নোয়াখালীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা: স্বামী আটক
নোয়াখালীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা: স্বামী আটক

নোয়াখালীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা: স্বামী আটক

Other

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে চরক্লার্ক ইউনিয়নের চর উরিয়া গ্রামে ‘যৌতুকের টাকার জন্য’ স্ত্রীকে বেধড়ক পিটিয়ে হত্যা করেছে স্বামী।

অপরদিকে, গৃহবধূ রুনা বেগমের মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সোমবার বিকেল চারটার দিকে ঘাতক স্বামীকে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

সোমবার সকালের দিকে নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ চিকিৎসাধীন অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে মারা যায়।

নিহত গৃহবধূ রুনা বেগম (২১), চরক্লাক ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মো.জামাল উদ্দিনের মেয়ে।


প্রতিদিন নতুন নারী লাগত তার, পরতেন ত্রিশ দিনে ৩০ সানগ্লাস

১৭ বছরের কিশোরীর পেটে ৪৮ সেন্টিমিটার লম্বা চুলের দলা

ছোট ভাই মাকে বলল,‘আপুকে পেছনের রুমে নিয়ে গেছে এক ভাইয়া

স্ত্রীকে সৌদি পাঠিয়ে ৮ বছরের মেয়েকে নিয়মিত ধর্ষণ করে বাবা


নিহতের চাচা সিরাজ বেপারী অভিযোগ করেন , একই ইউনিয়নের রাসেলের সাথে দুই বছর আগে তার ভাতিজির পারিবারিক ভাবে বিয়ে সম্পন্ন হয়। ওই সময় যৌতুক হিসেবে স্বামীকে ১ লাখ ২০হাজার টাকা দেওয়া হয়। পরে বিভিন্ন সময় ব্যবসা করার অজুহাতে টাকার কথা বলে রাসেল তার স্ত্রীকে চাপ প্রয়োগ এবং শারীরিকভাবে নির্যাতন করত। এসব বিষয় নিয়ে সামাজিকভাবে একাধিকবার বৈঠক হয়।

গত শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) যৌতুকের টাকার জন্য ফের সে তার স্ত্রীকে বেধড়ক মারপিট করে এবং লাথির আঘাতে রুনার নাড়ি ছিঁড়ে ফেললে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

চরজব্বর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহীম খলিল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত স্বামী পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

news24bd.tv তৌহিদ