পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না: ম্যাকরনকে রুহানি

অনলাইন ডেস্ক

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না: ম্যাকরনকে রুহানি

বায়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ডানে ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আর কোনো আলোচনা হবে না এবং এটিকে পুনরুজ্জীবিত করার একমাত্র উপায় আমেরিকার পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা বলে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। 

মঙ্গলবার রাতে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরনের সঙ্গে এক টেলিফোলাপে এ মন্তব্য করেন তিনি। 

এসময় তিনি আরও বলেন, পরমাণু সমঝোতাকে একটি বহুজাতিক চুক্তি। যা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাবের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক আইনে পরিণত হয়েছে। পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সুযোগ হাতছাড়া না করতে পাশ্চাত্যের প্রতি আহ্বান জানিয়ে রুহানি বলেন, একবার সুযোগ হাতছাড়া হয়ে গেলে পরিস্থিতি আরো জটিল রূপ নেবে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমেরিকার পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়া এবং তিন ইউরোপীয় দেশ তাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে না পারার পর ইরান পর্যায়ক্রমে নিজের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের গতি কমিয়ে দিয়েছে। আমেরিকা ও তিন ইউরোপীয় দেশ তাদের প্রতিশ্রুতিতে ফিরে এলে ইরানও পূর্ণ মাত্রায় এই সমঝোতা বাস্তবায়নে ফিরে যাবে।

আরও পড়ুন:


কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

আবারও ইকো ট্রেন চলবে ইরান-তুরস্ক-পাকিস্তানে

সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে বিজিবির অভিযান, বিপুল গোলাবারুদ উদ্ধার

দেনমোহর পরিশোধ না করে স্ত্রীকে স্পর্শ করা যাবে কি না?


প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, তার দেশ আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’কে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। কাজেই এ সংস্থার নির্বাহী বোর্ডে ইরানবিরোধী প্রস্তাব পাস হলে তা কূটনৈতিক প্রচেষ্টার অপূরণীয় ক্ষতি করবে।

টেলিফোনালাপে ফরাসি প্রেসিডেন্ট পরমাণু সমঝোতাকে বিশ্ব শান্তির জন্য অতি জরুরি উল্লেখ করে বলেন, সকল পক্ষকে এই সমঝোতায় পূর্ণ মাত্রায় ফিরিয়ে আনার জন্য সংলাপ চালিয়ে যেতে হবে। এজন্য তিনি দু’পক্ষকেই এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পরমাণু সমঝোতাকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য আরো বেশি প্রচেষ্টা চালাতে ইউরোপ প্রস্তুত রয়েছে।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চিঠি লিখে ভ্যাকসিন ফেরত দিলো চোর

অনলাইন ডেস্ক

চিঠি লিখে ভ্যাকসিন ফেরত দিলো চোর

ঘটনা ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের। জিন্দো জেনারেল হাসপাতালের স্টোররুম থেকে চুরি হয়ে গিয়েছিল ১,৭০০ করোনা ভ্যাকসিন। কিন্তু এরপর চিঠি লিখে সেই ভ্যাকসিন ফেরত দিয়েছে চোর।

জিন্দো সিভিল লাইন্স থানার সামনে ১,৭০০ ভ্যাকসিন এবং একটি চিঠি রেখে যায় সেই চোর। চোরের লেখা ওই চিঠিটি হিন্দিতে লেখা। ওই চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘দুঃখিত, আমি বুঝতে পারিনি যে এগুলি করোনার ভ্যাকসিন।’ 


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!


জিন্দো সিভিল লাইন্স থানা এলাকায় সিসিটিভি ফুটেজ দেখে চোরেদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

চোরের খোঁজে তল্লাশিও শুরু করেছে পুলিশ কর্মকর্তারা। যদিও চুরি যাওয়া ভ্যাকসিন ফিরিয়ে দিয়ে মানবিকতার পরিচয় দিল এই চোর।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

চেষ্টা করেও সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আটকাতে ব্যর্থ হয়েছি: ইসরাইলি যুদ্ধমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

চেষ্টা করেও সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আটকাতে ব্যর্থ হয়েছি: ইসরাইলি যুদ্ধমন্ত্রী

দিমোনা পরমাণু স্থাপনার কাছে আঘাতকারী সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রটি আটকানোর চেষ্টা করেও তারা ব্যর্থ হয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন ইসরাইলের যুদ্ধমন্ত্রী বেনি গান্তয। বৃহস্পতিবার তেল আবিবে তিনি এ স্বীকারোক্তি দিয়েছেন বলে টাইমস অব ইসরাইল জানিয়েছে।

গান্তয বলেছেন, “ক্ষেপণাস্ত্রটি ঠেকানোর জন্য চেষ্টা করা হয়েছিল যা ব্যর্থ হয়েছে। আমরা এখনো বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।”

এর আগে বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে ইসরাইলি সেনাবাহিনী জানায়, একটি ইসরাইলি জঙ্গিবিমানকে লক্ষ্য করে সিরিয়ার এস-২০০ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থেকে একটি এসএ-৫ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। ক্ষেপণাস্ত্রটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে ইসরাইলের চরম-গোপনীয় ও বহু বিতর্কিত দিমোনা পরমাণু স্থাপনার ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে আঘাত হানে। ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধান পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি এই স্থাপনায় পরিচালিত হয়।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!


ইসরায়েলি যুদ্ধমন্ত্রী দাবি করেন, এ ধরনের অতি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার ব্যাপারে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী সব সময় সতর্ক থাকে। স্পর্শকাতর স্থাপনাগুলোর নিরাপত্তা দিতে সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ সচেষ্ট রাখা হয়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভারতে করোনার দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে করোনার দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড

ভারতে করোনার দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ভারতে এক দিনে রেকর্ডসংখ্যক ২ হাজার ২৬৩ জন করোনায় মারা গেছেন। আর শনাক্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৩২ হাজার ৭৩০। এটি একটি বিশ্ব রেকর্ড। বিশ্বের কোনো দেশে এখন পর্যন্ত এক দিনে এত রোগী আগে কখনো শনাক্ত হয়নি।

ভারত সরকারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত ভারতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৮৬ হাজার ৯২০ জন।

এদিকে, রাজধানী নয়াদিল্লিসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যের হাসপাতালে একেবারেই অক্সিজেন নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এতে ভেঙে পড়েছে চিকিৎসা ব্যবস্থা। 

এ অবস্থায় দেশটিতে ট্রিপল মিউট্যান্ট বা তিনবার রূপ পরিবর্তনকারী তিনগুণ বেশি শক্তিশালী নতুন করোনার সন্ধান মিলেছে। যা টিকা নিলেও প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়।

করোনা প্রকোপের সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে ভারত। একদিনে সাড়ে তিন লাখের মতো মানুষ কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হওয়া বিশ্বে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। দিল্লি ছাড়াও, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব, ছত্তিশগড়, পশ্চিমবঙ্গসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যের অবস্থা সব থেকে খারাপ। অনেক স্থানে লকডাউন বা বিধিনিষেধ চলছে। তবুও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসছে না।


আরমানিটোলায় কেমিক্যাল গোডাউনের অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪, দগ্ধ ২০

করোনার ভয়ে ভারত ছাড়লো শাহরুখের পরিবার

রাহমানিয়া মাদ্রাসায় রাজনীতি ঢোকান বাবা আজিজুল, দখল করে রাখেন ছেলে মাওলানা মামুনুল, অভিযোগ শিক্ষকদের

ফর্মুলা দেবে রাশিয়া, করোনার টিকা উৎপাদন করবে বাংলাদেশ


অক্সিজেন না পেয়ে রোগীকে নিয়ে এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ছোটাছুটি খবরও জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যমগুলো। 

স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, যে পরিমাণ অক্সিজেন দরকার তার কিছুই নেই তাদের কাছে। চরম সংকটের কারণে দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। দুই হাজারের বেশি মানুষ প্রতিদিন মারা যাচ্ছেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাশিয়ায় নাভালনির সমর্থনে বিক্ষোভ, আটক প্রায় ২ হাজার

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়ায় নাভালনির সমর্থনে বিক্ষোভ, আটক প্রায় ২ হাজার

রাশিয়ায় অ্যালেক্সেই নাভালনির সমর্থনে বুধবার রাশিয়ার কয়েক ডজন শহরে বিক্ষোভ হয়েছে। এই বিক্ষোভে আটক করা হয়েছে ১ হাজার ৭০০ জনেরও বেশি বিক্ষোভকারীকে।

বার্তা সংস্থা এএফপির জানায়, বুধবার রাতে রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে রাস্তায় নেমে আসেন হাজার হাজার মানুষ। এসময় তারা নাভালনির মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ করেন। সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ হয়েছে দেশটির রাজধানী মস্কোতে।

একটি পর্যবেক্ষক সংগঠনের দাবি, বিক্ষোভে অংশ নেয়ায় রাশিয়ার ৯৭টি শহর থেকে অন্তত ১ হাজার ৭৮৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

সবচেয়ে বেশি ৮০৫ জন আটক হয়েছেন সেইন্ট পিটার্সবার্গ থেকে। শহরটিতে শক স্টিক (বৈদ্যুতিক শক দেয়া লাঠি) নিয়ে বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয়েছিল নিরাপত্তা বাহিনী।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন নাভালনির প্রেস সচিব কিরা ইয়ারমিশ। অননুমোদিত বিক্ষোভে অংশগ্রহণের আহ্বান জানানোয় তাকে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!


পুরোনো একটি মামলায় গত ফেব্রুয়ারিতে কারাগারে পাঠানো হয় অ্যালেক্সেই নাভালনিকে। বর্তমানে মস্কোর বাইরে একটি পেনাল কলোনিতে বন্দি রয়েছেন রুশ বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি।

সেখানে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে গত ৩১ মার্চ থেকে অনশন করছেন তিনি। এর ফলে তার শারীরিক অবস্থার গুরুতর অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

অনলাইন ডেস্ক

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সবচেয়ে বেশি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে ভারতেই। দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণ ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে দেশটির প্রতিটি রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার। এমতাবস্থায় দিল্লির হাইকোর্ট হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে যা করা লাগে, সেটাই করার নির্দেশ দিয়েছেন।

দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্রকে বলেন, অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে আপনারা সব উপায় খুঁজে দেখছেন না। ভিক্ষা করুন, ধার করুন বা চুরি করুন।

হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে না বলে এসময় সতর্ক করে দেয় হাইকোর্ট।

জরুরি পরিস্থিতির গুরুত্ব অনুধাবন করে সরকার কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় কেন্দ্রীয় সরকারকেও ভৎর্সনা করেন দিল্লি হাইকোর্ট।

ছুটির দিনেই এক জরুরি শুনানিতে আদালত এসব মন্তব্য করেন। বেশ কয়েকটি হাসপাতাল পরিচালনা করা বালাজি মেডিকেল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের আবেদনের প্রেক্ষিতে এই শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

বেনজেমা ভেল্কিতে লা লিগার শীর্ষে রিয়াল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন


বিচারপতি ভিপিন সাঙ্গি এবং রেখা পাল্লি বেঞ্চ এদিন কেন্দ্রের সমালোচনা করে বলেন, আপনারা কি দেখতে পাচ্ছেন না দেশে হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে?

তারা আরও বলেন, অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করার দায়িত্ব পুরোপুরি কেন্দ্রীয় সরকারের। প্রয়োজনে স্টিল এবং পেট্রোলিয়ামসহ অন্য শিল্পে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ করে তা মেডিকেল ব্যবহারের জন্য নিশ্চিত করতে হবে। হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ শেষ হয়ে আসছে আর স্টিল প্লান্টগুলো ঠিকই চলছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর