নওগাঁয় বিদেশি ফল রক মেলন চাষের উজ্জল সম্ভাবনা

বাবুল আখতার রানা, নওগাঁ

নওগাঁয় বিদেশি ফল রক মেলন চাষের উজ্জল সম্ভাবনা

নওগাঁর বরেন্দ্র এলাকা হিসেবে খ্যাত সাপাহার উপজেলার গোয়ালা আটানিপাড়া মাঠে হোসনে মাহফুজ শিবলী নামে এক তরুণ উদ্যোক্তা সৌদি ও থাইল্যান্ডের বিখ্যাত ফল রক মেলন চাষ করে এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। জেলায় প্রথমবারের মতো ফলটি পরীক্ষামূলক ভাবে চাষ করে আশাব্যাঞ্জক ফলাফল পেয়েছেন তিনি। আগামী বছর তিনি বাণিজ্যিক ভাবে এই ফল চাষাবাদ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন।

তরুণ উদ্যোক্তা হোসনে মাহফুজ শিবলী জানান, ঢাকা কমার্স কলেজ থেকে তিনি অর্থনীতি বিষয়ে অনার্স সমাপ্ত করেন। পড়াশোনা শেষে দীর্ঘদিন ধরে রাজধানী শহরেই ব্যবসা বাণিজ্য করছিলেন। ইতোমধ্যে সাপাহার উপজেলায় আমসহ বিভিন্ন ফল উৎপাদনে কৃষিতে নীরব বিপ্লব শুরু হয়।

অল্প সময়ে দেশের মানুষের নিকট আমের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে সাপাহার উপজেলা পরিচিতি লাভ করে। প্রতিযোগিতামুলক ভাবে এখানে ফল বাগান তৈরীর হিড়িক পড়ে যায়। এসব দেখে তিনি নতুন কিছু করার পরিকল্পনা মাথায় নিয়ে মা মাটির টানে শহর ছেড়ে নিজ এলাকায় ফিরে আসেন।

উপজেলার গোয়ালা আটানীপাড়া মাঠে পৈতৃক সূত্রে পাওয়া বেশ কয়েক একর জমিতে ধান চাষ না করে তিনি উন্নত জাতের আম বাগান তৈরী করেন। সেই আম বাগানের মধ্যে এক একর জমিতে পরীক্ষামুলক ভাবে তিনি সাথী ফসল হিসেবে বিদেশি ফল ও বিদেশি সবজির চাষের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। সখের বসে তিনি চীন থেকে তার এক বন্ধুর মাধ্যমে হলুদ তরমুজ বীজ ও দেশের চুয়াডাঙ্গা, বগুড়া ও ঢাকা থেকে রক মেলন ফলের চারা সংগ্রহ করেন এবং তার জমিতে রোপন করেন।

বর্তমানে তার ওই এক একর জমিতে থাইল্যান্ডের বিখ্যাত ফল রক মেলন চাইনিজ হলুদ তরমুজ, সাদা ও কালো স্কোয়াস, লাল, সবুজ, হলুদসহ বিভিন্ন রংয়ের ক্যাপসিকাম চাষ করা হয়েছে। তবে বাগানে সবজির তুলনায় বিদেশি ফল রক মেলন আশাব্যঞ্জক ভাবে উৎপাদিত হয়েছে।

চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ফল ক্যান্সার রোগ প্রতিরোধে বিশেষ অবদান রাখে। স্বাদ ও গন্ধে ফলটি অত্যন্ত আকর্ষণীয়। পর্যাপ্ত পরিমাণ বিটা ক্যারোটিন রয়েছে যা কমলার চেয়ে ২০ ভাগ বেশি। এছাড়া প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি আছে ফলটিতে। আরও আছে পটাশিয়াম, ফলিক অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, জিংক, কপার, ম্যাঙ্গানিজ, ম্যালেনিয়াম বিদ্যমান। এ ফল মানবদেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। নতুন এই ফল চাষে খরচ অন্য ফলের মতই হয়।

আরও পড়ুন


সেহেরিতে ভাত খাওয়া নিয়ে দ্বন্দ্ব, ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

আপনাদের কপাল ভালো মন্ত্রী হয়েছেন, তাই বলে বিচার পাবো না: কাদের মির্জা

দেশের বিচার বিভাগ এখন সম্পূর্ণ স্বাধীন ভাবে কাজ করছে: কাদের

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহিংসতা: আরও ২৪ হেফাজতকর্মী গ্রেপ্তার


