সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০৩ ঘন্টা ৩৭ মিনিট আগে

যৌন মিলনের যত উপকারিতা

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

যৌন মিলনের যত উপকারিতা

নিয়মিত যৌন মিলনের অনেক উপকারিতা রয়েছে। নিয়মিত মিলনে কমবে ক্লান্তি, দুশ্চিন্তা, মেদ। আর উপহার দেবে আরামের ঘুম। সেই সঙ্গে আপনার মন ও মেজাজকে করবে ফুরফুরে। মিলনের বেশ কিছু উপকারিতা তুলে ধরা হলো-

আরও পড়ুন: যে খাবার খেলে কমে গোপন শক্তি!

১। সেক্স চাপ মুক্তি ঘটায়: হ্যাঁ, এটাই সত্যি৷ বায়োলজিক্যাল পার্সপেক্টিভ জার্নালের একটি স্টাডি বলছে, বিভিন্ন বয়সের বেশ কয়েকজন ব্যক্তিকে কিছু চাপের টাস্ক দেওয়া হয়৷ দেখা যায়, কাজটি করার আগে যাঁরা ইন্টারকোর্স বা মিলনে যুক্ত হয়েছেন তাঁরা অনেকটাই স্ট্রেস ফ্রি হয়েছেন। তাদের মনেও আসে ফূর্তি৷ সেই সঙ্গে কমে যায় অবসাদও।

আরও পড়ুন: অপর্যাপ্ত ঘুম ধ্বংস করবে যৌন জীবন

২। মিলন মনের ফূর্তির অন্যতম রসদ: গবেষণায় দেখা গেছে, যাঁরা মিলনে লিপ্ত হন তাঁরা ফূর্তিতে থাকেন। ফলে তাঁদের সঙ্গে অন্য কেউ কথা বলেও আরাম পান। একটি পজিটিভ ভাইব্রেশন থাকে তার মধ্যে।

আরও পড়ুন: সঠিক মিলনের পথে বাধাগুলো কী?

৩। ব্যথার উপশমেও মিলনের গুরুত্ব: শরীরের ব্যথা কমাতে মিলনের গুরুত্ব দারুণ। নিয়মিত যাঁরা ইন্টারকোর্স করেন, তাঁদের শরীরে ব্যথা কম হয়। ব্যথা সারিয়েও দেয় সেক্স।

আরও পড়ুন: মিলনের ভালো সময় কোনটি?

৪। যৌনতা রক্তচাপ ঠিক রাখার জন্য ভালো। ৫৭ থেকে ৮৫ বছর বয়সে যৌনতায় সক্রিয় নারীরা উচ্চরক্তচাপে ভোগেন না। জার্নাল অফ হেলথ অ্যান্ড সোশাল বিহেভিওর এ প্রকাশিত এক গবেষণায় এমনটাই বলা হয়েছে। পাশাপাশি একটি ট্রোজান এবং সেক্স ইনফরমেশন এবং এডুকেশন কাউন্সিল অফ কানাডার জরিপ মতে, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যৌনতা আরো রোমাঞ্চকর হয়ে ওঠে।

আরও পড়ুন: বয়স বাড়লে নারীদের মিলনের চাহিদা বাড়ে না কমে?

৫. যৌনতা আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে পারে… অপ্রত্যাশিত বা অনাকাঙ্ক্ষিত যৌনতা কমবয়সী নারীদের জন্য ক্ষতিকর, গতানুগতিক এই ধারণাটি ঠিক নয়। বরং সোশাল সাইকোলজিক্যাল অ্যান্ড পার্সোনালিটি সায়েন্স এর একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব কলেজ শিক্ষার্থী এ ধরনের যৌন মিলন উপভোগ করেন তাদের আত্মবিশ্বাস বেশি। যদি তারা প্রায়ই তা উপভোগ করে, কিন্তু তারা যদি তা পছন্দ না করে তাহলে প্রায়ই যৌনতা উপভোগ করাটা উপকারী হবে না। এর মানে হলো আপনাকে আপনার আকাঙ্ক্ষাগুলোর ব্যাপারে সৎ হতে হবে।

আরও পড়ুন: শারীরিক মিলনের ৫ উপকার

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য