মুক্ত গণমাধ্যম দিবস আজ

অনলাইন ডেস্ক

মুক্ত গণমাধ্যম দিবস আজ

আজ ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে বা বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস। প্রতি বছর ৩ মে সারা বিশ্বে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস পালিত হয়। এবার দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘তথ্য জনগণের পণ্য’। 

১৯৯১ সালে ইউনেস্কোর ২৬তম সাধারণ অধিবেশনের সুপারিশ মোতাবেক ১৯৯৩ সালে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ৩ মে তারিখটিকে 'ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে' অথবা বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। এরপর থেকে বিশ্বব্যাপী সাংবাদিকগণ এ দিবসটি পালন করে আসছে।


সাবেক জামায়াত নেতা ব্যারিস্টার রাজ্জাক এখন এবি পার্টিতে

পূর্ণাঙ্গ ফল ঘোষণার আগেই মমতাকে মোদীর অভিনন্দন

অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন সাত এসপি


সাংবাদিকতার স্বাধীনতা ও মুক্ত গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠার মৌলিক নীতিমালা অনুসরণ, বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের স্বাধীনতার মূল্যায়ন, স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ প্রতিহত করার শপথ গ্রহণ এবং পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ক্ষতিগ্রস্ত ও জীবনদানকারী সাংবাদিকদের স্মরণ ও তাদের স্মৃতির প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয় এই দিবসটিতে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আজ মা দিবস

অনলাইন ডেস্ক

আজ মা দিবস

আজ আমাদের মা দিবস। জন্মদাত্রী মা, যার কল্যাণে পৃথিবীতে আলোর মুখ দেখা হয় সন্তানের। সেই মায়ের স্মরণে প্রতি বছর মে মাসের দ্বিতীয় রোববার ‘মা দিবস’ হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

দিবসটির মূল উদ্দেশ্য, মাকে যথাযথ সম্মান দেওয়া। যে মা জন্ম দিয়েছেন, লালন-পালন করেছেন, তাঁকে শ্রদ্ধা দেখানোর জন্য দিনটি পালন করা হয়।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ভিন্ন ভিন্ন তারিখে দিনটি পালন করা হয়। ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় রোববার নরওয়েতে, মার্চের চতুর্থ রোববার আয়ারল্যান্ড, নাইজেরিয়া ও যুক্তরাজ্যে। আর বাংলাদেশে মে মাসের দ্বিতীয় রোববার।


যাত্রীদের চাপ সামলাতে সব ফেরিঘাটে বিজিবি মোতায়েন

অবশেষে করোনামুক্ত হলেন খালেদা জিয়া

কাবুলে স্কুলের পাশে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৫৫


news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

যে লক্ষণগুলোতে বুঝবেন আপনি প্রেমে পড়েছেন

অনলাইন ডেস্ক

যে লক্ষণগুলোতে বুঝবেন আপনি প্রেমে পড়েছেন

প্রেমে পড়ার শুরুর দিকে দোটনায় থাকা খুবই সাধারণ ও স্বাভাবিক একটি বিষয়। মনের মধ্যে বারবার একটি প্রশ্ন উঁকি দেয়, আমি যাকে ভালোবাসি সেও কি আমাকে ভালোবাসে? একজনকে ভালো লাগার পর নিজের মনের কাছে জানতে চায়, এই অনুভূতি কি শুধুই ভালো লাগা, নাকি ভালোবাসা।

কীভাবে বুঝবেন আপনি প্রেমে পড়েছেন-

১. প্রতিমুহূর্তে আপনার প্রিয় ব্যক্তিটিকে হারিয়ে ফেলার ভয় পাবেন। সর্বক্ষণ আপনার মনে এই সংশয় ঘুরপাক খাবে। আপনি এমন কিছু করবেন না বা চাইবেন না মানুষটি এমন কিছু করুক, যাতে আপনি তাকে হারিয়ে ফেলেন। এই ভয়ের কারণেই উদ্ভট অনেক কিছু করে ফেলতে ইচ্ছা হতে পারে। এই হারানোর ভয় যদি আপনার মধ্যে থাকে, তাহলে সত্যি সত্যি আপনি প্রেমে পড়েছেন।

২. দেখার পর ভালো লাগার অনুভূতি জাগে এবং তাকে শুধু দেখতেই মন চায়।

৩.ভালো বা খারাপ সবই প্রথম তাকে জানাতে ইচ্ছে হয়।

৪. আপনি কোনো একজন মানুষের জন্য সবকিছু ত্যাগ করতে রাজি এবং আপনার এ জন্য কোনো আফসোসও হচ্ছে না। এর মানে আপনি সত্যি তাকে ভালোবাসেন এবং তার সঙ্গে জীবন কাটাতে চান।


সূরা আর-রাহমানের ফজিলত

দিনে ফেরি চলাচল বন্ধ

টিকা বিক্রি করে ফাইজারের মুনাফা ৪৯০ কোটি ডলার

প্রধানমন্ত্রী সময় মতো তাহাজ্জুত নামাজ পড়েন, কোরআন পড়েন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


৫. আপনি মানসিকভাবে অনেক সুখ অনুভব করেন, যখন তাকে খুশি দেখেন। তার মন রক্ষার জন্য আপনি সবকিছু করতে রাজি।

৬. আপনি মনে মনে ভাবছেন একটা মায়ার জালে ধীরে ধীরে আটকে যাচ্ছেন। কিন্তু এই জাল থেকে আপনি নিজেই মুক্তি পেতে চাচ্ছেন না। এটাই সত্যিকারের ভালোবাসার লক্ষণ।

৭. খেয়াল করবেন, ঘণ্টার প্রতিটি সেকেন্ডে সেকেন্ডে আপনি একজনের কথা ভাবতে থাকবেন। এই মুহূর্তে সে কী করছে? সে কেমন আছে? সে কী খেয়েছে? সে কি আপনাকে পছন্দ করে? আরও অনেক চিন্তা আপনার মনে আসবে। তবে এটা স্বাভাবিক। আপনি যদি তাকে সত্যিই ভালোবাসেন, তাহলে দেখবেন তার সঙ্গে কথা না বললে, তার কথা না ভাবলে যেন একটি দিনও পার হবে না। আপনি যতবার তাকে দেখবেন, আরও দেখতে ইচ্ছা করবে।

৮. একান্তে তাঁর সঙ্গে সময় কাটাতে চান।

৯. সে যেন আপনার মনের আয়না। ধীরে ধারে তাঁর মতো করেই ভাবতে, স্বপ্ন দেখতে, চিন্তা করতে শুরু করেন আপনি।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

চীনের উইঘুর ব্রাদার্সের সাথে সংহতি জানিয়ে ঢাকায় দোপা দিবস পালন (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক

চীনের জিনজিয়াংয়ের মুসলিম উইঘুরদের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে ৫ মে বুধবার ‘উইঘুর দোপা দিবস’ পালন করেছে ইত্তেহাদুল মুসলিমিন বাংলাদেশ।

ইত্তেহাদুল মুসলিমিন বাংলাদেশের ব্যানারে বিভিন্ন ইসলামী দল থেকে আলেম-উলামারা এতে অংশ নেন। দোপা একটি ঐতিহ্যবাহী টুপি, যা উইঘুররা তাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য পালন এবং রক্ষার জন্য পরিধান করে।

‘উইঘুর দোপা দিবস’ উপলক্ষে বক্তারা বলেন, আমরা আমাদের সব উইঘুর ভাই-বোনের কাছে এই বার্তা দিতে চাই যে বাংলাদেশের মুসলিম ভাই-বোনরা আপনাদের পাশে রয়েছে। এ সময় বক্তারা চীনা কমিউনিস্ট পার্টিকে উইঘুর গণহত্যা বন্ধ করার এবং বন্দিশিবির থেকে উইঘুরদের মুক্ত করার আহ্বান জানান।

আরও পড়ুন


খালেদা জিয়ার আবেদন যাচাই বাছাই করা হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

ইসলামে ‘মানবিক বিয়ে’ বলে কিছু নেই: ১২০০ আলেমদের বিবৃতি

লিবিয়ায় মাফিয়ার হাতে বন্দী মাদারীপুরের ২৪ যুবক, ভিডিও পাঠিয়ে টাকা দাবি

খালেদা জিয়ার আবেদন রাতেই পাঠানো হয়েছে আইন সচিবের কাছে


ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে উইঘুরদের সাংস্কৃতিক উৎসব ডোপা দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভায় এই আহ্বান জানান দলটির নেতারা।

চীনা পণ্য বয়কটের আহ্বান জানিয়ে তারা বলেন, চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুর মুসলিমদের হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে আগামী ২০২২ সালে অনুষ্ঠিতব্য বেইজিং অলিম্পিক বয়কটের দাবির পাশাপাশি চীনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার আহবান জানান।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

