তিন ছবি নিয়ে চিন্তায় সালমান

অনলাইন ডেস্ক

তিন ছবি নিয়ে চিন্তায় সালমান

ঈদ মানেই বক্স অফিসে বলিউড ভাইজানের ঝড়! কিন্তু গত ঈদ থেকে করোনার কারণে হলে মুক্তি মেলেনি সালমান খানের কোনও ছবি। তার একটি ছবিই যে কোটি কোটি টাকার ব্যবসা করে লাভের মুখ দেখে হল মালিক থেকে শুরু প্রডিউসার সবাই। সেখানে সাল্লুর তিন তিনটি ছবি যে মুক্তির অপেক্ষায়। কিন্তু সিনেমা রেডি হল তো রেডি না। সেই ভাবনায় চুলবুল পান্ডের কপালে চিন্তার ভাজঁ। এখন অপেক্ষা, সিনেমা হল কবে সম্পূর্ণ রূপে চেনা মেজাজে ফিরবে। 

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই নিয়ে নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করলেন স্বয়ং সালমান নিজেই। সালমান খান বলেন, সিনেমা হল না বাঁচলে তাদের পক্ষেও টিকে থাকা ক্রমশ কঠিন হয়ে পড়বে।


যে কারণে দোয়া কবুল হয় না

দুনিয়ার শ্রেষ্ঠ ‌জুমার দিনে ‘সূরা কাহাফ’ তেলাওয়াতের ফজিলত

দুনিয়ার শ্রেষ্ঠ ‌`জুমার’ দিনে যা করবেন

প্রতিদিন সকালে যে দোয়া পড়তেন বিশ্বনবি


সালমান আগেই ঘোষণা করেছিলেন, এ বছর ইদে মুক্তি পাচ্ছে তার ‘রাধে’। হলমালিক ও ডিস্ট্রিবিউটরদের অনুরোধে ও ছবিকে ঘিরে ব্যবসার কথা মাথায় রেখেই ‘রাধে’ সিনেমা হলে মুক্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সালমান। সেই সঙ্গে ‘কভি ইদ কভি দিওয়ালি’ এবং ‘অন্তিম’-এর কাজও মোটামুটি শেষ। 

দেশজুড়ে সিনেমা হলে ১০০ শতাংশ প্রবেশাধিকারের পরেও দর্শক সে ভাবে না হওয়ায় একে একে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সিঙ্গল স্ক্রিন।

এ প্রসঙ্গে সালমান বলেছেন, ‘প্রেক্ষাগৃহগুলো যেন কবরখানার মতো দাঁড়িয়ে থাকে এখন। আর্থিক কারণে অনেকেই হল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন। এটা ভাল লক্ষণ নয়। এটা আমাদের রুজিরুটি। আমরা পরস্পরের উপরে নির্ভরশীল। হল বন্ধ হয়ে গেলে আমাদের ছবিগুলো কোথায় দেখাব?

সামনেই ভ্যালেন্টাইনস উইকেন্ড উপলক্ষে হলে মুক্তি পাচ্ছে ছোট-বড় কিছু ছবি। সিনেমা-ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত বহু মানুষ আপাতত সে দিকেই তাকিয়ে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তামিমার সাবেক স্বামীকে বাটপার বলছে মিম

অনলাইন ডেস্ক

তামিমার সাবেক স্বামীকে বাটপার বলছে মিম

জাতীয় দলের একসময়ের ‘ব্যাডবয়’ খ্যাত খেলোয়াড় নাসির হোসেন বিয়ে করেছেন গত ১৪ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু  বিয়ের পরও তার প্রেম ও নারী সংক্রান্ত নানা বিতর্কিত গল্প যেন শেষই হচ্ছে না। নাসিরের সদ্য বিবাহিত স্ত্রীর স্বামী কয়জন যখন সেটা নিয়ে যখন আলোচনা চলছে। তারই মধ্যে আগুনে ঘি ঢাললেন মডেল-অভিনেত্রী মারিয়া মিম।

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সিদ্দিককে ভালোবেসে ২০১২ সালের ২৪ মে বিয়ে করেছিলেন মারিয়া মিমকে। ২০১৩ সালে জন্ম হয় এ দম্পতির প্রথম সন্তান আরশ। কিন্তু মান অভিমানের কারণে ২০১৯ সালের অক্টোবরে সিদ্দিককে তালাক দেন মিম। 

নাসির ইস্যুতে এর আগেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কথা বলেছিলেন মারিয়া মিম। আবারও নাসির-তামিমা ইস্যুতে আলোচিত রাকিবকে নিয়ে মুখ খুলেছেন মারিয়া মিম। বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

মারিয়া মিমের স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

রাকিবকে আমার বাটপার মনে হচ্ছে। মেয়েকে দেখতে আসার নাম করে চুরি করে নিয়ে গেছে আর এখন ব্লেইম দিচ্ছে মায়ের। সব স্বামীরাই বাচ্চাদের ব্যবহার করে মানুষের কাছে মহান হওয়ার জন্য। সিদ্দিকও একই কাজ করেছে। আরশকে ওর কাছে আটকে রেখে আমাকে মানুষের কাছে ছোট করা হয়েছে। বলা হয়েছে, আমি বাচ্চার সঙ্গে কথা বলি না, বাচ্চাকে আমার কাছে নেই না। সেই বাচ্চাকে আমার কাছে নেয়ার জন্য মামলা পর্যন্ত করতে হয়েছে।


নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

বাংলাদেশে সেরা লাইকি

আমাকে নিয়ে আর খেলতে দিবো না : মিলা


 

এখন আরশ আমার কাছে থাকে তারপরও মানুষে খারাপ মন্তব্য শুনতে হয়। ডিভোর্স হলে মেয়েদেরকেই কথা শুনতে হয়। আর এখানে স্বামীরা হয়ে যায় মহান। রাকিবকে সাপোর্ট না দিয়ে ভালো করে জানা উচিত ও সত্যি নাকি মিথ্যা বলছে। আর মিথ্যা হলে রাকিবকে এমন শাস্তি দেওয়া উচিত যাতে কোনো স্বামী এসব হয়রানি করার সাহস না পায়।

এদিকে শোনা যাচ্ছে, ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে মিমের। আবার কেউ কেউ বলছেন নাসির তার প্রাক্তন প্রেমিক। আর এ নিয়ে নানাভাবেই বিব্রত মারিয়া ফেসবুকে লিখেছেনও। সেখানে তিনি বলেন, নাসিরের সঙ্গে আপনার সম্পৃক্ততার কথা কেন আসছে, এমন প্রশ্নের জবাবে মিম বলেন, নাসিরের বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াত ছিল। অল্প কিছু মানুষ অবশ্য সেই আকদ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছিল। সেখানে গিয়েছি।

নাসিরের সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবিও তুলেছিলাম। ওসব ফেসবুকে পোস্ট করার পর থেকেই যন্ত্রণায় পড়েছি। মানুষ ক'দিন থেকে অতিষ্ঠ করে তুলছিল। আর শনিবার নাসিরকে নিয়ে নতুন খবর প্রকাশ হওয়ার পর আরো শুরু হয়েছে- আমি নাকি নাসিরের প্রেমিকা ছিলাম।'

প্রসঙ্গত, গত  ১৪ ফেব্রুয়ারি উত্তরায় একটি রেস্তোঁরায় দুই পরিবারের উপস্থিতিতে আকদ হয় নাসিরের। ১৭ ফেব্রুয়ারি তাদের হলুদে উপস্থিত হয়েছিলেন জাতীয় দলের হয়ে খেলা অনেকেই। শনিবার রাতেই রাজধানীর গুলশানের লেকশোর হোটেলে আলোচিত নাসির-তামিমা জুটির বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জীবনের শেষ চিরকুটে যা লিখেছিলেন শ্রীদেবী

অনলাইন ডেস্ক

জীবনের শেষ চিরকুটে যা লিখেছিলেন শ্রীদেবী

বলিউডের বরেণ্য অভিনেত্রী শ্রীদেবী ২০১৮ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে না ফেরার দেশে চলে যান। দুবাইয়ে এক পারিবারিক অনুষ্ঠানে গিয়ে মারা যান তিনি। হোটেলের বাথটাব থেকে উদ্ধার হয়েছিল অভিনেত্রীর মরদেহ।

২৪ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) ছিল শ্রীদেবীর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। মায়ের চলে যাওয়ার দিনে সামাজিক মাধ্যমে স্মৃতিচারণ করেন জাহ্নবী। নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন মায়ের থেকে পাওয়া এক চিরকুট ৷ যেখানে লেখা ছিল, ‘তোমাকে ভালোবাসি বাবু, এই পৃথিবীর সেরা সন্তান তুমি’। 

এদিকে বলিউডে অল্প সময়ের মধ্যে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন জাহ্নবী কাপুর। জাহ্নবী কাপুরের প্রথম সিনেমা ‘ধাড়াক’। এরজন্য পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়েছিলেন মায়ের কাছ থেকে। ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ের প্রতি ঝোঁক জাহ্নবীর।


মেসি ম্যাজিকে বার্সার বড় জয়

১০জনের আটালান্টার বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয় পেল রিয়ালের

বাংলাদেশে সেরা লাইকি

আমাকে নিয়ে আর খেলতে দিবো না : মিলা


করণ জোহর প্রযোজিত ‘ধাড়াক’-এর জন্য শ্রীদেবী নিজে গাইড করেছিলেন মেয়েকে। অথচ সিনেমা মুক্তির আগেই চলে যান বলিউডের এই কিংবদন্তী অভিনেত্রী। সন্তানকে বড় পর্দায় দেখার ইচ্ছাটা অধরাই থেকে গেল। 

প্রথম সিনেমা মুক্তিতে মাকে না পাওয়ার কষ্ট আজও রয়েছে জাহ্নবীর মনে। শ্রীদেবীর সঙ্গে মেয়ের সম্পর্ক সবসময় বন্ধুর মতো ছিল। তাই মায়ের চলে যাওয়া তাকে সবচেয়ে একা করে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, শ্রীদেবী ভারতীয় সিনেমার এমন এক নাম যার মুখ মনে পড়লেই মন ভালো হয়ে যায়। প্রাণবন্ত অভিনয়ে সকলের মনের রানি হয়ে উঠেছিলেন শ্রীদেবী। অমিতাভ থেকে শাহরুখ খান কার সঙ্গে ছবি করেননি তিনি। কখনও চুলবুলি, আবার কখন ও ভয়ঙ্করী সব চরিত্রেই অভিনয় করেছেন তিনি। আর নাচ ! তার মতো অনায়াসে নাচ করতে অনেকেই পারেন না বলিউডের। এ হেন শ্রীকে এত তাড়াতাড়ি বিদায় জানাতে হবে তা বোধহয় কেউ ভাবতে পারেনি। বনি কাপুরকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন শ্রীদেবী। সুখের সংসার ছিল তাদের। তবে সব কিছু এক মুহূর্তে শেষ করে চলে গেলেন শ্রীদেবী। তবে মানুষের মনে আজও তার জায়গা কেউ নিতে পারেনি।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আমাকে নিয়ে আর খেলতে দিবো না : মিলা

অনলাইন ডেস্ক

আমাকে নিয়ে আর খেলতে দিবো না : মিলা

সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারিকে হত্যা চেষ্টার মামলায় স্থায়ী জামিন পেয়েছেন কণ্ঠশিল্পী মিলা। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) তিনটার দিকে ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করেন মিলা। শুনানি শেষে ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় তাকে জামিন দিয়েছেন বিচারক দিলারা আলো চন্দনা।

মামলায় জামিনের পরে মিলা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। আমি যখনই ওঠে দাঁড়াতে চেয়েছি, তখনই মামলা হয়েছে। আমাকে নিয়ে এভাবে খেলার তো কোনো মানে নেই। আমাকে নিয়ে কেন এভাবে গেম হচ্ছে। এখন থেকে আমি আর কাউকে আমাকে নিয়ে খেলতে দেব না।


মেসি ম্যাজিকে বার্সার বড় জয়

১০জনের আটালান্টার বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয় পেল রিয়ালের

বাংলাদেশে সেরা লাইকি

কষ্টার্জিত জয়ে অ্যাটলেটিকোর ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে রিয়াল


জামিন পেয়েও খুশি  না জানিয়ে মিলা বলেন, জামিনটা বড় কথা না। আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে। মিথ্যা মামলা নিয়ে আমাকে সবার কাছে জবাবদিহি করতে হচ্ছে। এর চেয়ে দুঃখজনক কিছু হতে পারে না। আপনাদের লাভ কি আমাকে এভাবে অসম্মান করে। আমার মতো একজন আর্টিস্টের জন্যও যদি সবার একটু দয়ামায়া থাকে, তাহলে প্লিজ আমাকে উদ্ধার করেন।

তিনি জানিয়েছেন, অনেক ধরনের হুমকি–ধামকি এরই মধ্যে পেলেও সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে দায়ের করা নির্যাতন ও যৌতুকের মামলা তিনি কোনো অবস্থায় প্রত্যাহার করবেন না। আইনিভাবে শেষ পর্যন্ত লড়ে যাবেন তিনি। মিলার দাবি, ‘আমি আমার অবস্থানে অনড় আছি। কারণ, মামলায় আমি সত্যটাই তুলে ধরে মামলা করেছি।

২০১৭ সালের ১২ মে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মিলা ও সানজারি। একই বছরের ৫ অক্টোবর সানজারির বিরুদ্ধে যৌতুকের মামলা ছাড়াও আরও কয়েকটি মামলা করেন মিলা। পরে ২০১৮ সালের ৩১ জানুয়ারি তাদের তালাক সম্পন্ন হয়। ২০১৯ সালের ২ জুন সাবেক স্বামীর ওপর এসিড নিক্ষেপের মামলায় সিআইডির তদন্তে অভিযুক্ত হন সংগীত শিল্পী মিলা ও তার সহযোগী কিম।

২০০২ সালের ৩১ জুলাই আবির আহম্মেদ নামের এক যুবককে প্রথম বিয়ে করেছিলেন সংগীতশিল্পী মিলা। তাদের বিচ্ছেদ হয়ে গেলে সানজারিকে বিয়ে করেন তিনি। বিভিন্ন কারণে ভেঙে যায় মিলার দ্বিতীয় সংসারও। 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তামিমার পাসপোর্ট আসল কিনা মুখ খুললেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

অনলাইন ডেস্ক

তামিমার পাসপোর্ট আসল কিনা মুখ খুললেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

বিয়ের পর থেকেই নাসির-তামিমা ইস্যু নিয়ে আলোচনা সমালোচনা চরমে। কোন ভাবেই থামছে না নাসিরের বিয়ে বিতর্ক। একের পর এক ইস্যু জন্ম দিচ্ছে নতুন সব বিতর্কের। তাদের কাছ থেকে পাওয়া পাসপোর্ট ও ডিভোর্স পেপার নিয়ে নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে।

নাসির-তামিমার এই ঘটনায় শুরু থেকেই ঘি ঢেলে যাচ্ছেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা হুমায়রা সুবাহ। নাসিরের সংবাদ সম্মেলনের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হন সুবাহ। সংবাদ সম্মেলনে নাসির হোসেন উপস্থাপন করেন তামিমা ও রাকিবের বিয়ে বিচ্ছেদ হয়েছে ২০১৭ সালে। ২০১৬ সালে বিয়ে বিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন তারা। কিন্তু সুবাহ হাজির তামিমার পাসপোর্টের কপি নিয়ে। ২০১৮ সালের এই পাসপোর্ট কপিতে দেখা যায় তামিমার স্বামীর নামের পাশে রাকিব লেখা একই সাথে জরুরি প্রয়োজনে যোগাযোগ নম্বরও রাকিবের।

সুবাহ তার পোস্টে লিখেছেন, ‘কিছু প্রমাণ দিলাম। জানিনা ঘটনা আসল কি। যাচাই করুন রাকিব ভাইয়াকে ফাসানো হচ্ছে এবং হবে। তামিমার পাসপোর্ট ২০১৮ সালের সামির নাম দেয়া রাকিব হাসান।  তাহলে ১৬ সালের জাল তালাক নামা আবার কিসের?’

আরও পড়ুন:


একসাথে রাম চরণ ও কোরিয়ান নায়িকা সুজি!

রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ

পিলখানা হত্যা: শহীদদের সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

আমি ভেতর ভেতর খুবই উন্মাদ: নোরা ফাতেহি


নাসির হোসাইন সম্প্রতি তামিমাকে বিয়ে করার পর একের পর এক লাইভে এসে এ নিয়ে নানা কথা বলছেন সুবাহ। সেগুলো আসছে আলোচনায়ও।

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে (১৪ ফেব্রুয়ারি) জীবনের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। স্ত্রী তামিমা তাম্মির সঙ্গে তার আকদ ও গায়ে হলুদের ভিডিও আপলোড করেন নাসির। এরপর ভাইরাল হয় তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের ভিডিওচিত্রও।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

একসাথে রাম চরণ ও কোরিয়ান নায়িকা সুজি!

অনলাইন ডেস্ক

একসাথে রাম চরণ ও কোরিয়ান নায়িকা সুজি!

দক্ষিণী সুপারস্টার রাম চরণ। সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন দক্ষিণী চলচ্চিত্রে। তার ঝুলিতে ব্যবসা সফল ছবির অভাব নেই। দক্ষিণী গুণী নির্মাতা শঙ্কর রাম চরণকে নিয়ে আরও একটি ব্যবসা সফল সিনেমা উপহার দিতে যাচ্ছেন দর্শকদের। 

নির্মাতা শঙ্কর বেশ আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন রাম চরণকে নিয়ে একটি বড় বাজেটের সিনেমা নির্মাণের। এবার শোনা যাচ্ছে, নাম ঠিক না হওয়া এ সিনেমায় রাম চরণের বিপরীতে অভিনয় করবেন দক্ষিণ কোরিয়ার অভিনেত্রী সুজি ব্যা। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া এ খবর প্রকাশ করেছেন।

ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, চলচ্চিত্রটিতে দক্ষিণ কোরিয়ার অভিনেত্রী সুজি ব্যাকে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন পরিচালক। আরো শোনা যাচ্ছে, সিনেমাটির কেন্দ্রীয় নারী চরিত্রে রাশমিকা মন্দনাকে দেখা যাবে।

আরও পড়ুন:


রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ

পিলখানা হত্যা: শহীদদের সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

আমি ভেতর ভেতর খুবই উন্মাদ: নোরা ফাতেহি

ইরানের পরমাণু কর্মসূচির জন্য গঠনমূলক পন্থা প্রয়োজন: রাশিয়া


শ্রী ভেঙ্কটেশের ব্যানারে সিনেমাটি প্রযোজনা করবেন দিল রাজু ও শিরিষ। মজার বিষয় হলো, প্রথমবারের মতো তেলেগু সিনেমার কোনো নায়ককে নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করছেন শঙ্কর। তামিল, তেলেগু ও হিন্দি ভাষায় মুক্তি পাবে এ সিনেমা।  

রাম চরণের পরবর্তী সিনেমা ‘রুদ্রম রণম রুধিরাম’ বা ‘ট্রিপল আর’। রাজামৌলি পরিচালিত এ সিনেমা চলতি বছরের ১৩ অক্টোবর মুক্তির কথা রয়েছে। এছাড়া ‘আচার্য’ সিনেমায় দেখা যাবে রাম চরণকে। এ সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন রাম চরণের বাবা চিরঞ্জীবী।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর