১৯ সেপ্টেম্বর , বুধবার, ২০১৮

শিরোনাম

> বাংলাদেশ

>> অপরাধ

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

১২ সেপ্টেম্বর , বুধবার, ২০১৮ ২০:৫১:১১

ছিনতাইকারী ধরে পুরস্কার পেলেন এই তরুণী


ছিনতাইকারী ধরে পুরস্কার পেলেন এই তরুণী

ছিনতাইকারীকে ধরে পুরস্কার নিচ্ছেন অন্তরা।


বনশ্রীর বাসা থেকে যাত্রাবাড়ীতে আত্মীয়ের বাসায় যাচ্ছিলেন বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মী অন্তরা রহমান। যাত্রাবাড়ীর জনপদের রোডে রিক্সায় যাচ্ছিলেন। এ সময় একজন ছিনতাইকারী তার হাতের ব্যাগটি নিয়ে দৌড় দেয়।

ঢাকার রাস্তায় ছিনতাই নতুন ঘটনা নয়। অনেকেই এসব ঘটনায় আর সামনে এগোতে চান না।

ভয় না পেয়ে অন্তরা ছিনতাইকারীকে ধাওয়া করেন। কিছুদূর গিয়ে সেই ছিনতাইকারী একটি চলন্ত বাসে উঠে পড়লে অন্তরাও সেই বাসটিতে উঠে পড়েন। খবর বিবিসির

১৭ অগাস্টের এ ঘটনা সম্পর্কে অন্তরা রহমান বলেন, বাসটি খালি ছিল। আমি বাসে উঠে ড্রাইভারকে জিজ্ঞেস করলাম এখানে একটি লোক উঠেছে কি না। তারা বলে, আমাদের গাড়িতে ওঠে নাই। হয়তো পেছনের বাসে উঠেছে। কিন্তু পেছনের দিকে বসে থাকা একটি লোকের প্যান্ট দেখে আমার সন্দেহ হয়।

কাছে গিয়ে দেখি, সেই ছিনতাইকারী আমার ব্যাগের ওপর বসে আছে আর মোবাইলটা পায়ের নীচে রেখেছে। আমি তাকে ধরে চিৎকার করলেও বাস চালক বাসটি চালিয়ে যাচ্ছিল। চিৎকার শুনে কয়েকজন ছেলে এগিয়ে এসে বাসটি থামায়।

অন্তরা বলেন, তাকে ধরার পর চোর বলে আমাকে ছেড়ে দেন, আমি গতকালকেই কারাগার থেকে ছাড়া পেয়েছি। কিন্তু আমি মনে করলাম, গতকাল মুক্তি পেয়েই যে আজ অপরাধ করতে পারে, তাকে ছাড়লে অপরাধ হবে।

‌‘সবার সহযোগিতায় তাকে যাত্রাবাড়ী থানায় নিয়ে গেলাম। সেখানে আমি নিজেই বাদী হয়ে একটি মামলাও করলাম।’

এই সাহসিকতার পুরস্কারও পেয়েছেন অন্তরা রহমান।

মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ সভায় তাকে পুরস্কৃত করেছে পুলিশ।

ডিএমপি কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ছিনতাইকারী তাঁর ভ্যানিটি ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে গেলে তিনি নিশ্চুপ না থেকে অত্যন্ত সাহস নিয়ে ছিনতাইকারীকে ধাওয়া করে ধরে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। যা  প্রশংসনীয়। আশা করি এই সাহসী অন্তরার মত সকলে সাহসী হয়ে অপরাধের বিরুদ্ধে দাঁড়াবেন।

কিন্তু ছিনতাইকারীর পেছনে ধাওয়া করার সময় কোনো ভয় কি কাজ করেছিল?

অন্তরা রহমান বলেন, তখন এসব বিষয় মাথায় আসেনি। তখন শুধু আমার মনে হয়েছে, ওকে (ছিনতাইকারীকে) ধরতে হবে আর ওকে পুলিশে দিতে হবে।

এ সময় সেই ছিনতাইকারী নিজেকে ছাড়ানোর জন্য জোরাজুরি করছিল। কিন্তু অন্তরা কোনমতেই তাকে ছাড়েননি।

ডিএমপি মুখপাত্র মাসুদুর রহমান বলছেন, এই অর্থমূল্য হয়তো বড় কিছু নয়। কিন্তু এর মাধ্যমে আমরা সবাইকে উৎসাহিত করছি, যাতে সবাই নিজেরা এভাবে অপরাধীদের বিরুদ্ধে এগিয়ে আসে।

ঢাকায় একটি ল ফার্ম চাকরি করেন অন্তরা রহমান।

ঢাকার বনশ্রীতেই মা, ভাই-বোনের সঙ্গে তিনি বসবাস করেন। বাবা বিদেশে চাকরি করেন।

যখন পুলিশের পক্ষ থেকে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলো, তখনো তিনি জানেন না যে, কোন পুরস্কারের জন্য তাকে মনোনীত করা হয়েছে। ডিএমপি সদর দপ্তরে গিয়ে যখন পুরস্কার পাওয়ার কথা জানলেন, তিনি খুবই অবাক হয়েছিলেন।

আমার মনে হয়েছিল ছিনতাইকারীকে ধরতে হবে, তাকে পুলিশে ধরিয়ে দিতে হবে। কিন্তু আমি কখনো ভাবিনি, সেটা এতদূর হবে। সবার ভালোবাসা দেখে আমার ভেতর অনেক খুশী কাজ করছে। বলছেন অন্তরা রহমান।

তবে ছিনতাইকারীকে ধাওয়ার ঘটনায় বাসার লোকজন ভয় পেয়েছিল, যদি তার কোনো ক্ষতি হয়ে যেতো।

অন্তরা রহমান বলছেন, কিন্তু আমি এরকমই। ছোট বেলা থেকেই আমাকে কেউ টিজ করলে আমি রুখে দাঁড়াতাম। এরকম অন্যায় দেখলে আমি আবারো এভাবেই রুখে দাঁড়াব।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/ তৌহিদ)


কুকুরের কামড়ে আহত শর্ট
‘মন্ত্রীর পা ধরেও সড়কের কাজ শুরু করা যায় নি’
অস্ত্র মামলায় এক ব্যক্তির ১৭ বছরের জেল
বজ্রপাতে একই পরিবারের ৫ সদস্য আহত
নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল থেকে ৯ দালাল আটক
অপহরণের ৯দিন পর যুবক উদ্ধার
২৮ বছরের শিষ্যের সঙ্গে ৬২ বছরের গুরুর প্রেম!
ময়মনসিংহের মেয়ে অনশন করছে সাতক্ষীরায়!
চারটি নিষিদ্ধ কাজ করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী
নারীদের সাফল্য অর্জনে ওআইসির পুরস্কারের বিষয়ে আলোচনা
বিএনপি নেতা সোহেল গ্রেপ্তার
চাইলেন বাইকের চাবি, চালক দিলেন টান
খাস জমি দখল করে গড়ে উঠছে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র
'জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে অপপ্রচার'
আমরা ক্ষমতায় যেতে এখন প্রস্তুত: এরশাদ
প্রাক্তন ডিসি ও ইউএনও’র ৩ মাসের কারাদণ্ড
রাঙামাটি ডিসি বাংলোতে ড্রাগন ফলের ব্যাপক ফলন 
কটিয়াদী উপজেলা জামায়াত সেক্রেটারি আটক
অদ্ভুত ভাবনার সমীকরণ
টার্কি মুরগি পালনে ঝুঁকেছেন নাটোরের যুবকরা
কুকুরের কামড়ে আহত শর্ট
‘মন্ত্রীর পা ধরেও সড়কের কাজ শুরু করা যায় নি’
অস্ত্র মামলায় এক ব্যক্তির ১৭ বছরের জেল
বজ্রপাতে একই পরিবারের ৫ সদস্য আহত
নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল থেকে ৯ দালাল আটক
অপহরণের ৯দিন পর যুবক উদ্ধার
২৮ বছরের শিষ্যের সঙ্গে ৬২ বছরের গুরুর প্রেম!
ময়মনসিংহের মেয়ে অনশন করছে সাতক্ষীরায়!
চারটি নিষিদ্ধ কাজ করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী
নারীদের সাফল্য অর্জনে ওআইসির পুরস্কারের বিষয়ে আলোচনা
বিএনপি নেতা সোহেল গ্রেপ্তার
চাইলেন বাইকের চাবি, চালক দিলেন টান
খাস জমি দখল করে গড়ে উঠছে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র
'জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে অপপ্রচার'
সিরিয়ায় বিধ্বস্ত রুশ বিমান, ইসরায়েলকে দুষছে রাশিয়া
আমরা ক্ষমতায় যেতে এখন প্রস্তুত: এরশাদ
প্রাক্তন ডিসি ও ইউএনও’র ৩ মাসের কারাদণ্ড
রাঙামাটি ডিসি বাংলোতে ড্রাগন ফলের ব্যাপক ফলন 
চাকরির বাজারে প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে আসছে রোবট
কটিয়াদী উপজেলা জামায়াত সেক্রেটারি আটক
রবিকে বিটিআরসি’র গুরুদণ্ড!
রাষ্ট্রপতির হাতে পুরস্কার পাওয়া ছাত্রীকে গণধর্ষণ!
জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের স্টিকারযুক্ত মাইক্রোবাসে ৪ মণ গাাঁজা
ওমানের সালাম এয়ারকে শাহজালাল বিমানবন্দরে জরিমানা
নয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ করল বাবা!
দেহ ব্যবসা করতো র‌্যাম্প মডেল কান্তা
বসুন্ধরা নিয়ে এল স্বাস্থ্য সহনীয় মশার কয়েল 'এক্সট্রিম'
ওমানে সড়ক দুর্ঘটনা, ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু
৩০ দেশ পাড়ি দিয়ে হেঁটে হজে গিয়েছিলেন মহিউদ্দিন
পোশাক নিয়ে সমালোচনার মুখে জাহ্নবী কাপুর
আ.লীগ-বিএনপির ৪০০ নেতার শপথ
এখন ‌‘বয়ফ্রেন্ড’ জুটবে অ্যাপের মাধ্যমে
লোকাল বাসে ঘরে ফিরলেন মন্ত্রী তারানা! (ভিডিও)
জাম্বুরি পার্কে ১ ঘণ্টা হাঁটলেন গণপূর্তমন্ত্রী!
ইয়াবা সেবনে বাধা দেয়ায় মাকে হত্যা!
অরুণা বিশ্বাসের এ কী হাল!
ব্রিজের রেলিং ভেঙে হাতিরঝিল লেকে প্রাইভেটকার
ভাবির গোসলের গোপন ভিডিও ইমোতে, অতঃপর…
দুই স্কুল ছাত্রীকে বেত্রাঘাত 
প্রধানমন্ত্রীর প্রতীকী কবর খোড়া সেই মোকছেদ গ্রেপ্তার

সব খবর