হাসপাতালে যেমন আছেন খালেদা জিয়া

অনলাইন ডেস্ক

হাসপাতালে যেমন আছেন খালেদা জিয়া

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার রক্তবমি বন্ধ হচ্ছে না। অসুস্থ খালেদা জিয়ার লিভার ট্রান্সপ্লান্ট করতে হবে। এ ছাড়া এন্ডোসকপি ও ক্লোনসকপিসহ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা দরকার। কিন্তু শারীরিক দুর্বলতার কারণে সেগুলোও করা সম্ভব হয়নি। পরীক্ষাগুলো করা গেলে তার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে চিকিৎসার বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, বৃহস্পতিবার এমনটাই জানান খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকরা। এভারকেয়ার হাসপাতালের বিভিন্ন সূত্র ও বিএনপি নেতাদের কাছ থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। 

টানা তিন দিন ধরে খালেদা জিয়ার রক্তবমি হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেনবলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া অত্যন্ত ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন। তার রক্তবমি বন্ধ হচ্ছে না। তাঁর শারীরিক অবস্থা মোটেও ভালো নেই। তিনি এতটাই অসুস্থ যে, তাঁকে দেশে আর চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হবে না। সর্বোচ্চ চিকিৎসা প্রয়োগের পরও দেশের হাসপাতালে ম্যাডামের স্বাস্থ্যের অবস্থার কোনো উন্নতি হচ্ছে না। চিকিৎসকরা আজকেও তাঁকে বিদেশে পাঠানোর তাগিদ দিয়েছেন। কিন্তু সরকার অনুমতি দিচ্ছে না। খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে শুধু নয়, তাঁকে জীবন থেকে নিশ্চিহ্ন করতেও উঠেপড়ে লেগেছে সরকার। 

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়া ইস্যুতে সর্বোচ্চ সতর্কতায় সরকার

এর আগে দুপুরে এক সমাবেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে স্লো পয়জন দেওয়া হয়েছিল কি না আমরা জানতে চাই। খালেদা জিয়ার বয়স ৭৫ বছরের বেশি। তাঁকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দিতে এক-এগারোর সময়ে যে চক্রান্ত শুরু হয়েছিল, এর অংশ হিসেবে একটি সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে পুরান ঢাকার পরিত্যক্ত কারাগারে দুই বছরের বেশি সময় আটক রাখা হয়েছিল। স্যাঁতসেঁতে কারাগারের কক্ষে ইঁদুর, চিকা ঘোরাঘুরি করত। পরে তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। সেখানে তাঁকে যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া হয়নি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান বলেন, বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য ম্যাডামের পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের সর্বমহলে সর্বোচ্চ আবেদন করা হয়েছে। সব ধরনের চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু সরকার নানা রকম আইনি দোহাই দিয়ে তাকে অনুমতি দিচ্ছে না। এটা তাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র বলে আমি মনে করি।

খালেদা জিয়ার সর্বশেষ অবস্থার বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি তার চিকিৎসকরা। তিনি ১৩ নভেম্বর থেকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

আইপি টিভির ব্যাপারে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

আইপি টিভির ব্যাপারে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

ব্যাঙ্গের ছাতার মতো আইপি টিভি কাম্য নয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে আইপি টিভির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

বিস্তারিত আসছে...

পরবর্তী খবর

কোয়ারেন্টিনে থাকা বিদেশফেরত কেউ পালালে ব্যবস্থা: স্বাস্থমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

কোয়ারেন্টিনে থাকা বিদেশফেরত কেউ পালালে ব্যবস্থা: স্বাস্থমন্ত্রী

স্বাস্থমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

কোয়ারেন্টিনের জন্য নির্ধারিত কোনো হোটেল থেকে বিদেশফেরত কেউ পালিয়ে গেলে ওই হোটেলের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


ফেসবুকে মন্ত্রীর পোস্ট, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা ক‌রি’


 

news24bd.tv/ তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ফেসবুকে মন্ত্রীর পোস্ট, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা ক‌রি’

অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুকে মন্ত্রীর পোস্ট, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা ক‌রি’

‘মন চাইছে আত্মহত্যা করি’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট।

‘মন চাইছে আত্মহত্যা করি’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আজ বেলা ১১টা ৩৯ মিনিটে এমন একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

স্ট্যাটাসটি নিয়ে ইতিমধ্যে তোলপার শুরু হয়েছে।

স্ট্যাটাসে তিনি লিখেন, ‘মন চাইছে আত্মহত্যা করি। একটি চেকে আমি ডিসেম্বর বাংলায় লিখেছি বলে কাউন্টার থেকে চেকটি ফেরত দিয়েছে। কোন দেশে আছি?’

তিনি বলেছেন, ‘কোনো প্রতিষ্ঠানকে খাটো করতে এই স্ট্যাটাস দিইনি। ভাষার মর্যাদা রক্ষায় এটি করেছি। কারণ, বাংলাদেশই একমাত্র ভাষাভিত্তিক রাষ্ট্র। ভাষার জন্যই এই রাষ্ট্রের জন্ম। আগে প্রযুক্তিগত দিক থেকে বাংলা কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও এখন সেই অবস্থা নেই।’

আরও পড়ুন:


এবার আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা


 

এদিকে, ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েই থেমে জাননি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তিনি স্ট্যাটাসে আসা নানা মন্তব্যের জবাবও দিয়েছেন। একই সঙ্গে এসব বিষয়ে সবাইকে প্রতিবাদ করতে বলেছেন। পোস্টটি প্রকাশের তিন ঘণ্টার মধ্যে ৭ হাজারের বেশি মানুষের প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

news24bd.tv/ তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ডিগ্রি না থাকলেও বাংলাদেশের কর্মীরা অত্যন্ত দক্ষ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ডিগ্রি না থাকলেও বাংলাদেশের কর্মীরা অত্যন্ত দক্ষ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফাইল ছবি

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি না থাকলেও বাংলাদেশের কর্মীরা অত্যন্ত দক্ষ। তারা খুব দ্রুততার সঙ্গে কাজ শিখে নিতে পারেন।

যুক্তরাষ্ট্র চেম্বার অব কমার্সের ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন।

হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আজ বৃহস্পতিবার (০২ ডিসেম্বর) তিনি এ কথা বলেন।

আরও পড়ুন


এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু আজ

প্রকাশ্যে কাউন্সিলর হত্যা: এবার ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রধান আসামি নিহত


ড. মোমেন বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের অবাধ সুযোগ রয়েছে। এখানে পয়সা বানানোর সুযোগও বেশি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি না থাকলেও বাংলাদেশের কর্মীরা অত্যন্ত দক্ষ। তারা খুব দ্রুততার সঙ্গে কাজ শিখে নিতে পারেন। সে কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়ীরা এখানে বিনিয়োগ করলে লাভবান হবেন বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান ও ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর

পাঠ্যপুস্তকে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র অন্তর্ভুক্তি চেয়ে হাইকোর্টে রিট

অনলাইন ডেস্ক

পাঠ্যপুস্তকে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র অন্তর্ভুক্তি চেয়ে হাইকোর্টে রিট

প্রতীকী ছবি

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠ্যপুস্তকে স্বাধীনতার ঘোষণা ও ঘোষণাপত্রের অন্তর্ভুক্তি চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট করা হয়।

আইনজীবী উত্তম লাহেড়ির পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী নাহিদ সুলতানা যুথী ও এবিএম শাহজাহান আকন্দ মাসুম এ রিট দায়ের করেন।

আরও পড়ুন


এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু আজ

প্রকাশ্যে কাউন্সিলর হত্যা: এবার ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রধান আসামি নিহত


রিটে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব ও আইজিপিসহ ১০ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

রিট আবেদনে স্বাধীনতার ঘোষণা ও ঘোষণাপত্র যারা অস্বীকার করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

news24bd.tv/ কামরুল 

পরবর্তী খবর