বর্তমান বাজারে তরমুজ বঙ্গির চাইতে কয়েক গুন চাহিদা ও মুল্য বেশী থাকায় আগামী দিনে এই বিদেশি ফল চাষে আশপাশের কৃষকদের মাঝে বেশ আগ্রহ উদ্যোগ সৃষ্টি হয়েছে। শিবলীর বাগানে রোপনকৃত আম গাছের চারার মাঝের সারিতে হালকা মাচার উপর লতানো গাছে ধরে আছে সাদা সাদা রক মেলন ফল। প্রতিটি ফল এক কেজি থেকে তিন কেজি পর্যন্ত ওজন হয়েছে। ইতোমধ্যে তার বাগানে রক মেলন ফল পাকতে শুরু করেছে। এক সপ্তাহের মধ্যে তিনি বাজারজাত করতে পারবেন। 

তরুণ উদ্যোক্তা শিবলী তার অভিমত ব্যক্ত করে বলেন, বিদেশী এই ফল ও সবজি চাষে যদি সরকারীভাবে তাকে সহযোগীতা দেয়া হয় তাহলে তিনি আগামীতে বানিজ্যিক ভাবে রক মেলন চাষবাদ করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানী করতে পারবেন। তার মতে বরেন্দ্র ভূমির এই মাটিতে বিদেশী ফলটি খুব ভালোভাবে চাষাবাদ করা সম্ভব। এটি বছরে তিনবার চাষ করা যায়। দেশের সকল বাজারে ফলটির ব্যাপক চাহিদাও রয়েছে। তিনি আগামী মৌসুমের জন্য পর্যাপ্ত বীজ ও চারা উৎপাদন করবেন। কোন কৃষক বিদেশী এই ফল ও সব্জী চাষে আগ্রহী হলে তিনি তাকে সহায়তা ও পরামর্শ প্রদান করবেন বলেও জানিয়েছেন।

উপ-সহকারী উদ্ভীদ সংরক্ষন কর্মকর্তা আতাউর রহমান বলেন, বাঙ্গিজাতীয় এ বিদেশী ফলকে রক মেলন বলা হয়। সৌদি আরব ও আশপাশের দেশগুলোতে এ ফলের চাষ হলেও আমাদের দেশের বরেন্দ্র এলাকার মাটি ও আবহাওয়া ফলটির চাষাবাদ অনেকটা মানিয়ে নিয়েছে। তাই সাপাহার উপজেলার বরেন্দ্র মাটিতে এই ফল চাষের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় ২৪ ঘণ্টায় চারজনের মৃত্যু, বাড়লো লকডাউনের মেয়াদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

কুষ্টিয়ায় ২৪ ঘণ্টায় চারজনের মৃত্যু, বাড়লো লকডাউনের মেয়াদ

কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে চার জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে ৩৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১১২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন। 

তিনি জানান, মারা যাওয়া চার জনই কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাদের মধ্যে তিন জন কুষ্টিয়া সদর উপজেলার।

এদিকে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসায় কুষ্টিয়া পৌর এলাকায় চলমান লকডাউনের মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে আগামী ২৫ জুন পর্যন্ত করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম তথ্যটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন:


বাব-মা-বোনকে হত্যার পর ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে যা বলেছিলো মেহজাবিন

দুর্লভ আবাসিক পাখি ‘জল ময়ূর’

কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়ে ইসরাইলি সেনাদের মনোবল চাঙ্গা হবে না: হামাস

বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি


এর আগে গত ১১ থেকে ১৮ জুন পর্যন্ত কুষ্টিয়া পৌর এলাকায় সাত দিনের কঠোর বিধি-নিষেধ জারি করেন জেলা প্রশাসক। একইসঙ্গে জেলার মিরপুর উপজেলার মিরপুর পৌর এলাকাতেও লকডাউন চলছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

৩০ মামলার আসামি শীর্ষ সন্ত্রাসী রেজাউল করিম আটক

অনলাইন ডেস্ক

৩০ মামলার আসামি শীর্ষ সন্ত্রাসী রেজাউল করিম আটক

কুমিল্লা সীমান্তবর্তী কেরানী নগর এলাকায় ৩০টি মামলার আসামি শীর্ষ সন্ত্রাসী রেজাউল করিমকে আটক করেছে বিজিবি। 

এ সময় তার কাছ থেকে ১টি .৩২ বোর রিভলভার এবং ম্যাগাজিনসহ ০৪টি গুলি, ১৬ পিস ইয়াবা, নতুন ধরনের ভারতীয় “কৌটা মাদক” ১ প্যাকেট, ভারতীয় পরিচয়পত্র ৩টি, ভারতীয় ইউসিবি ব্যাংকের ডেবিট কার্ড ২টি, ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার কার্ড ৭টি, বাংলাদেশী নগদ টাকা এবং কাতারের ১০ দিরহাম উদ্ধার।

শীর্ষ সন্ত্রাসী রেজাউল ভারতে অবৈধভাবে অবস্থান করে বাংলাদেশে হত্যা, রাহাজানি এবং ধর্ষণের ন্যায় নানাবিধ অপকর্মে লিপ্ত থাকায় প্রায় ডজনখানেক হত্যা মামলাসহ অন্যান্য প্রায় ৩০টি মামলা চলমান রয়েছে।

আরও পড়ুন:


দুর্লভ আবাসিক পাখি ‘জল ময়ূর’

কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়ে ইসরাইলি সেনাদের মনোবল চাঙ্গা হবে না: হামাস

বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

আম কুড়াতে গিয়ে নারীর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

আম কুড়াতে গিয়ে নারীর মৃত্যু

রাজশাহীর চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে আম কুড়াতে গিয়ে সাপের কামড়ে সেফালী বেগম (৪০) নামে এক নারীরমৃত্যু হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত সেফালী উপজেলার ওই ইউনিয়নের চামাভান্ডার গ্রামের সরিকুল ইসলামের স্ত্রী।

সরিকুল ইসলাম বলেন, সেফালী ভোরে আম কুড়াতে গেছিলেন। এ সময় একটি বিষাক্ত সাপে তাকে কামড় দিলে স্বজনরা কবিরাজের কাছে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার আরও গুরুতর হলে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

প্রতি উপজেলায় মডেল মন্দির নির্মাণের দাবি

অনলাইন ডেস্ক

প্রতি উপজেলায় মডেল মন্দির নির্মাণের দাবি

দেশের প্রতিটি উপজেলায় মডেল মসজিদের মতো প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মাণের দাবি জানিয়েছে হিন্দু সম্প্রদায়ের সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট। শনিবার (১৯ জুন) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) সংবাদ সম্মেলন করে এমন দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, ‘২০২১-২২ অর্থবছরে হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য জনসংখ্যা অনুপাতে ২ হাজার ২৫৮ কোটি ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ করতে হবে এবং অতিরিক্ত ৫ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দ দিতে হবে, যা দিয়ে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মাণ করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জন্য চলমান প্রকল্প ও অন্যান্য খাতে ১৫ হাজার ৫৪ কোটি ৩ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। যার মধ্যে সংখ্যালঘুদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে মাত্র ২৯০ কোটি ৮ লাখ টাকা, যা মোট প্রকল্প বরাদ্দের ১ দশমিক ৯৩ শতাংশ। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বাস দেখানো হয়েছে ১১ দশমিক ৮ শতাংশ। সেই হিসাবে বরাদ্দ থাকার কথা ছিল ১ হাজার ৭৭৬ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।’

অন্যান্য দাবির পাশাপাশি জাতীয় হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, রথযাত্রায় এক দিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা করতে হবে। এছাড়া, হিন্দু ধর্মীয় বিধিবিধানের কোনো ধরনের পরিবর্তন করা যাবে না, করতে দেয়া হবেও না।

সংবাদ সম্মেলনে ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’ ও ‘বাঁচতে শেখা’ নামে দুটি এনজিওকে হিন্দু ধর্ম ও সমাজবিরোধী আখ্যা দিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি তোলা হয়।


আরও পড়ুনঃ

চীনের রাস্তায়-গলিতে সরকারদলীয় প্রচারণামূলক বিলবোর্ড

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’

বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগ মূহুর্তে যে কারণে বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন সালমান

চুরির দায়ে জেলে গেলেন ‘ক্রাইম পেট্রলের’ ২ অভিনেত্রী


এছাড়া, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে জাতীয় সংসদে ৬০টি সংরক্ষিত আসন ও পৃথক নির্বাচন ব্যবস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। সংবাদ সম্মেলনে একটি সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা এবং সংখ্যালঘু সম্প্রদায় থেকে একজনকে পূর্ণ মন্ত্রী নিয়োগের দাবি জানানো হয়।

আগামী ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে এসব দাবি বাস্তবায়নের সুস্পষ্ট ঘোষণা না দিলে হিন্দু সম্প্রদায় সারাদেশের প্রত্যেক জেলা-উপজেলায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলেও ঘোষণা দেন সংগঠনটির মহাসচিব।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

খুলনায় এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন

অনলাইন ডেস্ক

খুলনায় এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন

খুলনা জেলা ও মহানগরীতে আগামী মঙ্গলবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন ঘোষণা দিয়েছে জেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি। শনিবার দুপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভা শেষে কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. হেলাল হোসেন জানান, সম্প্রতি করোনা সংক্রমণের হার ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় এ লকডাউন দেওয়া হয়েছে। লকডাউন চলাকালে নিম্নআয়ের মানুষকে প্রয়োজন অনুযায়ী সহযোগিতা করা হবে।

সভায় প্রশাসনের কর্মকর্তা, স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর