বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০২ মিনিট আগে

মেসি-নেইমারের গোলে খাবার মিলবে ১০ হাজার শিশুর

সাহিদ রহমান অরিন

মেসি-নেইমারের গোলে খাবার মিলবে ১০ হাজার শিশুর

দেখতে দেখতে এসে হাজির বিশ্বকাপের মাস জুন। ফুটবল মহাযজ্ঞ শুরু হতে আর বাকি মাত্র ১৩ দিন। রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার হয়ে শত কোটি দর্শক মাতাবেন লিওনেল মেসি, ব্রাজিলের হয়ে নেইমার জুনিয়র। আর তারা জালের দেখা পেলেই পেটে খাবার জুটবে ১০ হাজার শিশুর! 

অর্থ প্রদান ও পরিশোধে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান মাস্টারকার্ড ঘোষণা দিয়েছে, রাশিয়া বিশ্বকাপে মেসি কিংবা নেইমারের যে কেউ গোল করলেই ক্যারিবিয়ান ও ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলের স্কুলগুলোর ১০ হাজার শিশু খাদ্য পাবে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মাস্টারকার্ড কর্তৃপক্ষ জানায়, খুদে জাদুকর মেসি ও বিশ্বের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় নেইমারের এক-একটি গোলের বিনিময়ে তারা সুবিধাবঞ্চিত ১০ হাজার স্কুল শিক্ষার্থীর মাঝে টিফিন বিতরণ করবে। আর সেটা তারা দিবে জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) মাধ্যমে।

এই ক্যাম্পেইনের অংশ হতে পেরে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক গর্বিত, ‘এমন একটি ক্যাম্পেইনের অংশ হতে পেরে আমি গর্ববোধ করছি। এটা হাজার হাজার শিশুর জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনবে। হাজার হাজার শিশুর মুখে হাসি ফোটাবে।’

মাস্টারকার্ডের এমন উদ্যোগের অংশ হতে পেরে নেইমারও দারুণ খুশি, ‘আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে, এই অঞ্চলের শিশুরা এক প্লেট খাবার পাবে। একটু আশা পাবে। আমরা, ল্যাটিন আমেরিকানরা ভালো করেই জানি- আমরা ঐক্যবদ্ধ হলে অনেক কিছুই করতে পারি। অতীতে এমন অনেক নজির আমরা স্থাপন করেছি। একসঙ্গে আমরা ক্ষুধার বিরুদ্ধে লড়াই করতে চাই।’

মাস্টারকার্ডের মুখপাত্র জানেত রিভেরা-হার্নান্দেজ জানান, ‘ল্যাটিন আমেরিকায় ৪০ মিলিয়নের বেশি মানুষ প্রতিনিয়ত ক্ষুধার্ত থাকছে। তাদের মধ্যে শিশুদের সংখ্যাই বেশি। ক্ষুধাকে পরাজিত করা, শিশুদের পুষ্টিহীনতা দূর করা এবং তাদেরকে শিক্ষিত করে তোলা জরুরি। তাহলেই ক্ষুধাচক্র ভেঙে ফেলা সম্ভব।’

গেল দুই বছরে মাস্টারকার্ড ক্যারিবিয়ান ও ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলে ১০ মিলিয়ন খাবার বিরতণ করেছে। বিশ্বকাপে মেসি-নেইমারের গোল এই সংখ্যাটা আরো বাড়াবে। 

সূত্র: মাস্টারকার্ড নিউজরুম

অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর

 

মন্তব্য