ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪০০ টাকা ফেরত চাওয়ায় সংঘর্ষ, আহত ১৫
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪০০ টাকা ফেরত চাওয়ায় সংঘর্ষ, আহত ১৫

সংগৃহীত ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪০০ টাকা ফেরত চাওয়ায় সংঘর্ষ, আহত ১৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

চার বছর আগে ধার নেওয়া ৪০০ টাকা ফেরত চাওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক গ্রামের দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।  রোববার দিনগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের মৈন্দ গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ১১ জন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের মধ্যে দুজন একই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এবং একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, মৈন্দ গ্রামের মনসুর নামের এক ব্যক্তি একই গ্রামের কাসেম মিয়ার ছেলে সুমনকে গত চার বছর আগে ৪০০ টাকা ধার দিয়েছিলেন। রোববার রাত নয়টার দিকে স্থানীয় বাজারের চায়ের দোকানে সুমনের কাছে ওই টাকা ফেরত চাওয়া হলে সে দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এই নিয়ে সুমন ও মনসুরের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি হয়। তাৎক্ষণিক বাজারে উপস্থিত লোকজন এগিয়ে এসে বিষয়টি মীমাংসা করে দিলে তারা দুজনেই বাড়ি ফিরে যায়।

এ ঘটনার আধা ঘন্টার মধ্যেই সুমনের বাড়ির লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে মনসুরের বাড়িতে হামলা চালালে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। আহত একজনের দুই হাত ভেঙে যাওয়ায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।
news24bd.tv/আলী