জনসনের টিকা যুক্তরাষ্ট্রে সাময়িক স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক

জনসনের টিকা যুক্তরাষ্ট্রে সাময়িক স্থগিত

জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নেয়ায় বেশ কয়েকজনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। এজন্য টিকাটি সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। জানা যায়, টিকা নেয়ার পর বেশ কয়েকজনের শরীরে রক্ত জমাট বেঁধে গেছে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে এমন খবরে আগেই সতর্ক অবস্থানে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইউরোপীয় ইউনিয়নেও (ইইউ)। তারাও এই টিকার প্রয়োগ সাময়িক স্থগিত ঘোষণা করেছে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে এই টিকা নেওয়ার পর এখন পর্যন্ত মোট ছয় জনের শরীরে রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা ঘটেছে। তবে ইইউ ও দক্ষিণ আফ্রিকায় এমন ঘটনার এখনো ঘটেনি। বিষয়টির ওপর নজর রাখছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) জানিয়েছে, জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নেয়ার পর দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট ছয়জন রক্ত জমাট বেঁধেছে। এই ঘটনার শিকার সবাই নারী এবং তাদের বয়স আঠারো থেকে আটচল্লিশের মধ্যে।

আরও পড়ুন


রোজা মানে শুধু না খেয়ে থাকা না, সুদ, ঘুষ থেকেও বিরত থাকা

সাতক্ষীরায় বাঘের আক্রমণে মৌয়াল আহত

উত্তরায় ৬ তলা ভবনের ছাদ থেকে পড়ে গৃহকর্মীর মৃত্যু

দেশবাসীকে নববর্ষ ও রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের


ফুড অ্যান্ড ড্রাগ বিভাগের বায়োলজিক ইভ্যালুয়েশন অ্যান্ড রিসার্চ কেন্দ্রের পরিচালক ডা. পিটার মার্কস এবং সরকারি রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের প্রধান উপপরিচালক ডা. অ্যানি স্চুচ্যাট এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘অতি সাবধানতা অবলম্বনে আমরা এ টিকার ব্যবহার বন্ধ করছি। এ মুহূর্তে এই নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া খুব বিরল ঘটনা বলেই মনে হচ্ছে।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম টিকা সরবরাহ করেছিল জনসন অ্যান্ড জনসন। দেশটির মানুষকে এ টিকা দেয়ার পর এখনো রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ার কোনো ঘটনা জানা যায়নি। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকে দেশটির প্রায় তিন লাখ স্বাস্থ্যকর্মী জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নেন।

জনসন অ্যান্ড জনসনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আমাদের নীতিমালা অনুসরণ করে স্বেচ্ছাসেবকের অসুস্থতার বিষয়টি পর্যালোচনা করা হচ্ছে। এটি মূল্যায়ন করছে স্বতন্ত্র ডেটা সেফটি মনিটরিং বোর্ড (ডিএসএমবি)। এ ছাড়া আমাদের নিজস্ব চিকিৎসকেরাও এ তথ্য মূল্যায়ন করবেন।’

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

ভারতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে দুই হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে দুই হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু

করোনার পাশাপাশি প্রাণঘাতি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের বিরুদ্ধেও লড়াই করছে ভারত। এরই মধ্যে দেশটিতে দুই হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া শনাক্ত হয়েছে গ্রিন, হোয়াইট ও ইয়োলো ফাঙ্গাস, যা উদ্বেগে ফেলেছে চিকিৎসকদের।

করোনা থেকে সেরে উঠতে থাকা রোগীরা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে। এরই মধ্যে ৩১ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে এই ফাঙ্গাসে, মৃত্যুর সংখ্যাও দুই হাজার একশ’র বেশি।

এই অবস্থায় দেশটিতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ইনজেকশনের চাহিদা কয়েক গুণ বেড়েছে। এরই সুযোগ নিচ্ছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। রোববার দেশটির রাজধানী নয়াদিল্লিতে এক চিকিৎসকের বাসায় অভিযান চালিয়ে কয়েক হাজার নকল ইনজেকশন জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আটকও হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

এদিকে মধ্যপ্রদেশের পর এবার পাঞ্জাবে এক ব্যক্তির দেহে গ্রিন ফাঙ্গাসের সংত্রমণ ধরা পড়েছে। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন

এর আগে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে হোয়াইট ও ইয়োলো ফাঙ্গাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। সাধারণত কোভিড থেকে সুস্থ হয়ে উঠা ব্যক্তিদের দেহে এসব ছত্রাকের সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে।

তবে করোনার চেয়েও এই ফাঙ্গাসে মৃত্যুহার বেশি হওয়ায় উদ্বিগ্ন দেশটির চিকিৎসকেরা।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ভারতে করোনা সংক্রমণ তিন মাসে সর্বনিম্ন

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে করোনা সংক্রমণ তিন মাসে সর্বনিম্ন

ধীরে ধীরে ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসছে। দেশটিতে প্রতিদিনই কমছে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৫৩ হাজার ২৫৬, যা গত ৮৮ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন। সোমবার (২১ জুন) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানায়।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন গেছেন ১ হাজার ৪২২ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় গত একদিনে মৃত্যু কমেছে দেড় শতাধিক।


আরও পড়ুনঃ


রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন


করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৯৯ লাখ ৩৫ হাজার ২২১ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৮৮ হাজার ১৩৫ জন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

করোনারোধে অন্তর্নিহিত শক্তির উৎস যোগব্যায়াম: মোদি

অনলাইন ডেস্ক

করোনারোধে অন্তর্নিহিত শক্তির উৎস যোগব্যায়াম: মোদি

করোনা মহামারিতে যোগব্যায়াম মানুষের মধ্যে অন্তর্নিহিত শক্তির উৎস হিসেবে কাজ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সপ্তম আন্তর্জাতিক যোগব্যায়াম দিবসে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে সোমবার একথা বলেন মোদি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

মোদি বলেন, যখন করোনাভাইরাস ছড়ায় তখন কোনো দেশই তৈরি ছিল না। সেই সময় অন্তর্নিহিত শক্তির জাগরণ ঘটিয়েছে যোগব্যায়াম। মানুষকে বিশ্বাস তৈরি করেছে তারাও করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সক্ষম।

করোনা মোকাবিলায় যোগব্যায়ামকে ‘অস্ত্র’ বলার পাশাপাশি ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে যোগের সম্পর্কের কথাটিও এ দিন মনে করিয়েছেন মোদি। মহামারির সময়ে যোগব্যায়াম নিয়ে মানুষের উৎসাহ বেড়েছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।


আরও পড়ুনঃ


রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন


তিনি বলেন, বিশ্বের অধিকাংশ দেশেই যোগব্যায়াম দিবস আদি পরম্পরা নয়। অনেকে এটাকে অবহেলা করেছেন, ভুলে গিয়েছেন। কিন্তু এই কঠিন সময়ে যোগব্যায়াম নিয়ে মানুষের উৎসাহ এবং ভালবাসা বেড়েছে।

দুর্বলতাকে শক্তিতে, নেতিবাচকতাকে ইতিবাচকতায় পরিণত করতে যোগব্যায়াম সাহায্য করেছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ইরাকে আবারও মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে রকেট হামলা

অনলাইন ডেস্ক

ইরাকে আবারও মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে রকেট হামলা

ইরাকের পশ্চিমাঞ্চলীয় আনবার প্রদেশে মার্কিন অধিকৃত একটি সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে রকেট হামলা হয়েছে। ইরাকে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে দেশটির প্রতিরোধকামী সংগঠনগুলো গত কয়েক মাস ধরে যে হামলা চালিয়েছে তার অংশ হিসেবে এই রকেট হামলা চালানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

একজন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যের বরাত দিয়ে পার্সটুডে জানায়, আইন আল-আসাদ সামরিক ঘাঁটিতে একটি কাতিউশা রকেট আঘাত হানে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটে নি।

কোনো গোষ্ঠী বা সংগঠন এই রকেট হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেনি এবং রকেট হামলার কারণে ঘাঁটির বিশেষ কোনো ক্ষতি হয়েছে বলেও খবর পাওয়া যায় নি।


আরও পড়ুনঃ

পদ্মা সেতুতে রেলপথের স্ল্যাব বসানো সম্পন্ন

যেসব এলাকায় আজ ২৪ ঘন্টায় গ্যাস থাকবে না

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু


একই সময়ে সালাহউদ্দিন প্রদেশ ও বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর লাগোয়া এলাকার মার্কিন সামরিক অবস্থানে রকেট হামলা হয়েছে। এসব হামলার জন্যও কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠী দায়িত্ব স্বীকার করে নি তবে যুক্তরাষ্ট্র সাধারণত মার্কিন-বিরোধী ইরাকি প্রতিরোধকামী সংগঠনগুলোকে দায়ী করে থাকে।

এদিকে, ইরাকে মোতায়েন মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে হামলা সম্পর্কে নির্ভরযোগ্য তথ্য দিতে পারলে ৩০ লাখ ডলার পুরস্কার দেয়া হবে বলে ১০ দিন আগে ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর নতুন করে আইন আল আসাদ ঘাঁটিতে এই হামলা হলো।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র নতুন নিষেধাজ্ঞা প্যাকেজের পরিকল্পনা করছে বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেক সুলিভান। গতকাল রবিবার (২১ জুন) মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জেক সুলিভান এ কথা জানান।

রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনিকে জেল দেয়ার ঘটনায় এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সুইজারল্যান্ডের জেনেভা শহরে বৈঠক করার কয়েকদিন পর সম্ভাব্য এই নিষেধাজ্ঞার কথা জানালেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা।

গত ১৬ জুন জেনেভা শহরে পুতিন ও বাইডেন শীর্ষ বৈঠক করেন। বৈঠকের পর রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত নতুন করে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে গেছেন। ওয়াশিংটন এবং মস্কোর মধ্যে সম্পর্কের মারাত্মক অবনতি ঘটার পর গত মার্চ মাসে রুশ রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়।


আরও পড়ুনঃ

ভাল থাকুক বিশ্বের সকল বাবা, যেভাবে দিবসটির শুরু

বিএনপি থেকে শফি আহমেদ চৌধুরীকে বহিষ্কার

ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট রায়িসিকে অভিনন্দন জানাল হামাস

বিশেষ ট্রেন চালু, মাত্র এক ঘণ্টাতেই ঢাকা-গাজীপুর


রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাওয়ার পর ধারণা করা হচ্ছিল- দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের নাটকীয় উন্নতি হয়েছে। কিন্তু রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন করে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পরিকল্পনার কথা প্রকাশ হওয়ার পর সেই ধারণা ভুল প্রমাণিত হল।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের আগস্ট মাসে নাভানলিকে নার্ভ গ্যাস প্রয়োগ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ ওঠে। সে সময় নাভানলি অভিযোগ করেছিলেন যে, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সরাসরি নির্দেশে তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। পুতিন এই অভিযোগ একেবারেই নাকচ করে দিয়েছেন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর