গণ্ডারকে উল্টো করে ঝুলিয়ে ইগ নোবেল পুরষ্কার জিতলেন গবেষকেরা

অনলাইন ডেস্ক

গণ্ডারকে উল্টো করে ঝুলিয়ে ইগ নোবেল পুরষ্কার জিতলেন গবেষকেরা

একটি গণ্ডারকে উল্টো করে ঝুলিয়ে রাখলে তার কী প্রতিক্রিয়া হয় এই বিষয়ে গবেষণার জন্য এ বছরের ইগ নোবেল পুরষ্কার পেয়েছেন নামিবিয়ায় গিয়ে পরীক্ষা চালানো একদল বিজ্ঞানী। উদ্ভট বিভিন্ন বিষয় যা প্রথমে হাসির উদ্রেক ঘটায় এবং পরবর্তীতে ভাবতে বাধ্য করে এমন সব বিষয়কে বেছে নিয়ে এই ব্যঙ্গাত্বক পুরষ্কার দেওয়া হয়।

বিজ্ঞানভিত্তিক একটি রম্য পত্রিকা এ্যানালস অব ইমপ্রোব্যাবল রিসার্চ - এই ইগ নোবেল পুরস্কারটি দিয়ে থাকে। যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই পুরষ্কার দেওয়া হয়। এবং এখানে আসল নোবেল-পুরস্কারপ্রাপ্তরা এসেই ইগ নোবেল বিজয়ীদের পুরস্কার দেন। এবার অবশ্য করোনাভাইরাস মহারারির কারণে অনুষ্ঠানটি অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গণ্ডার সংক্রান্ত এই পরীক্ষাটি 'পরিবহন গবেষণা' ক্যাটাগরিতে ইগ নোবেল পুরস্কার পেয়েছে। বিষয়টি উদ্ভট ও হাস্যকর হলেও নামিবিয়ায় গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পশু চিকিৎসক রবিন র‍্যাটক্লিফ এবং তার সহকারীরা যে গবেষণাটি করেছেন - তাদের লক্ষ্য ছিল পরিষ্কার। 

তারা জানতে চেয়েছিলেন, প্রাণীদের যখন পায়ে দড়ি বেঁধে হেলিকপ্টারে করে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় - তা তাদের স্বাস্থ্যের ওপর কী প্রভাব ফেলে। এই পরীক্ষার জন্য ১২টি গণ্ডারকে ১০ মিনিট ধরে উল্টো করে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

রবিন র‍্যাটক্লিফ বলেন, আফ্রিকার প্রাণী সংরক্ষণের জন্য যারা কাজ করেন তাদের প্রায়ই এ কাজটা করতে হয়। কিন্তু কেউই এই প্রাথমিক গবেষণাটি করে দেখেননি যে, ওষুধ দিয়ে সংজ্ঞাহীন করা অবস্থায় একটি প্রাণীকে এভাবে উল্টো করে উড়িয়ে নিয়ে গেলে তাদের হৃদযন্ত্র বা ফুসফুসের কাজের ওপর কী প্রভাব পড়ে।

কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা নামিবিয়ার পরিবেশ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সাথে মিলে ঠিক এটাই পরীক্ষা করেছেন। অবশ্য তাদের গবেষণার ফলাফল আশাব্যঞ্জক। তারা দেখেছেন, প্রানীরা এই কঠিন পরিস্থিতি বেশ ভালোভাবেই মোকাবিলা করতে পারে। বিশেষত গণ্ডারের তেমন কোন অসুবিধাই হয় না।

আরও পড়ুন:

কোহলিকে নিয়ে নিজের গোপন তথ্য ফাঁস করলেন নায়িকা

টানা লোকসানে ভারতে ফোর্ডের কারখানা বন্ধের সিদ্ধান্ত

হিজাব ছাড়া নারীদের নিয়ে তালেবান কর্মকর্তার বিস্ফোরক মন্তব্য

পরীমণি অত্যন্ত মানবিক, তার ঋণ শোধ করা যাবে না: পরিচালক


এছাড়াও যারা পুরষ্কার পেয়েছে তাদের মধ্যে, একটি দল গবেষণা করেছেন ফুটপাতে আটকে থাকা চুইংগামের ভেতরে যে ব্যাকটেরিয়া থাকে - তা নিয়ে । আরেক দল গবেষকের বিষয় ছিল - সাবমেরিনের মধ্যে তেলাপোকার উপদ্রব নিয়ন্ত্রণের উপায় কী।

পুরস্কার হিসেবে ইগ নোবেলজয়ীরা পেয়েছেন একটি পিডিএফ প্রিন্ট-আউট - যা জোড়া দিয়ে তাদের নিজেদের ট্রফি বানিয়ে নিতে হবে। এছাড়াও ছিল নগদ অর্থ হিসেবে ১০ ট্রিলিয়ন ডলারের একটি জিম্বাবুয়েইয়ান জাল ব্যাংক নোট।

সূত্র- বিবিসি

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

নিজ পরিবারের নাতিসহ ৭ জনকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারলেন বাবা!

অনলাইন ডেস্ক

নিজ পরিবারের নাতিসহ ৭ জনকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারলেন বাবা!

পরিবারের অমতে বিয়ে করার জন্য দুই মেয়ে ও এক জামাই  এবং চার সন্তানকে পুড়িয়ে মারলো স্বয়ং বাবা। এমনই  অভিযোগ উঠেছে বাবার বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক আছেন অভিযুক্ত ওই বাবা মনজুর হোসাইন। নিহতরা হলেন, ফৌজিয়া বিবি (১৯), তার ৪ মাস বয়সী সদ্যজাত আহমদ, খুরশিদা বিবি, তার স্বামী মোহাম্মদ ফারুক এবং তাদের শিশুসন্তান সরফরাজ, ইয়াকুব ও শাহনেওয়াজ।

পাকিস্তানি দৈনিক ডন এক প্রতিবেদনে এমন কথা জানিয়েছে।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাতে পাকিস্তানের পাঞ্জাবে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে।  বাড়ির বাকি সদস্যদের মৃত্যু হলেও প্রাণে বেঁচে যান ফৌজিয়ার স্বামী মেহবুব। উক্ত ঘটনায় ফৌজিয়ার বাবা মনজুর হোসাইন ও তার বড়ছেলে সাবির হোসাইন বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ফৌজিয়ার স্বামী মেহবুব দৈনিক ডনকে জানান, ঘটনার সময় তিনি বাইরে ছিলেন। কাজ শেষে সকালে বাড়ি ফিরে আগুন দেখতে পান।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


 

জানা যায়, মুজাফফরগড়ের পীর জাহানিয়ান এলাকায় একই বাড়িতে স্বামী-সন্তানসহ থাকতেন দুই বোন ফৌজিয়া বিবি ও খুরশিদা বিবি। ১৫ মাস আগে ফৌজিয়া ভালোবেসে বিয়ে করেন মেহবুব আহমেদকে। এই বিয়ে নিয়ে শুরু থেকেই ক্ষিপ্ত ছিলেন ফৌজিয়ার বাবা মনজুর হোসাইন।

এই কারণেই এ নৃশংস হত্যাকাণ্ড বলে পুলিশের ধারণা। এই বিষয়ে পুলিশ তদন্ত করছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বিশ্বে আবারো বেড়েছে তেলের দাম

ডেস্ক রিপোর্ট

বিশ্বে আবারো বেড়েছে তেলের দাম

বিশ্ববাজারে ব্যারেলপ্রতি অপরিশোধিত তেলের দাম এক শতাংশ বেড়েছে।

ফলে এখন প্রতি ব্যারেলের দাম পরবে ৮৫ ডলার ৭৩ সেন্ট। সোমবার এসব তথ্য জানিয়েছে  রয়টার্স। বিশ্বজুড়ে চলাচলে নিষেধাজ্ঞা শিথিল হওয়া জ্বালানি খরচ বৃদ্ধিতে অবদান রাখবে  বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।


আরও পড়ুন

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

শরীরের ইমিউনিটির উপর বিশ্বাসী অভিনেত্রী করোনায় আক্রান্ত

অনিয়ন্ত্রিত পতিতাবৃত্তি বন্ধ করতে চান স্পেনের প্রধানমন্ত্রী

অবরোধ তুলে নিলো ঢাবি শিক্ষার্থীরা


তারা জানান, শুধু  যুক্তরাষ্ট্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য ‘গ্যাস-টু-অয়েল সুইচিং’ বছরের চতুর্থ প্রান্তিকে, দৈনিক সাড়ে চার লাখ ব্যারেল পর্যন্ত চাহিদা বাড়িয়ে দিতে পারে। অবশ্য এর সঙ্গে তাল মেলাতে উৎপাদনকারী দেশগুলোর তেল সরবরাহও বৃদ্ধি পেতে পারে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা নারী রুমেইশা

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা নারী রুমেইশা

কয়েক দিন আগে গিনেস বুকে নাম উঠেছে ২৪ বছর বয়সী বিশ্বের সব চেয়ে লম্বা নারীর। তিনি হলেন তুরস্কের রুমেইশা গেলগি। তার উচ্চতা সাত ফুট ০.৭ ইঞ্চি, অর্থাৎ প্রায় ২১৫.৬ সেন্টিমিটার।

রুমেইশা জন্মলগ্ন থেকেই ‘উইভার সিন্ড্রোম’ নামে রোগে আক্রান্ত। ‘উইভার সিন্ড্রোম’ এক ধরনের বিরল জিনগত রোগ, যার জেরে অস্বাভাবিক হারে বাড়তে থাকেন রোগাক্রান্ত ব্যক্তি। বিবিসি এবং আনন্দবাজার সূত্রে জানা যায়, বেশি লম্বা হওয়ার কারণে চলাফেরায় অসুবিধে হয় রুমেইশার। তাই হুইলচেয়ারই ব্যবহার করেন তিনি। তবে মাঝে মাঝে ওয়াকারে ভর দিয়ে হাঁটার চেষ্টাও করেন।


আরও পড়ুন

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

শরীরের ইমিউনিটির উপর বিশ্বাসী অভিনেত্রী করোনায় আক্রান্ত

অনিয়ন্ত্রিত পতিতাবৃত্তি বন্ধ করতে চান স্পেনের প্রধানমন্ত্রী

অবরোধ তুলে নিলো ঢাবি শিক্ষার্থীরা


তিনি বলেন, সমস্ত ধরনের অসুবিধাকে জয় করা সম্ভব। তবে তার জন্য নিজের বর্তমান অবস্থাকে মেনে নিতে হবে। নিজে কী পারি বা পারি না সেটা জানাও ভীষণ জরুরি।

২০১৪ সালে রুমেইশার বয়স যখন ১৮, তখনও বিশ্বের সব চেয়ে লম্বা মেয়ে হিসেবে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে তার নাম ওঠে।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত 

পরবর্তী খবর

ইরাক যুদ্ধের অন্যতম পরিকল্পনাকারী মারা গেছেন

অনলাইন ডেস্ক

ইরাক যুদ্ধের অন্যতম পরিকল্পনাকারী  মারা গেছেন

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলিন পাওয়েল মারা গেছেন। কোভিড পরবর্তী জটিলতায় ৮৪ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

দীর্ঘদিন মার্কিন সেনাবাহিনীতে শীর্ষ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এর পর ২০০১ সালে জর্জ ডব্লিউ বুশের আমলে প্রথম কোনো আফ্রিকান-আমেরিকান হিসেবে রাষ্ট্রসচিবের দায়িত্ব পান তিনি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে- আমরা একজন অসাধারণ এবং প্রেমময় স্বামী, বাবা, দাদা এবং একজন মহান আমেরিকানকে হারিয়েছি।

মার্কিন প্রশাসনের ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, কোভিড জটিলতায় ভোগা কলিন পাওয়েলের যত্নশীল চিকিৎসার জন্য আমরা চিকিৎসা কর্মীদের ধন্যবাদ জানাই। পাওয়েলকে দুই ডোজ টিকা দেয়া হয়েছিল বলেও জানানো হয় বিবৃতিতে।

আরও পড়ুন:


ইভ্যালিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের সর্বোচ্চ চেষ্টা করব: বিচারপতি মানিক

করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্ত

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে বিয়ে করলো তরুণী!

ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি


 

তিনি ১৯৮৭ থেকে ১৯৮৯ পর্যন্ত সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগান প্রশাসনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৯-তে সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচডব্লিউ বুশের অধীনে জয়েন্ট চিফ অফ স্টাফের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান কলিন পাওয়েল। আর ২০০১ সালে প্রেসিডেন্ট জুনিয়র বুশ তাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদে মনোনীত করেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

যুদ্ধ হলে ইসরাইলে হিজবুল্লাহ প্রতিদিন ২৫০০ রকেট ছুড়বে

অনলাইন ডেস্ক

যুদ্ধ হলে ইসরাইলে হিজবুল্লাহ প্রতিদিন ২৫০০ রকেট ছুড়বে

যদি যুদ্ধ শুরু হয়, তাহলে লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ প্রতিদিন অধিকৃত ভূখণ্ড লক্ষ্য করে ২ হাজার ৫০০ রকেট ছুড়তে পারবে। এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন ইসরায়েলের হোমফ্রন্ট কমান্ডের প্রধান উরি গরডিন।

ইসরায়েলের এই সামরিক কমান্ডারের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি।

উরি গরডিন বলেছেন, ‘গত মে মাসে গাজা উপত্যকায় ইসরায়েল হামলা শুরু করলে, সেখান থেকে প্রতিদিন গড়ে ৪০০'র বেশি রকেট ছোঁড়া হয়। যদি হিজবুল্লার সঙ্গে যুদ্ধ লাগে, তাহলে আমরা ধারণা করতে পারি, প্রতিদিন এর চেয়ে পাঁচগুণ বেশি রকেট ছোঁড়া হবে।’

আরও পড়ুন:


ফতুল্লায় সুজন ফকির হত্যাকাণ্ডে দুই ঘাতক গ্রেপ্তার

মন্দিরে হামলার ঘটনায় গোয়েন্দা সংস্থা নিয়ে প্রশ্ন রিজভীর

প্রেম করে বিয়ে করায় ৪ নাতি ও ২ মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা

বড় ভাই শেখ জামালের মতো সেনা অফিসার হতে চাইতো শেখ রাসেল: প্রধানমন্ত্রী


এর আগে, গত মার্চ মাসে এই কমান্ডার বলেছিলেন, হিজবুল্লার কাছে সর্বোচ্চসংখ্যক রকেট মজুদ আছে এবং যুদ্ধ শুরু হলে প্রতিদিন হিজবুল্লাহ গড়ে ২ হাজার রকেট ছুঁড়তে সক্ষম।

২০০০ এবং ২০০৬ সালে হিজবুল্লাহর সঙ্গে ইসরায়েলের যুদ্ধ হয়। এই দুই যুদ্ধেই ইসরায়েল লজ্জাজনক পরাজয় বরণ করে। 

হিজবুল্লাহ বারবার বলেছে, নতুন কোনো যুদ্ধে জড়ানোর ইচ্ছা তাদের নেই। তবে ইসরায়েল যদি যুদ্ধ শুরু করে তবে লেবাননকে রক্ষার ব্যাপারে তারা অঙ্গীকারাবদ্ধ রয়েছে।

news24bd.tv/তৌহিদ

পরবর্তী খবর