করোনা আক্রান্ত সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ

অনলাইন ডেস্ক

করোনা আক্রান্ত সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ

করোনা আক্রান্ত হয়েছেন  বিশিষ্ট সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ।  ৮৬ বছর বয়স্ক এই সাহিত্যিক করোনা আক্রান্ত হয়ে একটি হোটেল কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

জানা গেছে বেশ কিছুদিন ধরেই সর্দি কাশিতে ভুগছিলেন তিনি। তাছাড়াও বয়সজনিত কারণে বেশ কিছু অসুস্থতা রয়েছে তার। সামান্য নিউমোনিয়াও ধরা পড়েছে। কিন্তু তার স্বাদ গন্ধ মতন বিষয়গুলো সব ঠিক আছে। 

তবে বাড়িতে বড় মেয়ে ও গাড়ির চালক সহ সকলে একসঙ্গে কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় সামান্য উদ্বিগ্ন তিনি। তার পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তার শরীর আপাতত স্থিতিশীল। 

বুদ্ধদেব বাবুর উল্লেখযোগ্য উপন্যাস হল 'মাধুকারী', 'কোজাগর', 'অববাহিকা', 'বাবলি'। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ট্রয় নগরী দেখিনি র‌য়েল রি‌সোর্ট দে‌খে দু‌ধের স্বাদ ঘো‌লে মেটাব

মাসুদ ক‌রিম

ট্রয় নগরী দেখিনি র‌য়েল রি‌সোর্ট দে‌খে দু‌ধের স্বাদ ঘো‌লে মেটাব

আমি একবার তুরস্ক সফ‌রে গি‌য়ে‌ছিলাম। ট্রয় নগরীটা দে‌খে আসার খুব ইচ্ছা ছিল । হে‌লেন না‌মের পৃ‌থিবীর সেরা সুন্দরী‌কে নি‌য়ে যু‌দ্ধে ধ্বংস হ‌য়ে যায় ট্রয়। ঐ‌তিহা‌সিক নগরী দেখার ইচ্ছা অপূর্ণ থে‌কে যায়। সফরসূ‌চি‌তে ইস্তাম্বু‌লের বাই‌রে যাওয়ার কোনও সু‌যোগ ছিল না। তাই মি‌থের শহর দেখা হ‌লো না। ট্রয় নগরী তুর‌স্কের আনা‌তো‌লিয়া রা‌জ্যে অব‌স্থিত।

ইউ‌নে‌স্কো প্রাচীন ট্রয়‌কে বিশ্ব ঐ‌তিহ্য ঘোষণা ক‌রে‌ছে। অ‌নেক মানুষ হে‌লে‌ন‌কে ঘি‌রে প্রে‌মের লড়াই‌য়ে ধ্বংসযজ্ঞ দেখ‌তে ট্রয় যান।
‌হে‌লে‌নের ট্রয় নগরীর কথা বি‌শেষভা‌বে ফু‌টে ও‌ঠে মহাক‌বি হোমা‌রের দুই মহাকাব্য ‌‘ই‌লিয়াড’ ও ‘ও‌ডি‌সি’ তে যা গ্রিক মি‌থের অবলম্ব‌নে র‌চিত। কা‌হিনীটা খুব রোমাঞ্চকর। ফুটফু‌টে কন্যা হে‌লে‌নের জ‌ন্মের পর পরই রাজ জ্যো‌তি‌ষী ব‌লে‌ছিল, মে‌য়েটা পৃ‌থিবী‌তে আলোড়ন সৃ‌ষ্টি কর‌বে। জ্যো‌তি‌ষীর কথা অক্ষ‌রে অক্ষ‌রে ফ‌লে গেল। হে‌লেন হ‌য়ে ও‌ঠেন পৃ‌থিবীর সব‌চে‌য়ে সেরা সুন্দরী। দু‌নিয়া তার রূ‌পের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। গ্রি‌সের স্পার্টা রা‌জ্যের রাজা মে‌নেলা‌সের স‌ঙ্গে হে‌লে‌নের বি‌য়ে হয়। রাজা-রানী স্পার্টার রাজপ্রাসা‌দে সু‌খে শা‌ন্তি‌তে বাস কর‌ছি‌লেন।

ওই সম‌য়ে গ্রিক দেবী এ‌রিস অপর তিন দেবীর কা‌ছে উপহার হিসে‌বে একটা আ‌পেল পাঠান। তিন দেবী হ‌লেন- এ‌থেনা, হেরা, আ‌ফ্রো‌দি‌তি। এ‌রিস আ‌পে‌লের ওপর লে‌খেন ‘শ্রেষ্ঠ সুন্দরীর জন্য’ ।

