতা করেন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

সাতক্ষীরার মানুষের জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে: ড. কাজী এরতেজা হাসান

অনলাইন ডেস্ক

সাতক্ষীরার মানুষের জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে: ড. কাজী এরতেজা হাসান

সাতক্ষীরার প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে সকলকে সঙ্গে নিয়ে  সাধারণ মানুষের উপকারে একসঙ্গে কাজ করতে হবে বলে মনে করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, ভোরের পাতা সম্পাদক ও প্রকাশক এবং এফবিসিসিআই পরিচালক ড. কাজী এরতেজা হাসান, সিআইপি।

শনিবার (১৯ জুন) সন্ধ্যায় ভোরের পাতা সম্পাদকের গুলশান অফিসে সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমন হোসেন দেখা করতে আসলে তাকে এ কথা বলেন ড. কাজী এরতেজা হাসান। এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় ড. কাজী এরতেজা হাসানের সাথে সাক্ষাত করেন সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান আশিক।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমনকেও ড. কাজী এরতেজা হাসান বলেন, করোনাকালীন সময়ে সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের পাশে থাকবেন। 

দীর্ঘ সময় ধরে ড. কাজী এরতেজা হাসানের সঙ্গে একান্তে বৈঠক করেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমন হোসেন। এসময় ড. কাজী এরতেজা হাসান ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের নানা সমস্যার কথা শুনেন এবং সেগুলো নিরসনে সর্বোচ্চ সহযোগিতার আশ্বাস দেন। 

বিশেষ করে করোনাকালীন সময়ে ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মীর বিপদের সময় পাশে থাকবেন। এছাড়া জেলা রাজনীতির নানাদিক নিয়ে কথা বলেন তারা।

আরও পড়ুন


আগামি মাসে পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের চুক্তি হতে পারে: রাশিয়া

ভাল থাকুক বিশ্বের সকল বাবা, যেভাবে দিবসটির শুরু

বিএনপি থেকে শফি আহমেদ চৌধুরীকে বহিষ্কার

ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট রায়িসিকে অভিনন্দন জানাল হামাস


ড. কাজী এরতেজা হাসান সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের প্রতি অনুরোধ করে বলেন, সাংগঠনিক কাঠামো অনুযায়ী অতি দ্রুত পূর্ণাঙ্গ করতে হবে। এক্ষেত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের নেতাকর্মীদের মূল্যায়ণ করারও তাগিদ দেন। 

করোনাকালীন সময়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার জন্য জেলা ছাত্রলীগের সবাইকে আহ্বান জানান ড. কাজী এরতেজা হাসান। 

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে সীমান্তবর্তী জেলা হিসাবে সাতক্ষীরাতে অবস্থা বেশ নাজুক। এ পরিস্থিতিতে জেলা ছাত্রলীগ বরাবরের মতোই অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। 

সাক্ষাত শেষে সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমন হোসেনকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রথম হস্তলিখিত সংবিধান উপহার দেন ড. কাজী এরতেজা হাসান।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর