মাটির নিচে সাড়ে ৫ হাজার বছর আগের বাড়ির সন্ধান
মাটির নিচে সাড়ে ৫ হাজার বছর আগের বাড়ির সন্ধান

মাটির নিচে সাড়ে ৫ হাজার বছর আগের বাড়ির সন্ধান

অনলাইন ডেস্ক

মাটি খুঁড়তেই বেড়িয়ে এলো সাড়ে ৫ হাজার বছর আগের চারটি পুরনো বাড়ি। এই বাড়িগুলোর আবিষ্কার করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। তুরস্কের পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা মালাটইয়া প্রদেশের ৭ কিলোমিটার দূরে আরস্লানটেপে এই বাড়িগুলো খুঁজে পান তারা।

প্রত্নতাত্ত্বিকরা এই চারটি বাড়ি ছাড়াও ২৮টি কবর খুঁজে পেয়েছেন।

কবরগুলো ১ হাজার বছর পুরনো বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্থানীয় গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহ’র প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানানো হয়েছে।

পুরোনো বাড়িগুলো পাওয়া সেই আরস্লানটেপ এরইমধ্যে ইউনেস্কোর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের স্থায়ী তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। প্রত্নতাত্ত্বিকরা জানান, ওই জায়গাটির তারা এ বছরের এক-তৃতীয়াংশ খনন সম্পন্ন করা হয়েছে। খ্রিস্টপূর্ব ৫০০০ সাল থেকে ১১ শতক পর্যন্ত আরস্লানটেপে বসতি ছিল। পঞ্চম এবং ষষ্ঠ শতকে এটা একটি রোমান গ্রাম ছিল। পরে বাইজেন্টাইনরা এটাকে কবরস্থান হিসেবে ব্যবহার করে।

আরও পড়ুন


আকর্ষনীয় বেতনে অ্যাকশনএইডে চাকরির সুযোগ

নুসরাতের মা হওয়ার খবরে যা বললেন শ্রীলেখা

ঝিনাইদহে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৬

এবার পরীমণি ইস্যুতে শিল্পী সমিতিকে একহাত নিলেন আলমগীর


প্রত্নতাত্ত্বিকরা আরও জানান, ঐতিহাসিক এই স্থানটিতে একটি রাষ্ট্র ব্যবস্থার জন্ম হয়। পরে ধীরে ধীরে একটি সাম্যবাদী সামাজিক কাঠামো থেকে একটি শ্রেণিবিন্যাসে রূপান্তরিত হয় এই রাষ্ট্র ব্যবস্থা। গত কয়েক বছর ধরে চলা খননকাজে এখান থেকে পৃথিবীর প্রথম বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন লাইন, কাদা-ইটের তৈরি প্রাসাদ, সিংহের ভাস্কর্য এবং একটি উৎখাত রাজা এবং দুই হাজারেরও বেশি সিল উদ্ধার করা হয়।

চলতি বছরের ১০ আগস্ট থেকে ৫৫ জনের একটি টিম খননকাজ শুরু করে। সেই খননকাজ করতে গিয়েই প্রত্নতাত্ত্বিকরা ২৮টি কবর খুঁজে পান। এগুলো ১ হাজার বছর পুরনো এবং মধ্যযুগের বলে ধারণা করা হচ্ছে। এছাড়া চারটি বাড়ির ধ্বংসাবশেষও আবিষ্কার করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। পাশাপাশি পাওয়া যাওয়া এই বাড়িগুলো সাড়ে ৫ হাজার বছর পুরনো বলে মনে করা হচ্ছে।

news24bd.tv এসএম

সম্পর্কিত খবর