এভা‌বে তিন দেবীর ম‌ধ্যে ঝগড়ার সৃ‌ষ্টি ক‌রেন । দেব‌-‌দেবীরা শ্রেষ্ঠ সুন্দরী বে‌ছে নি‌তে অপারগতা প্রকাশ কর‌লে তিন দেবী পৃ‌থিবী‌তে এ‌সে প্যা‌রিস না‌মের এক মানুষ‌কে শ্রেষ্ঠ সুন্দরী বে‌ছে দেবার দা‌য়িত্ব দেন। প্যা‌রিস হ‌লেন ট্রয় নগরীর রাজা প্রিয়াম ও রানী হেকবার পুত্র । প্যা‌রিস দেবী‌দের ম‌ধ্যে আফ্রো‌দি‌তি‌কে শ্রেষ্ঠ সুন্দরী ব‌লে ঘোষণা ক‌রেন । আ‌ফ্রো‌দি‌তি খু‌শি হ‌য়ে প্যা‌রিস‌কে বিরাট সক্ষমতা দান ক‌রেন যার ফ‌লে প্যা‌রিস পৃ‌থিবীর শ্রেষ্ঠ সুন্দরী‌র স‌ঙ্গে প্রেম কর‌তে সক্ষম হন । ওই সুন্দরী আর কেউ নন; স্পার্টার রাজা মে‌নেলা‌সের স্ত্রী হে‌লেন । প্যা‌রি‌সের প্রে‌মে হাবুডুব খে‌তে থা‌কেন হে‌লেন । প্রে‌মের এক পর্যা‌য়ে হে‌লেন স্পার্টার রাজপ্রাসাদ ছে‌ড়ে ট্র‌য়ের রাজপুত্র প্যা‌রি‌সের স‌ঙ্গে পা‌লি‌য়ে যান। ট্রয়ের রাজপ্রাসা‌দে ও‌ঠেন।


মামুনুল হক সম্পর্কে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

একদিনে ঝরল আরও ৫২ প্রাণ

দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড গড়ল করোনা

দেশে ফের করোনা শনাক্তের রেকর্ড


ক্রো‌ধের আগুন জ্ব‌লে ও‌ঠে স্পার্টার রাজা মে‌নেলা‌সের ম‌নে। স্পার্টার পা‌শের রাজ্য মাই‌সি‌নের রাজা ছি‌লেন মোনা‌লে‌সের ভাই আগা‌মেনন। তার স‌ঙ্গে বিষয়টা নি‌য়ে আলাপ ক‌রেন । তারা হে‌লেন‌কে ছি‌নি‌য়ে আন‌তে যু‌দ্ধের সিদ্ধান্ত নেন । হাজার হাজার যোদ্ধা নি‌য়ে সাগর পা‌ড়ি দি‌য়ে ট্রয় নগরী ঘি‌রে ফে‌লেন । ট্র‌য়ের মানুষ কিছু‌তেই হে‌লেন‌কে দি‌তে রা‌জি হয়‌নি। তুমুল যুদ্ধ হয় । দশ বছর চ‌লে যুদ্ধ। কেউ জয়ী হয়‌নি। শেষ পর্যন্ত ট্রোজান হর্স না‌মের একটা বিশাল কা‌ঠের ঘোড়া রে‌খে ‌দেয় স্পার্টার বা‌হিনী। ট্র‌য়ের বা‌সিন্দারা ম‌নে ক‌রেন মে‌নেলাস পরাজয় মে‌নে নি‌য়ে‌ছেন। উপহার হিসেবে দি‌য়ে‌ছেন কা‌ঠের ঘোড়া। তারা কা‌ঠের ঘোড়া ট্রয় নগরীরর মা‌ঝে রে‌খে দেন। তারপর ট্র‌য়ের বা‌সিন্দারা ঘুমা‌তে গে‌লে ট্রোজান হ‌র্সের ভেতর থে‌কে সৈন্যরা বে‌রি‌য়ে ট্র‌য়ের প্রায় সব মানুষ‌কে হত্যা ক‌রে। ধ্বংস ক‌রে ট্রয় নগরী।

ঐ‌তিহা‌সিক নগরী দেখার প্র‌তি আমার আগ্রহ র‌য়ে‌ছে । আমরা ক‌য়েকজন সাংবা‌দিক মি‌লে একবার ঢাকার কা‌ছে সোনারগাঁ‌য়ে ঐ‌তিহা‌সিক পানাম নগরী দেখ‌তে গি‌য়ে‌ছিলাম। এক হাজার বছ‌রের পুর‌নো সি‌টি । আমার খুব ভালো লাগল। পুর‌নো ঐ‌তিহ্য সংরক্ষ‌ণে বাংলা‌দেশ এ‌ক্ষে‌ত্রে স‌চেষ্ট হ‌য়ে‌ছে । 

পানাম নগরী দেখার পর আমরা সোনারগাঁ‌য়ের লোক ও কারু‌শিল্প জাদুঘর দেখলাম ।  সেখা‌নে দেখার অ‌নেক কিছু আ‌ছে । ভ্রমণপিপাসু মানুষ ঢাকার কা‌ছে ই‌তিহাস, ঐ‌তিহ্য জানার জন্য সোনারগাঁও‌কে বে‌ছে নি‌য়ে থা‌কেন। এটা একটা প্রাচীন রাজধানী । ‌ঢাকাই মস‌লি‌নের সূ‌তিকাগার । সূক্ষ স্বচ্ছ যে কাপ‌ড়ে বিশ্বব্যা‌পি রমনী‌দের দেহ‌সৌষ্ঠব প্রদর্শ‌নের জন্য আদৃত তার নাম মস‌লিন ।

আমরা বার‌দি গি‌য়ে উপমহা‌দে‌শের বাম আ‌ন্দোল‌নের প্রবাদ পুরুষ জ্যো‌তিবসুর বা‌ড়ি ঘু‌রে দেখলাম । লোকনাথ ব্রক্ষচা‌রির আশ্র‌মে গেলাম । লিচু বাগা‌নে গি‌য়ে পেট ভ‌রে খাবার পর বা‌ড়ির জন্য কিনলাম । সারা‌দিন ঘোরাঘু‌রির পর রা‌তে একটা রাজকীয় রি‌সো‌র্টে থাকলাম । র‌য়েল রি‌সোর্ট । মা‌লিক খুব সৌ‌খিন । রি‌সোর্ট নয় যেন প্রাচীন রাজপ্রাসাদ । বিলাস বহুল । আরাম আ‌য়ে‌শের উত্তম স্থান। 

সম্প্র‌তি এক‌টি প্রে‌মের ঘটনার উত্তা‌পে ওই রি‌সোর্ট ধ্বংসয‌জ্ঞে প‌রিণত হ‌য়ে‌ছে । আমার খুব আফ‌সোস হ‌লো । আ‌মি ভাবলাম, প্রে‌মের উত্তা‌পে পু‌ড়ে যাওয়া ট্রয় নগরী দেখ‌তে না পার‌লেও র‌য়েল রি‌সোর্ট দে‌খে দু‌ধের স্বাদ ঘো‌লে মেটাব । কিন্তু লকডাউ‌নের কার‌ণে যে‌তে পারলাম না । র‌য়েল রি‌সো‌র্টের মা‌লিকরা ওই সব ধ্ব‌সের চিহ্ন সংরক্ষণ কর‌লে উৎসুক পর্যটকরা সেখা‌নে গি‌য়ে তা দেখ‌বেন । আগ্রায় সম্রাট শাহজাহান প্রে‌মের স্মৃ‌তি ধ‌রে রাখ‌তে তাজমহল বা‌নি‌য়ে‌ছেন । ভালোবাসার ইমারত, প্রে‌মের স্মৃ‌তি‌সৌধ । অ‌নে‌কে সেখা‌নে যে‌তে পা‌রেন না । সে অভাব পূরণে র‌য়েল রি‌সো‌র্টের অদূ‌রে তাজমহ‌লের রে‌প্লিকা হ‌য়ে‌ছে । অ‌নে‌কে তা দেখ‌তে যান ।

আ‌মি আগ্রায় আসল তাজমহল দে‌খে‌ছি । তাই রে‌প্লিকা দেখ‌তে যাই‌নি । ত‌বে পরি‌স্থি‌তি স্বাভা‌বিক হ‌লে অ‌নেক প্রে‌মিক জু‌টি সোনারগাঁও যা‌বেন । নকল তাজমহল ও নকল ট্রয় দেখার জন্য । এক স‌ঙ্গে প্রে‌মের দুই ছ‌বি দেখার সু‌যোগ পৃ‌থিবীর আর কোথাও নেই !

ভালোবাসা, রোমাঞ্চ, প্রেম, ক্রোধ, জিঘাংসা, ধ্বংস, তাণ্ডব, হিংসা, ঘৃণা, যুদ্ধ, ধর্ম-অধর্ম, ‌সব একাকার সেখা‌নে !

মাসুদ করিম, সিনিয়র সাংবাদিক

(মত ভিন্ন মত বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়।)

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর