শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষদের উপচে পড়া ভিড়
শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষদের উপচে পড়া ভিড়

শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষদের উপচে পড়া ভিড়

অনলাইন ডেস্ক

সরকারের কঠোর লকডাউন শুরু কাল বুধবার থেকে। আগামি ৭ দিনের জন্য জরুরী সেবা ও পোশাক শিল্প ছাড়া সব কিছুই বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আর এর পর থেকেই যে যেভাবে পারে ছুটছে গ্রামের উদ্দেশে। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ট্রাকে অথবা পিকআপে চড়েই যাচ্ছেন নিজ গন্তব্যে।

মঙ্গলবার শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটে গিয়ে দেখা যায় ঘরমুখো মানুষের উপচে পড়া ভিড়। ঢাকা ছেড়ে দক্ষিণবঙ্গের হাজার হাজার যাত্রী ছুটছেন গ্রামের বাড়িতে।

দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া ঘাটে ভিড় করছেন যাত্রীরা। লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ থাকায় ফেরি ও ট্রলারযোগে গাদাগাদি করে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন হাজারো মানুষ।

আরও পড়ুন


‘যাদের কাছে জীবনের চেয়ে ধর্ম বড়, তাঁরা মেলায় গেছেন’

মামুনুল হকের শ্বশুরকে আ.লীগের কারণ দর্শানোর নোটিশ

এলাকা না ছাড়তে ব্যাংক কর্মচারীদের কড়া নির্দেশ

ব্যাংকে লেনদেন ৩টা পর্যন্ত, কাল থেকে সব বন্ধ


ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় শতশত যানবাহন। এ অবস্থায় ফেরি ও যাত্রী পারাপারে হিমশিম খেতে হচ্ছে কর্তৃপক্ষকে। ঘাটে অপেক্ষমান অনেক ট্রাক ও পিকআপেই দেখা যায় গাদাগাদি করে যাচ্ছেন যাত্রীরা। অনেকে আবার পিকআপে করে বাসার মালামাল নিয়ে অপেক্ষা করছেন।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক প্রফুল্ল চৌহান সাংবাদিকদের জানান, দক্ষিণবঙ্গের এ নৌরুটে যাত্রী ও যানবাহন পারাপারে ১৪টি ফেরি চলাচল করছে। লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় ফেরিতে চাপ বেড়েছে। কঠোর ‘লকডাউন’ ঘোষণায় রাজধানী ছেড়ে গ্রামের বাড়ি ছুটে যাচ্ছেন যাত্রীরা। এতে শিমুলিয়া ঘাটে সকাল থেকেই চাপ দেখা গেছে। ঘাটে অপেক্ষায় থাকা যানবাহনগুলো পর্যায়ক্রমে পারাপার করা হচ্ছে। তবে ছোট আকারের যানবাহনের সংখ্যাই বেশি।

news24bd.tv আহমেদ